ভেনিসা হাডজেন্স

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ভেনিসা হাডজেন্স
Vanessa Hudgens 13, 2012 crop.jpg
জন্ম
ভেনিসা অ্যানা হাডজেন্স

(1988-12-14) ডিসেম্বর ১৪, ১৯৮৮ (বয়স ৩০)
স্যালিনাস, ক্যালিফোর্নিয়া, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
জাতীয়তাআমেরিকান
জাতিসত্তাআমেরিকান
পেশাঅভিনেত্রী, রেকর্ডিং শিল্পী
কার্যকাল২০০২-বর্তমান
সঙ্গীত কর্মজীবন
ধরনপপ, নৃত্য,[১] আর এ্যান্ড বি
বাদ্যযন্ত্রসমূহকন্ঠ
লেবেলহলিউড
ওয়েবসাইটvanessahudgens.tumblr.com

ভেনিসা অ্যানা হাডজেন্স (ইংরেজি: Vanessa Anne Hudgens) (জন্ম: ডিসেম্বর ১৪, ১৯৮৮) একজন মার্কিন অভিনেত্রী এবং গায়িকা। তিনি হাই স্কুল মিউজিকাল ধারাবাহিক গ্যাব্রিয়েলা মনটেজ বাজিয়ে অভিক্ষিপ্তাবস্থায় বেড়ে উঠেছেন।[২] তিনি ডিজনি চ্যানেলের জন্যে বিভিন্ন চলচ্চিত্র এবং টেলিভিশন ধারাবাহিকে উপস্থিত হয়েছেন। ২০০৩ সালে পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র থার্টিন-এর মাধ্যমে তার আত্মপ্রকাশ ঘটে। এটি একটি কিশোর নাট্য যেখানে হাডজেন্স একটি পার্শ্ব চরিত্রে অভিনয় করেন। হাই স্কুল মিউজিক্যাল ট্রিলজি মুক্তির পর তিনি মূলধারার সাফল্য অর্জন করেন, এবং সহ-অভিনেতা জাক এফরনের সঙ্গে তার সম্পর্ক ব্যাপকভাবে প্রচারিত হয়। ধারাবাহিকে উপস্থিতি তাকে পরিবারের নাম তৈরি করতে সাহায্য করেছে। চলচ্চিত্রের গান সবসময়ই বিশ্বব্যাপী তালিকাভুক্ত ছিলো। তার "ব্রেকিং ফ্রি" গান বিলবোর্ড হট ১০০-এর সেরা ১০ তালিকায় অন্তর্ভুক্ত হয়। হাডজেন্সের আত্মপ্রকাশ অ্যালবাম ভি মুক্তি পায় সেপ্টেম্বর ২৬, ২০০৬ সালে, বিলবোর্ড ২০০ তালিকায় যার অবস্থান ছিলো ২৪ নম্বরে এবং পরবর্তীতে গোল্ড প্রত্যয়িত হয়।[৩] তার দ্বিতীয় অ্যালবাম, আইডেন্টফিাইড, জুলাই ১, ২০০৮ সালে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে মুক্তি পায়।[৪]

তার অ্যালবাম হাই স্কুল মিউজিকাল মুক্তির পর থেকে হাডজেন্স অভিনয়ের উপর জোড় দেন। ২০০৯ সালে, তিনি ব্যান্ডস্লাম চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্যে সমালোচকদের প্রশংসা অর্জন করেছেন।[৫] তিনি ডোয়াইন জনসন এবং জোশ হাচারসনের পাশাপাশি জার্নি ২: দি মিস্ট্রিরিয়াস আইল্যান্ড চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন। এরপর সেলিনা গোমেজের সাথে অভিনয় করেন স্প্রিং ব্রেকার্স (২০১৩) চলচ্চিত্রে। এছাড়াও তিনি রবার্ট রদ্রিগেজ পরিচালিত ম্যাচেট কিলস চলচ্চিত্রে কাজ করেন।

প্রাথমিক জীবন[সম্পাদনা]

