মীনাক্ষী শেষাদ্রি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
মীনাক্ষী শেষাদ্রি
জন্ম
শশীকলা শেষাদ্রি

(1963-11-16) ১৬ নভেম্বর ১৯৬৩ (বয়স ৫৭)[১]
পেশাঅভিনেত্রী, নৃত্যশিল্পী
কর্মজীবন১৯৮১–৯৭
দাম্পত্য সঙ্গীহরিশ মহীশূর (বি. ১৯৯৫)
সন্তান
ওয়েবসাইটhttp://www.sagalegend.com/

মীনাক্ষী শেষাদ্রি (জন্ম: ১৬ই নভেম্বর ১৯৬৩) হলেন একজন ভারতীয় অভিনেত্রী, মডেল এবং নৃত্যশিল্পী, যিনি মূলত হিন্দি, তামিল এবং তেলুগু চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন। তিনি ১৯৮১ সালে মাত্র ১৭ বছর বয়সে ইভ'স উইকলি মিস ইন্ডিয়া প্রতিযোগিতা জয়লাভ করেছিলেন।[২][৩]

শেষাদ্রি ১৯৮৩ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত পেইন্টার বাবু নামক চলচ্চিত্রের মাধ্যমে আত্মপ্রকাশ করেছিলেন এবং ১৯৮৩ সালে হিরো নামক চলচ্চিত্রে অভিনয়ের মাধ্যমে ব্যাপক পরিচিতি লাভ করেছিলেন। তিনি ১৯৮০-এর দশক এবং ১৯৯০-এর দশকে হিন্দি চলচ্চিত্রের অন্যতম প্রধান অভিনেত্রী হয়ে ওঠেন। তাঁর বেশ কয়েকটি অভিনয়, সৌন্দর্য এবং নৃত্যের জন্য তিনি ব্যাপকভাবে পরিচিত ছিলেন। তিনি হোশিয়ার (১৯৮৫) বেবফাই (১৯৮৫) মেরি জঙ্গ (১৯৮৫) স্বাতী (১৯৮৬), ডাকায়েত (১৯৮৭), ইনাম দস হাজার (১৯৮৭), শাহেনশাহ (১৯৮৮) মহাদেব (১৯৮৯), আওয়ারগী (১৯৯০), জুরম (১৯৯০), ঘায়েল (১৯৯০), ঘর হো তো অ্যায়সা (১৯৯০), দামিনী (১৯৯৩) এবং ঘাতক (১৯৯৬)-এর মতো জনপ্রিয় চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছিলেন।[৪] তিনি স্বাতী (১৯৮৬), দহলীজ (১৯৮৬), সত্যমেব জয়তে (১৯৮৭), আওয়ারগী (১৯৯০) এবং দামিনী (১৯৯৩)-এর মতো চলচ্চিত্রে তাঁর অভিনয়ের জন্য সমালোচকদের অনেক প্রশংসা কুড়িয়েছিলেন।[৫] তিনি নব্বইয়ের দশকে খাজুরাহো নৃত্য উৎসবেও নৃত্য পরিবেশন করেছিলেন।

তাঁর ঘাতক নামক চলচ্চিত্রটি মুক্তির পরে, তিনি চলচ্চিত্র জগত ছেড়ে দিয়েছিলেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে গিয়েছিলেন, যেখানে তিনি এখন চেরিশ ডান্স স্কুল পরিচালনা করছেন।[৬] মীনাক্ষী অ্যাকসেপ্ট হার উইংস নামক শিরোনামে তাঁর জীবন নিয়ে একটি তথ্যচিত্র তৈরি হয়েছিল।[৭][৮]

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

মীনাক্ষী শেষাদ্রি ১৯৬৩ সালের ১৬ই নভেম্বর তারিখে ভারতের ঝাড়খণ্ডের সিন্দ্রির একটি তামিল পরিবারে শশীকলা শেষাদ্রি নামে জন্মগ্রহণ করেছিলেন।[৯][১০][১১][১২][১৩] তিনি চারটি ভারতীয় শাস্ত্রীয় নৃত্যের ধরন শিখেছেন; যেগুলো হচ্ছে, ভরতনাট্যম, কুচিপুড়ি, কত্থক এবং ওড়িশি নাচ। তিনি ভেম্পতি চিন্না সত্যম এবং জয়া রাম রাও এর থেকে প্রশিক্ষণ নিয়েছিলেন। তিনি মাত্র ১৭ বছর বয়সে ১৯৮১ সালে ইভ'স উইকলি মিস ইন্ডিয়া প্রতিযোগিতা জয়লাভ করেছিলেন এবং ১৯৮১ সালে জাপানের টোকিওতে অনুষ্ঠিত মিস ইন্টারন্যাশনালে ভারতের প্রতিনিধিত্ব করেছিলেন।[১৪][১৫]

