মাগুরা সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
মাগুরা সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়
অবস্থান

৭৬০০

তথ্য
বিদ্যালয়ের ধরনসরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়
প্রতিষ্ঠিত১৯০৩
প্রতিষ্ঠাতামোঃ ছাবের আলী মুন্সী ও বাবু নিবারণ চন্দ্র চক্রবর্তী
অবস্থাসক্রিয়
বিদ্যালয় বোর্ডযশোর শিক্ষা বোর্ড
সেশনজানুয়ারি - ডিসেম্বর
প্রধান শিক্ষকলিপিকা সরকার
শিক্ষকমণ্ডলী৪২
লিঙ্গবালিকা
শিক্ষার্থী সংখ্যা১২৮০ জন
শ্রেণী৬-১০
ভাষাবাংলা
সময়সূচির ধরনসকাল ৭টা- দুপুর ১২ টা (প্রভাতী) এবং দুপুর ১২:৩০ - বিকাল ৫:২৫ (দিবা)
সময়সূচিপ্রভাতী, দিবা
বিদ্যালয়ের কার্যসময়৫ ঘণ্টা
শ্রেণীকক্ষ১৬ টি
ক্যাম্পাসশহুরে
আয়তন১. ৭৫ একর
ক্যাম্পাসের ধরনঅনাবাসিক
ডাকনামগার্লস স্কুল

মাগুরা সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় বাংলাদেশের মাগুরা জেলার একটি মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

মাগুরা জেলার প্রথম শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হিসেবে মাগুরা ইংরেজি উচ্চ বিদ্যালয় (বর্তমান মাগুরা সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়) ১৮৫৪ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়। যেখানে আলাদাভাবে লিঙ্গ নির্ধারণ করা হয়নি। এতদ্ব্যতীত নারীদের জন্য আলাদা একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের তাগিদ থেকে ১৯০৩ সালে বিদ্যালয়ের অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা বাবু নিবারণ চন্দ্র চক্রবতীর স্ত্রীর নামানুসারে মহালাকসি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় নামে প্রতিষ্ঠিত হয়।১৯৪৮ সালে বিদ্যালয়টি মধ্য ইংরেজি (এম, ই) স্কুলে এবং ১৯৫৪ সালে পূর্ণাঙ্গ উচ্চ বিদ্যালয়ে উন্নীত হয়ে মাগুরা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় নামে নামাকৃত হয়। ১৯৭০ সালে বিদ্যালয়টি সরকারিকরণ করা হয় তখন হতে এটির নামকরণ করা হয় মাগুরা সরকারি উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়।[১]

অবকাঠামো[সম্পাদনা]

১.৭৫ একর জমির উপর ২২ কক্ষ বিশিষ্ট দ্বিতল ভবন ও প্রধান শিক্ষয়িত্রীর একতলা বাস ভবন নিয়ে বিদ্যালটির অবস্থান। মোট শ্রেণিকক্ষ রয়েছে ১৬টি।এছাড়া,অফিস কক্ষ রয়েছে ৩টি, গবেষণাগার ২টি, লাইব্রেরি ১টি, মসজিদ ১টি, খেলার মাঠ ১টি এবং পুকুর রয়েছে ১টি।

শিক্ষা কার্যক্রম[সম্পাদনা]

বর্তমানে স্কুলে ছাত্রীসংখ্যা প্রায় ১২৮০ এবং শিক্ষক-শিক্ষিকার সংখ্যা ৪২। ষষ্ঠ শ্রেণি থেকে দশম শ্রেণি পর্যন্ত মোট ৫টি শ্রেণিতে শাখা রয়েছে ১০টি। নবম ও দশম শ্রেণিতে চালু আছে বিজ্ঞান , মানবিক ও ব্যবসায় শিক্ষা শাখা।

সহ-শিক্ষা কার্যক্রম[সম্পাদনা]

বিতর্ক,[২] বিজ্ঞান মেলা, সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা, রেডক্রিসেন্ট, স্কাউট প্রোগ্রামে অংশগ্রহণ করে স্কুলটি সুনাম অর্জন করেছে। এছাড়া ২০১২ সাল থেকে অন্বেষা নামে একটি নিয়মিত সাহিত্য বার্ষিকী প্রকাশ করে আসছে।

অবদান[সম্পাদনা]

বিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠা থেকেই নারি শিক্ষার প্রসারের কাজ করে চলছে। পাবলিক পরীক্ষায় এটি বরাবরই জেলা পর্যায়ে ১ম অথবা ২য় স্থান অধিকার করে আসছে।[৩]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. http://www.maguragovtgirlshighschool.jessoreboard.gov.bd
  2. "বিতর্কে চ্যাম্পিয়ন মাগুরা সরকারি বালিকা বিদ্যালয়"। দৈনিক সূবর্ণভূমি.কম। ১৪ এপ্রিল ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ৯, ২০১৬ 
  3. "মাগুরা সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের এসএসসিতে জিপিএ৫ প্রাপ্তদের সংবর্ধনা"। দৈনিক মাগুরা নিউজ.কম। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ২৭, ২০১৫ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]