হাডজেন্স স্যালিনাস, ক্যালিফোর্নিয়া এলাকায় জন্ম নেন, এবং ওরেগন থেকে সাউদার্ন ক্যালিফোর্নিয়ায় ওয়েস্ট কোস্টে বাবা-মায়ের সঙ্গে বাস করেন। তার মা, জিনা (née Guangco), উত্তরাধিকারসূত্রে একটি অফিসে কাজ করেন, এবং তার বাবা, গ্রেগরি হাডজেন্স, একজন দমকলকর্মী ছিলেন।[৬][৭] তার একটি ছোট বোন রয়েছে, স্টেলা হাডজেন্স, তিনিও একজন অভিনেত্রী।[৮] ছেলেবেলা থেকে তিনি একজন রোমান ক্যাথলিক হিসেবে বেড়ে উঠেন।[৯] তার বাবা, একজন আইরিশ এবং নেটিভ আমেরিকান বংশদ্ভুত, এবং মা একজন ম্যানিলা, ফিলিপাইনীয়, অথ্যাৎ ফিলিপিনো চীনা-স্প্যানিশ বংশদ্ভুত।[৭][১০][১১] তার দাদী-নানীরা সকলেই সঙ্গীত বিষয়ে জ্ঞ্যাত ছিলেন।[১২]

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

২০১২–বর্তমান: অব্যাহত অভিনয় ও সাফল্য[সম্পাদনা]

২০১২ সালে ৩৮তম পিপলস চয়েস অ্যাওয়ার্ডস অনুষ্ঠানে হাডজেন্স

অক্টোবর ২০১০ সালে, হাডজেন্স জার্নি ২: দি মিস্ট্রিরিয়াস আইল্যান্ড চলচ্চিত্রে ডোয়াইন জনসন এবং জোশ হাচারসনের পাশাপাশি অভিনয় করেন। এটি ২০০৮ সালের জার্নি টু দ্য অব দি আর্থ চলচ্চিত্রের ধারাবাহিক অংশ।[১৩] জার্নি ২: দি মিস্ট্রিরিয়াস আইল্যান্ড উত্তর আমেরিকায় $১০৩,৮৩৬,১৪৭ এবং অন্যান্য দেশে $২২২,০০০,০০০, বিশ্বব্যাপী মোট $৩২৫,৮৬০,২৯০ উপার্জন করে।[১৪] যা দেশীয় এবং বিশ্বব্যাপী উভয় আয়ে এর আগের চলচ্চিত্র অতিক্রান্ত করেছে।[১৫][১৬] উত্তর আমেরিকায়, এই চলচ্চিত্র মুক্তির প্রথম শুক্রবারে $৬.৫৪ মিলিয়ন আয় করে, এবং বক্স অফিসে চতুর্থ স্থানে অবস্থান নেয়।[১৭] সপ্তাহান্তে এই উপার্জন দাঁড়ায় $২৭.৩ মিলিয়নে এবং চলচ্চিত্রটি তৃতীয় স্থানে এগিয়ে যায়। যা মূল $২১.০ মিলিয়ন আত্মপ্রকাশের চেয়ে বেশী ছিল।[১৮] জার্নি ২: দি মিস্ট্রিরিয়াস আইল্যান্ড সমালোচকদের কাছ থেকে সাধারণ নেতিবাচক সমালোচনা পেয়েছে। এটি রটেন টম্যাটোসের ১১৯টি রিভিউ এবং ৫/১০ গড় রেটিংয়ের উপর ভিত্তি করে ৪২% "রটেন" রেটিং অর্জন করে। এই ওয়েবসাইটের ঐকমত্য হলো: "আগ্রাসী অনুচ্চাশী, জার্নি ২ কিশোর দর্শকদের রোমাঞ্চিত করতে পারে, কিন্তু অধিকাংশই ভাবেন এটি তরুণ শ্রোতাদের জন্যে খুব তীব্র এবং প্রাপ্তবয়স্কদের জন্য খুব ব্যঙ্গাত্মক চলচ্চিত্র।"[১৯] মেটাক্রিটিক, যেখানে ভরযুক্ত গড় স্কোর নির্ধারণ করে চলচ্চিত্র সমালোচক কর্তৃক পাওয়া ১-১০০ রিভিউর উপর ভিত্তি করে ২৭টি রিভিউ এবং ৪১টি রেটিং স্কোর রয়েছে।[২০]