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

১৯৯৫ সালে বিনিয়োগ ব্যাংক কর্মকর্তা হরিশ মহীশূরের সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়ে চলচ্চিত্র জগত থেকে অবসর নেন মীনাক্ষী শেষাদ্রি। নিউ ইয়র্কে তাঁদের একটি নাগরিক বিবাহ এবং একটি নিবন্ধিত বিবাহ হয়েছিল।[১৬] এই দম্পতির দুটি সন্তান, একটি কন্যা ও একটি পুত্র রয়েছে। শেষাদ্রি টেক্সাসের প্লানোতে থাকেন;[১৭] সেখানে তিনি ভরতনাট্যম, কত্থক এবং ওড়িশির শিক্ষা প্রদান করেন।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Happy Birthday Meenakshi Sheshadri! The grace of the 80's!"The Free Press Journal। ১৬ নভেম্বর ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ১১ মে ২০১৯ 
  2. "Actress missing from Action – Meenakshi Seshadri"। Zee News। সংগ্রহের তারিখ ২৯ জানুয়ারি ২০১২ 
  3. "Miss India and their Bollywood breaks"। সংগ্রহের তারিখ ২৫ জুন ২০১৪ 
  4. Boxofficeindia.com। "Top Actress"। ১৭ অক্টোবর ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  5. "BoxOffice India.com"। BoxOffice India.com। ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৯ আগস্ট ২০১০ 
  6. "When Meenakshi Seshadri waited for 8 hours in a queue and no one recognised her"। সংগ্রহের তারিখ ৬ এপ্রিল ২০২০ 
  7. "Box Office 1996"। সংগ্রহের তারিখ ৫ জুন ২০১২ 
  8. "The Miraculous Meenakshi | Lights Camera Action | Houston fSouth Asian Lifestyle Society News"। lcahouston.com। ৩০ ডিসেম্বর ২০০৮। সংগ্রহের তারিখ ৭ আগস্ট ২০১২ 
  9. "Second Coming"The Hindu। ১৬ জুলাই ২০০৫ – www.thehindu.com-এর মাধ্যমে। 
  10. "YouTube"www.youtube.com 
  11. "Daily Bhaskar: Bollywood's 'Damini' Meenakshi Seshadri turns 51"। Daily Bhaskar। সংগ্রহের তারিখ ২২ ডিসেম্বর ২০১৩ 
  12. "Bollywood actress Meenakshi turns 48"। Awaztoday.com। ১৬ নভেম্বর ১৯৫৯। ৭ ডিসেম্বর ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১১ মার্চ ২০১৪ 
  13. "Meenakshi Seshadri | Meenakshi Seshadri news | Meenakshi Seshadri movies | Meenakshi Seshadri pics | photos | images | Meenakshi Seshadri hits | Full movies | Meenakshi Seshadri hot pics"। TollywoodTimes। ১৬ নভেম্বর ১৯৫৯। সংগ্রহের তারিখ ১১ মার্চ ২০১৪ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  14. Kothari, Sunil; Avinash Pasricha (২০০১)। Kuchipudi। Abhinav Publications। পৃষ্ঠা 203। আইএসবিএন 8170173590 
  15. Mandhir Saikia and Avani Saxena (২২ সেপ্টেম্বর ১৯৯৯)। "Meenakshi magic"Express। সংগ্রহের তারিখ ১৫ মে ২০১২ 
  16. "civil wedding"। ১৬ নভেম্বর ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১ নভেম্বর ২০১২ 
  17. "Spurred by success: Meenakshi bares her claws!"Stardust। ৩১ অক্টোবর ২০১৩। ১৩ জানুয়ারি ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৩ জুন ২০১৯ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]