মধ্যযুগীয় স্পেন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
স্পেনের ইতিহাস
ধারাবাহিকের একটি অংশ
স্পেনের কোট অফ আর্মস
কালপঞ্জী
প্রবেশদ্বার আইকন স্পেন প্রবেশদ্বার

টেমপ্লেট:Expand Spanish অনেকভাবে স্পেনের ইতিহাস স্মরণীয় হয়ে আছে। দখলকারী শাসকেরা তাঁদের বিলুপ্ত হয়ে যাওয়া সংস্কৃতিকে এ উপত্যকায় ফিরিয়ে এনেছেন। ৪০৮ সালে হিস্পানিয়ার ভূমধ্যসাগরীয় উপকূলভূমিতে ভ্যান্ডালসঅ্যালানস অবতরণ করলে মধ্যযুগীয় স্পেনের ইতিহাসের দিগন্ত উন্মোচিত হয়। আইবেরীয় রাজতন্ত্র আরিয়ানিস্ত ভিসিগোথস তাঁদের রাজা রেকার্ডকে ৫৮৭ সালে ক্যাথলিক ধর্মে দীক্ষিত করেন। অভিবাসনের যুগে স্পেনে ভিনিগোথিক সংস্কৃতি দেখা যায়।

৭১১ সাল থেকে আফ্রিকার উত্তরাংশে মুসলিম রাজবংশ ইউরোপে প্রবেশ করে। ফলশ্রুতিতে মুসলিম বনাম খ্রিস্টানদের মধ্যকার যুদ্ধের স্ফুলিঙ্গ ছড়ায় যা রেকনকুইস্তা বা রেকনকুইস্ত নামে পরিচিতি পায়। জিব্রাল্টার প্রণালী দিয়ে তাঁরা প্রবেশ করেছিল। প্রায় ১০ বছরে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে থাকা আধুনিককালের পর্তুগালস্পেন থেকে ফ্রান্সের দক্ষিণাংশ থেকে সৈনিকেরা তাঁদের সাথে যোগ দেয়। মুসলিমখ্রিস্টানদের মধ্যকার এ সীমান্ত ৭০০ বছরের যুদ্ধে দক্ষিণ মুখে অগ্রসর হয়েছিল। এরফলে এ উপত্যকাটি সামরিক স্থানের পরিচয় পেয়েছে। তাস্বত্ত্বেও খ্রিস্টানরা মুসলিমদের রাজত্বে এবং মুসলিমরা খ্রিস্টানদের রাজত্বে শান্তিপূর্ণভাবে সহাবস্থান করে আসছে। কিন্তু সন্ত্রাসী কার্যক্রম প্রায়শঃই সংঘটিত হয়েছিল। এরসাথে অবশ্য সম্পদের বিষয়টিও জড়িত রয়েছে।[১] ইহুদিরাও অবশ্য উভয় রাজত্বেই বসবাস করতো। তাস্বত্ত্বেও গোত্র থেকে ধর্ম পৃথক ছিল; সকল ধর্মের লোকেরাই অন্য ধর্মে বিশ্বাস স্থাপন করে ধর্মান্তরিত হবার অধিকার ভোগ করতো। প্রত্যেক রাজত্বেই অন্য ধর্মের প্রতি শ্রদ্ধাশীল থেকে আইন প্রণয়ন করতো। তিন ধর্মের বিশ্বাসীদের নাগরিকত্বের স্তরে ভিন্নতা রেখে পৃথক নিয়ম-কানুন প্রবর্তন করে। তন্মধ্যে দশম আলফন্সো'র সাইতে পার্তিদাসে বর্ণিত বক্তব্য প্রণিধানযোগ্য। তিনি বলেছিলেন, 'কোন খ্রিস্টান পুরুষ বা মহিলাকে ইহুদি বা ইহুদিকে খ্রিস্টান ধর্মে আমন্ত্রিত হবার জন্য ক্ষমাপ্রার্থী। খাবার বা পানীয় গ্রহণ কিংবা তাঁদের হস্তে তৈরি যে-কোন ধরনের মদপান করতেও নিরস্ত করি।'[২] এ ধারাটি বিরূপ প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি করতে পারে এ সম্ভাবনায় অন্যান্য ধর্মাবলম্বীদের কাছে গোপন রাখা হয়। এছাড়াও নিষিদ্ধ খাবার গ্রহণ করা থেকে বিরত থাকার কথাও এতে বলা হয়েছে যদিও তা ইহুদিদের কাছে স্বতঃসিদ্ধ।

হিস্পানিয়ায় বিস্তৃত সাংস্কৃতিক বিভাজন লক্ষ্য করা যায়। মধ্যযুগীয় সময়কালে ইসলাম ও খ্রিস্টান সমাজে তা বিরাজমান ছিল।

মধ্যযুগীয় স্পেনে আদর্শগত নীতিবোধ ক্রুসেড নামে পরিচিত রিকনকুইস্তায় ছিল। এতে অঞ্চল গুলো একদা খ্রিস্টান ও ভিসিগোথিকদের করায়ত্ত ছিল। পরবর্তীকালে পুণঃদখল ও খ্রিস্টানজাত করা হয়েছিল। রড্রিগো ডায়াজ দ্য বিবর নামে পরিচিত ও পৌরাণিক সমতুল্য এল সিদ এ প্রচেষ্টায় নিজেকে সংশ্লিষ্ট করে প্রতীকী স্মরণীয় হয়ে আছেন।

মধ্যযুগীয় স্পেনীয় সংস্কৃতি[সম্পাদনা]

৭১১ সালের পূর্বে রোমান-পূর্ব যুগে প্রাচীন স্পেনীয় ভাষার সাথে স্পেনীয় ভাষার ইতিহাসের সূচনা ঘটে। লাতিন ভাষা থেকে উদ্ভূত অন্য হিস্পানিক ভাষার সাহিত্য হচ্ছে কাতালান ভাষা ও ক্ষুদ্রতম মানদণ্ডে ভ্যালেন্সীয়অস্ট্রীয় মধ্যযুগীয় স্পেনীয়, গ্যালিসিয়বাস্কু ভাষাগুলোর প্রচলন মূলতঃ মুখেমুখে ছিল।

মধ্যযুগীয় স্পেনে শহরগুলোসহ প্রদেশগুলোর সাথে আন্তঃযোগাযোগ ব্যবস্থা বিরাজমান ছিল। শহরগুলো সাংস্কৃতিক ও প্রশাসনিক কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত হয়। এছাড়াও বিশপ ও কখনোবা রাজাদের আসন ছিল এখানে। প্রধান নগরগুলোর মাধ্যমে খুব সহজেই মধ্যযুগীয় স্পেনের ইতিহাস খুব সহজেই জানা সম্ভব।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. (Nirenburg, Communities of Violence, 19)
  2. (Constable, Medieval Iberia, 272)

আরও পড়ুন[সম্পাদনা]

  • The Art of medieval Spain, A.D. 500-1200। New York: The Metropolitan Museum of Art। ১৯৯৩। আইএসবিএন 0870996851 
  • Linehan, Peter (১৯৯৩)। History and the Historians of Medieval Spain। Oxford, UK: Clarendon Press। আইএসবিএন 9780198219453 
  • O'Callaghan, Joseph F. (১৯৭৫)। A History of Medieval Spain। Ithaca, NY: Cornell University Press। আইএসবিএন 9780801492648 

টেমপ্লেট:Middle Ages by region টেমপ্লেট:Middle Ages