নভেম্বর ২০১১ সালে, হাডজেন্স তার অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে ঘোষণা করেন যে তিনি সেলিনা গোমেজ এবং জেমস ফ্রাঙ্কোর সাথে অভিনয় করছেন স্প্রিং ব্রেকার্স চলচ্চিত্রে।[২১] চলচ্চিত্রটি চার কলেজ-বয়সী তরুণীকে কেন্দ্র করে, যেখানে তারা তাদের বসন্ত অবকাশের অর্থ যোগাড় করার জন্য একটি ফাস্টফুড রেস্তোরাঁ ডাকাতি করার সিদ্ধান্ত নেয়।[২২] এটি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পায় মার্চ ২০১৩ সালে,[২৩] এবং সাধারণত ইতিবাচক সমালোচনা অর্জন করে।[২৪][২৫] চলচ্চিত্রে পরিপক্ক থিম, যেমন মাদক ব্যবহার, উসৃঙ্খল যৌনাচার, এবং সহিংস্রতা তুলে ধরা হয়েছে।[২৬][২৭][২৮] এই চলচ্চিত্রের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে, হাডজেন্স পরবর্তীকালে ডাবস্টেপ অনুপ্রেরিত গান "$$$এক্স" মুক্তি দেন,[২৯] যেটির সঙ্গীত ভিডিও এই চলচ্চিত্রের ক্লিপ ব্যবহার করে তৈরি করা হয়েছে।[৩০] গানটি ওয়াইএলএ থেকে অতিথি শিল্পী বৈশিষ্টায়িত করেছে, এবং যা রক মাফিয়া কর্তৃক প্রযোজিত হয়েছে।[৩১]

এপ্রিল ২০১১ সালে, এক প্রতিবেদনে জানা যায় তিনি রন ক্রাউস রচিত এবং পরিচালিত গিমি শেল্টার চলচ্চিত্রে ব্র্যান্ডন ফ্রাসারের সঙ্গে অভিনয় করছেন।[৩২] হাডজেন্স এছাড়াও সিন্ডি পলসন চরিত্রে দ্য ফ্রোজেন গ্রাউন্ড চলচ্চিত্রে উপস্থিত হয়েছেন, যেটি রবার্ট হ্যানসেন মামলার উপর ভিত্তি করে নির্মিত হয়েছে। চলচ্চিত্রে তিনি জন কুসেক এবং নিকোলাস কেজের সঙ্গে অভিনয় করেন।[৩৩]

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

হাডজেন্স এবং জোশ হাচারসন, জানুয়ারি ২০১২ সালে

হাডজেন্স হাই স্কুল মিউজিক্যালের সহ-তারকা জাক এফরনের সঙ্গে সম্পর্কে শুরু করেন ২০০৫ সালে। পরবর্তীকালে প্রচারমাধ্যমের নিয়মিত লক্ষ্য হয়ে ওঠেন তারা, এবং বিবিসি হাডজেন্সকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে "হাউসহোল্ড নেম" বলে পূর্বাভাস ব্যাক্ত করে।[৩৪] ডিসেম্বর ২০১০ সালে, হঠাৎ তাদের সম্পর্কের পরিণতি ঘটে।[৩৫][৩৬] হাডজেন্স অভিনেত্রী অ্যাশলে তিসডেলের খুব ঘনিষ্ঠ বন্ধু, যার সঙ্গে তিনি হাই স্কুল মিউজিক্যাল চলচ্চিত্রে অভিনয়ের সময় পরিচিত হন।[৩৭]

চিত্র কেলেঙ্কারি ফাঁস[সম্পাদনা]

