মানিশ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
মানিশ
Maniche.jpg
২০০৯ সালে মানিশ
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নাম নুনো রিকার্দো দে অলিভিয়েরা রিবেরো
জন্ম (১৯৭৭-১১-১১) ১১ নভেম্বর ১৯৭৭ (বয়স ৪১)
জন্ম স্থান লিসবন, পর্তুগাল
উচ্চতা ১.৭৩ মি (৫ ফু ৮ ইঞ্চি)
মাঠে অবস্থান মধ্যমাঠ
যুব পর্যায়ের খেলোয়াড়ী জীবন
১৯৮৯–১৯৯৬ বেনফিকা
জ্যেষ্ঠ পর্যায়ের খেলোয়াড়ী জীবন*
বছর দল উপস্থিতি (গোল)
১৯৯৫–১৯৯৬ বেনফিকা (০)
১৯৯৬–১৯৯৯ ফুটবল ক্লাব আলভার্কা ৭৮ (১০)
১৯৯৯–২০০২ বেনফিকা ৫৪ (১১)
২০০২ বেনফিকা বি (০)
২০০২–২০০৫ পর্তো ৮০ (১৬)
২০০৫–২০০৬ ডায়নামো মস্কো ১২ (২)
২০০৬চেলসি ফুটবল ক্লাব (loan) (০)
২০০৬–২০০৯ আতলেতিকো মাদ্রিদ ৬৪ (৭)
২০০৮ইন্টার মিলান (ধার) (১)
২০০৯–২০১০ ১. ফুটবল ক্লাব কোয়েন ২৬ (২)
২০১০–২০১১ স্পোর্টিং সিপি ১৭ (১)
মোট ৩৪৭ (৫০)
জাতীয় দল
১৯৯৭–১৯৯৮ পর্তুগাল ২১ ১০ (০)
২০০৩–২০০৯ পর্তুগাল ৫৩ (৭)
দলসমূহ পরিচালিত
২০১৩ পাসুশ দি ফেরেইয়া (সহকারী)
২০১৬ আকাদেমিকা (সহকারী)
  • পেশাদারী ক্লাবের উপস্থিতি ও গোলসংখ্যা শুধুমাত্র ঘরোয়া লিগের জন্য গণনা করা হয়েছে।
† উপস্থিতি(গোল সংখ্যা)।

মানিশ (Maniche) (নভেম্বর ১১, ১৯৭৭) পর্তুগালের একজন ফুটবল খেলোয়াড়। তাঁর পূর্ণ নাম নুনো রিকার্দো অলিভিয়েরা রিবেরো। তিনি বিভিন্ন ফুটবল ক্লাব ও পর্তুগাল দলের হয়ে মধ্যমাঠে খেলেছেন। ২০০৬ সালের বিশ্বকাপে পর্তুগালের প্রতিনিধিত্ব করছেন।

আন্তর্জাতিক[সম্পাদনা]

২০০৯ সালে মানিশ ডেনমার্কের বিপক্ষে খেলছেন

মানিশের পর্তুগাল দলে অভিষেক হয় ২০০৩ সালের ২৯ মার্চ ব্রাজিলের বিপক্ষে। খেলাটি পর্তুগাল ২-১ গোলে জিতে। তিনি ২০০৪ উয়েফা ইউরোতে পর্তুগালের মধ্যমাঠের প্রধান খেলোয়াড় ছিলেন। গ্রুপ স্টেজে তিনি রাশিয়ার বিপক্ষে গোল করেন এবং পর্তুগাল ২-০ গোলে জিতে।[১] পরে সেমি ফাইনালে নেদারল্যান্ডের বিপক্ষে তার গোলে ২-১ এর জয় নিয়ে পর্তুগাল ফাইনালে ওঠে।[২] ফলে বড় টুর্নামেন্টে তাকে দলে ডাকা হত।

আন্তর্জাতিক গোল[সম্পাদনা]

গোল তারিখ ভেন্যু প্রতিপক্ষ স্কোর ফলাফল প্রতিযোগিতা
১৬ জুন ২০০৪ এস্তাদিও দা লুজ, লিসবন, পর্তুগাল রাশিয়া –০ ২–০ উয়েফা ইউরো ২০০৪
৩০ জুন ২০০৪ এস্তাদিও হোসে আলভালাদে, লিসবন, পর্তুগাল নেদারল্যান্ড –০ ২–১ উয়েফা ইউরো ২০০৪
3 ১৭ নভেম্বর ২০০৪ স্তেদ হোসি বার্থেল, লুক্সেমবার্গ সিটি, লুক্সেমবার্গ লুক্সেমবার্গ ০– ০–৫ ২০০৬ ফিফা বিশ্বকাপ বাছাই
১ মার্চ ২০০৬ এস্পিরিট এরিনা, ডুসেলডর্ফ, জার্মানি সৌদি আরব ০– ০–৩ প্রীতি ম্যাচ
২১ জুন ২০০৬ ভেলটিন্স-এরিনা, গেলসেনকির্শেন, জার্মানি মেক্সিকো –০ ২–১ ২০০৬ ফিফা বিশ্বকাপ
২৫ জুন ২০০৬ ফ্রাঙ্কেনস্টাডিয়ন, নুরেমবের্গ, জার্মানি নেদারল্যান্ড –০ ১–০ ২০০৬ ফিফা বিশ্বকাপ
৮ সেপ্টেম্বর ৭ এস্তাদিও দা লুজ, লিসবন, পর্তুগাল পোল্যান্ড –১ ২–২ ২০০৮ উয়েফা ইউরো বাছাই

সম্মাননা[সম্পাদনা]

ক্লাব[সম্পাদনা]

পর্তো
চেলসি
ইন্টার

আন্তর্জাতিক[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Russia 0–2 Portugal"বিবিসি নিউজ। ১৬ জুন ২০০৪। সংগ্রহের তারিখ ৭ এপ্রিল ২০১৭ 
  2. "Maniche has final say against Oranje"। UEFA.com। ১ জুলাই ২০০৪। সংগ্রহের তারিখ ৭ এপ্রিল ২০১৭ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

টেমপ্লেট:উয়েফা ইউরো ২০০৪ পর্তুগাল দল টেমপ্লেট:২০০৬ ফিফা বিশ্বকাপ পর্তুগাল দল