সেপ্টেম্বর ৬, ২০০৭ সালে হাডজেন্সের কিছু আলোকচিত্র অনলাইনে চলে আসে, যার একটিতে ল্যানজারি অঙ্গবিন্যাস রয়েছে এবং অন্যটিতে তার নগ্নতা প্রদর্শিত হয়েছে। তার প্রচারবিদের কাছ থেকে একটি বিবৃতিতে জানা যায় চিত্রসমূহ ব্যক্তিগতভাবে গ্রহণ করা হয়েছিলো এবং সেগুলো ইন্টারনেটে মুক্তি পাওয়া দুঃখজনক ছিলো বলে তিনি দাবি করেন। হাডজেন্স পরবর্তীকালে এ বিষয়ে ক্ষমা চেয়ে বলেন, তিনি এই "পরিস্থিতির উপর বিব্রত" এবং "[ঐসব] চিত্র গ্রহণের" বিষয়ে তিনি আফসোস প্রকাশ করেন।[৩৮] হাডজেন্স পরবর্তীকালে এই কেলেঙ্কারি সম্পর্কে মন্তব্য করতে গিয়ে তা অস্বীকার করে একটি বিবৃতি প্রকাশ করেন।[৩৯] ওকে! ঠিক আছে! পত্রিকা অনুমান করে এই চিত্রের ফলে তিনিহাই স্কুল মিউজিক্যাল ৩ থেকে বাদ পড়বেন বলে সন্দেহ।[৪০] কিন্তু দ্য ওয়াল্ট ডিজনি কোম্পানি এটা অস্বীকার করে, বলে, "ভেনিসা স্পষ্টত তার জন্যে দুঃখ প্রকাশ করেছেন। আমরা আশা করি তিনি এ থেকে মূল্যবান পাঠ শিখেছেন।"[৪১][৪২][৪৩]

আগস্ট ২০০৯ সালে, হাডজেন্সের আরও কিছু অনাবৃতপ্রায় চিত্রাবলি ইন্টারনেটে প্রকাশিত হয়। এ বিষয়ে তার প্রতিনিধিদের কোনো মন্তব্য পাওয়া যায় নি, যদিও তার আইনজীবীরা ইন্টারনেট থেকে ছবি অপসারণের অনুরোধ জানিয়েছিলেন।[৪৪][৪৫] ২০০৯-এর শেষে, হাডজেন্স "www.moejackson.com"-এর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন একটি ব্যক্তিগত বাড়িতে মোবাইল ফোনে গৃহিত তার নগ্ন "আত্ম-প্রতিকৃতি অলোকচিত্র" পোস্টিংয়ের জন্যে।[৪৬] হাডজেন্স পরবর্তীকালে, অলিউর পত্রিকার অক্টোবর সংখ্যায় তার কর্মজীবনে এই ছবির প্রভাব বিষয়ে মন্তব্য করেন, "যখনই কেউ আমাকে জিজ্ঞেস করেন, আমি কী চলচ্চিত্রে নগ্নতা প্রকাশ করতে চাই কিনা, যদি বলি আমি এর সাথে স্বাচ্ছন্দ্য নই। তারা বলেন, 'বুলশিট, ইতোমধ্যেইতো করেছেন।' এটা আরও লজ্জাজনক করে তোলে, কারণ ওগুলো একটি ব্যক্তিগত বিষয় ছিল। এটা মাতলামি, যে কেউই আমার মতো মাতাল হতে পারেন। অন্তত কিছু লোক আমার ভুল থেকে শেখার সুযোগ পাবেন।"[৪৭] ইউএস সাপ্তাহিকের, মতে, আরও কিছু আলোকচিত্র মার্চ ১৫, ২০১১ সালে ইন্টারনেটে মুক্তি পায়।[৪৮]

পাবলিক ইমেজ[সম্পাদনা]

হাডজেন্স, জানুয়ারি ২০১২ সালে সিডনি বন্ডি সৈকতে

হাডজেন্স মূলত উইলিয়াম মরিস এজেন্সির প্রতিনিধিত্ব করেন,[৪৯] কিন্তু ২০১১ সালে, ক্রিয়েটিভ আর্টিস্ট এজেন্সির সঙ্গে চুক্তি স্বাক্ষর করেন তিনি।[৫০] ২০০৬ সালে, হাডজেন্সের উপার্জন $২  মিলিয়ন অনুমান করা হয়।[৫১] হাডজেন্স প্রথম দিকে ২০০৭ সালে ফোর্বস ধনী তালিকায় অন্তর্ভুক্ত হয়েছিলেন, এবং ফোর্বস প্রবন্ধে তিনি ইয়ং হলিউডস টপ আর্নিং-স্টারস তালিকায় শীর্ষ রোজগারকারী হিসেবে বিবেচিত হন।[৫২] ডিসেম্বর ১২, ২০০৮ সালে, হাডজেন্স ফোর্বস পত্রিকার "৩০ অনুর্ধ শীর্ষ উপার্জনকারী" তালিকায় #২০তম স্থানে অর্ন্তভূক্ত হন, এবং ২০০৮ সালে তার আনুমানিক $৩ মিলিয়ন উপার্জন রয়েছে বলে জানা যায়।[৫৩][৫৪] তিনি ২০০৮ সালে এফএইচএম পত্রিকার বিশ্বের যৌনাবেদনময়ী নারী তালিকায় ৬২ নম্বরে ছিলেন এবং ২০০৯ সালে ৪২ নম্বরে ছিলেন।[৫৫][৫৬] হাডজেন্স এছাড়াও ম্যাক্সিম তালিকায় অর্ন্তভূক্ত হয়েছেন।[৫৭] তিনি পিপল ম্যাগাজিনের ২০০৮ ও ২০০৯ বার্ষিক "১০০ সর্বাপেক্ষা সুন্দর ব্যক্তি" তালিকায়ও অর্ন্তভূক্ত হয়েছেন।[৫৮][৫৯]

হাডজেন্স নিউট্রোজিনার প্রচারণা করেন[৬০] এবং ২০০৮ সালের সিয়ার্স' ব্যাক-টু স্কুল প্রচারাভিযানের তারকা হিসেবে উপস্থিত হয়েছিলেন।[৬১]

চলচ্চিত্রতালিকা[সম্পাদনা]

চলচ্চিত্র
বছর শিরোনাম চরিত্র টীকা
২০০৩ থার্টিন নয়েল
২০০৪ থান্ডারবার্ডস্ টিনটিন প্রধান চরিত্র
২০০৬ হাই স্কুল মিউজিক্যাল গ্যাব্রিয়েলা মনটেজ ডিজনি চ্যানেল অরিজিনাল মুভি
২০০৭ হাই স্কুল মিউজিক্যাল ২ ডিজনি চ্যানেল অরিজিনাল মুভি
২০০৮ হাই স্কুল মিউজিক্যাল ৩: সিনিয়র ইয়ার প্রধান চরিত্র
২০০৯ ব্যান্ডস্লাম Sa5m
২০১১ বিস্টলি লিন্ডি টেলর
সাকার পাঞ্চ ব্লন্ডি
২০১২ জার্নি ২: দ্য মিস্ট্রিরিয়াস আইল্যান্ড ক্যাইলানি
স্প্রিং ব্রেকার্স ক্যান্ডি
২০১৩ দ্য ফ্রজেন গ্রাউন্ড সিন্ডি পলসন
ম্যাচেত কিলস্ সেরেযা ডেসডিমোনা
গিম্মি শেল্টার এগনেস "অ্যাপল" বেইলি পোস্ট-প্রোডাকশন
২০১৫ কিচেন সিংক পোস্ট-প্রোডাকশন
টেলিভিশন
বছর শিরোনাম চরিত্র টীকা
২০০2 স্টিল স্ট্যান্ডিং টিফানি পর্ব: "স্টিল রকিং"
রবারি হোমিসাইড ডিভিশন নিকোল পর্ব: "হ্যাড"
২০০৩ দ্য ব্রাদার্স গার্সয়া লিন্ডসে পর্ব: "নিউ টিউনস্"
২০০৫ কুইন্টাপলেটস্ কারমেন পর্ব: "দ্য কোকোনাট ক্যাসপো"
২০০৬ ডার্ক এ্যন্ড জোশ বেরেকা পর্ব: "লিটল সিবলিঙ্গ"
দ্য সুইট লাইফ অব জ্যাক এ্যন্ড কডি করি ৪ পর্ব
২০০৯ রবার্ট চিকেন লারা লর-ভন / বাটারবিয়ার / ইরিন ইসুরেন্স পর্ব: "ইস্পেসিয়ালি দ্য এ্যনিমেল কেইথ ক্রোফোর্ড"
২০১২ পাঙ্ক'ড স্ব-ভূমিকায় পর্ব: "লুসি হ্যেল"
২০১৩ ইনার সার্কেল স্ব-ভূমিকায় ই! টেলিভিশন স্পেলাল
থিয়েটার
বছর শিরোনাম চরিত্র টীকা
২০১০ রেন্ট মিমি মার্কুয়েজ হলিউড বোল এ সঞ্চালিত[৬২]

ডিস্কোগ্রাফি[সম্পাদনা]

ভ্রমণ[সম্পাদনা]

পুরস্কার ও স্বীকৃতি[সম্পাদনা]

বছর পুরস্কার বিভাগ ফল
২০০৬ ইমেজেন ফাউন্ডেশন অ্যাওয়ার্ডস "শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী – টেলিভিশন"[৬৩] মনোনীত
টিন চয়েস অ্যাওয়ার্ডস "চয়েস টিভি কেমিস্ট্রি" (shared with Zac Efron)[৬৪] বিজয়ী
টিন চয়েস অ্যাওয়ার্ডস "চয়েস টিভি ব্রেকআউট স্টার"[৬৪] মনোনীত
২০০৭ টিন চয়েস অ্যাওয়ার্ডস "চয়েস মিউজিক: Breakout Artist – Female"[৬৫] বিজয়ী
ইয়াং আর্টিস্ট অ্যাওয়ার্ডস Best Performance in a TV Movie, Miniseries, or Special (Comedy or Drama) – Leading Young Actress[৬৬] মনোনীত
২০০৮ টিন চয়েস অ্যাওয়ার্ডস "Choice Hottie"[৬৭] বিজয়ী
২০০৯ কিডস্ চয়েস অ্যাওয়ার্ডস "Favorite Movie Actress"[৬৮] বিজয়ী
এমটিভি মুভি অ্যাওয়ার্ডস "Breakthrough Female Performance" মনোনীত
এমটিভি মুভি অ্যাওয়ার্ডস "Best Kiss" (shared with Zac Efron) মনোনীত
টিন চয়েস অ্যাওয়ার্ডস "চয়েস চলচ্চিত্র অভিনেত্রী: সঙ্গীত/নৃত্য"[৬৯] মনোনীত
টিন চয়েস অ্যাওয়ার্ডস "চয়েস চলচ্চিত্র: Liplock" (shared with Zac Efron)[৬৯] মনোনীত
টিন চয়েস অ্যাওয়ার্ডস "চয়েস হট্টি"[৬৯] মনোনীত
২০১০ ShoWest "Female Star Of Tomorrow"[৭০] বিজয়ী
২০১১ পিপল'স চয়েস অ্যাওয়ার্ডস "Favorite Movie Star Under 25"[৭১] মনোনীত
টিন চয়েস অ্যাওয়ার্ডস "Red Carpet Fashion Icon - Female" মনোনীত
টিন চয়েস অ্যাওয়ার্ডস "চয়েস চলচ্চিত্র: Liplock" (shared with Alex Pettyfer) মনোনীত
২০১২ টিন চয়েস অ্যাওয়ার্ডস "চয়েস চলচ্চিত্র অভিনেত্রী: Sci-Fi/Fantasy" মনোনীত
২০১৩ কিডস্ চয়েস অ্যাওয়ার্ডস "Favorite Movie Actress"[৭২] মনোনীত

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Heather Phares। "Vanessa Hudgens — Biography"। www.allmusic.com। সংগ্রহের তারিখ মে ১৬, ২০১১ 
  2. Vanessa Hudgens Biography Allmusic
  3. Hasty, Katie (অক্টোবর ৪, ২০০৬)। "Ludacris Scores Third No. 1 With 'Release Therapy'"BillboardNielsen Business Media, Inc.। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ২৪, ২০০৮ 
  4. "Vanessa Hudgens"Los Angeles Times। Los Angeles Times। জুলাই ১, ২০০৮। সংগ্রহের তারিখ মে ৫, ২০১২ 
  5. Lisa Shwarzbaum (আগস্ট ১২, ২০০৯)। "Bandslam"Entertainment Weekly। সংগ্রহের তারিখ মে ৩, ২০১২ 
  6. "Vanessa Hudgens Biography" Yahoo! Accessed 2011-06-20.
  7. Ruben V. Nepales (আগস্ট ৯, ২০০৭)। "Vanessa Hudgens: 'I love being a Filipina '"Philippine Daily Inquirer। ১৫ নভেম্বর ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ৮, ২০১৩ 
  8. "Hollywood Actress Vanessa Hudgens Profile"The Hollywood Actress Portal। ২০০৯। সংগ্রহের তারিখ সেপ্টেম্বর ১৭, ২০১১ 
  9. "Vanessa Hudgens: 'My young fans have put me off having kids!'"The Daily Mirror। আগস্ট ২, ২০০৯। সংগ্রহের তারিখ আগস্ট ২২, ২০০৯ 
  10. Lynn Barker (মে ১৭, ২০০৬)। "Interview: Zac Efron, Vanessa Anne Hudgens: High School Musical"। TeenHollywood। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ৬, ২০০৭ 
  11. http://news.google.com/newspapers?id=WNE8AAAAIBAJ&sjid=WC4MAAAAIBAJ&pg=5156,2937256&dq=meet-vanessa-hudgens&hl=en
  12. উদ্ধৃতি ত্রুটি: অবৈধ <ref> ট্যাগ; kidzworld নামের সূত্রের জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  13. Leins, Jeff (অক্টোবর ১৫, ২০১০)। "Vanessa Hudgens Joins 'Journey 2′"News in Film। ১৭ অক্টোবর ২০১০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ অক্টোবর ১৬, ২০১০ 
  14. "Journey 2: The Mysterious Island"। Boxofficemojo.com। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ২৪, ২০১৪ 
  15. "Jules Verne Showdown"। Boxofficemojo.com। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ২৪, ২০১৪ 
  16. Subers, Ray (এপ্রিল ১৮, ২০১২)। "Around-the-World Roundup: 'Journey 2' Wins Weak Weekend"। Box Office Mojo। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ২৭, ২০১২ 
  17. Subers, Ray (ফেব্রুয়ারি ১১, ২০১২)। "Friday Report: 'The Vow,' 'Safe House' Draw Huge Crowds"। Box Office Mojo। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ১৮, ২০১২ 
  18. Subers, Ray (ফেব্রুয়ারি ১২, ২০১২)। "Weekend Report: Moviegoers Say "I Do" to 'The Vow,' Check In to 'Safe House'"। Box Office Mojo। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ১৮, ২০১২ 
  19. "Journey 2: The Mysterious Island"। Rotten Tomatoes। সংগ্রহের তারিখ ফেব্রুয়ারি ২২, ২০১২ 
  20. "Journey 2: The Mysterious Island Reviews, Ratings, Credits, and More at Metacritic"। Metacritic.com। সংগ্রহের তারিখ ফেব্রুয়ারি ২২, ২০১২ 
  21. "VANESSA SIGNS ONTO STAR IN "SPRING BREAKERS""। ৫ নভেম্বর ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৭ জুন ২০১৪ 
  22. "Rachel Korine (Yes, Harmony's Wife) Joins 'Spring Breakers'"The PlaylistIndiewire। নভেম্বর ৪, ২০১১। ২ জুলাই ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ৪, ২০১২ 
  23. Niki Cruz (ফেব্রুয়ারি ১৪, ২০১৩)। "'Spring Breakers' Gets An Early Release Date"। Inquisitr.com। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ২৪, ২০১৪ 
  24. "Spring Breakers"। Rotten Tomatoes। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ২৪, ২০১৪ 
  25. "Spring Breakers Reviews"। Metacritic। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ২৪, ২০১৪ 
  26. "Selena Gomez, Vanessa Hudgens, 'Spring Breakers' Role Draws Controversy, Rave Reviews | Video - ABC News"। Abcnews.go.com। মার্চ ২৫, ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ২৪, ২০১৪ 
  27. "WATCH: "Spring Breakers" Uncensored Trailer Shows Vanessa Hudgens Threesome"। Gossip Cop। ফেব্রুয়ারি ১, ২০১৩। ফেব্রুয়ারি ২, ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ২৪, ২০১৪ 
  28. "'Spring Breakers': Selena Gomez Stays Pure, Vanessa Hudgens Goes Wild (Film Preview)"। Billboard। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ২৪, ২০১৪ 
  29. Stone, Abbey (মার্চ ২৫, ২০১৩)। "Vanessa Hudgens' 'Spring Breakers'-Inspired Song "$$$ex" is a Hot Mess | Celebrity News"। Hollywood.com। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ২৪, ২০১৪ 
  30. "'Spring Breakers' star Vanessa Hudgens releases NSFW single "$$$ex""। Hypable.com। মার্চ ২৫, ২০১৩। ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ২৪, ২০১৪ 
  31. "'Can't you feel my hot sex?' Vanessa Hudgens' explicit new song - MusicFIX Blog"। Music.ninemsn.com.au। ১ ফেব্রুয়ারি ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ২৪, ২০১৪ 
  32. Rawden, Mack (এপ্রিল ৩০, ২০১১)। "Vanessa Hudgens Will Get Pregnant In Upcoming Indie Gimme Shelter"Cinemablend। সংগ্রহের তারিখ মে ১, ২০১১ 
  33. Fleming, Mike (সেপ্টেম্বর ১২, ২০১১)। "Toronto: Vanessa Hudgens Set For 'Frozen Ground'"Deadline। সংগ্রহের তারিখ সেপ্টেম্বর ১৮, ২০১১ 
  34. "UK debut for hit High School film"BBC UK। সেপ্টেম্বর ১১, ২০০৬। সংগ্রহের তারিখ সেপ্টেম্বর ২১, ২০০৯ 
  35. "Zanessa Split: Details about Zac Efron, Vanessa Hudgens, Miley Cyrus, and Rumer Willis?"। Allvoices.com। ১২ অক্টোবর ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ২৪, ২০১৪ 
  36. "Zac Efron and Vanessa Hudgens: It's Over!"। The Hollywood Gossip। ডিসেম্বর ১৩, ২০১০। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ২৪, ২০১৪ 
  37. https://celebrity.yahoo.com/blogs/celeb-news/secret-ashley-tisdale-vanessa-hudgens-friendship-205057625.html
  38. "Vanessa Hudgens 'Embarrassed,' Apologizes for Nude Photo"People। সেপ্টেম্বর ৮, ২০০৭। সংগ্রহের তারিখ সেপ্টেম্বর ৯, ২০০৮ 
  39. Silverman, Stephen (জানুয়ারি ৩, ২০০৮)। "Vanessa Hudgens Talks About Dealing with Her Nude Photo Scandal"People। সংগ্রহের তারিখ সেপ্টেম্বর ২০, ২০০৯ 
  40. "Curtains for Vanessa's High School Musical"OK!। অক্টোবর ৭, ২০০৭। ১৭ অক্টোবর ২০০৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ অক্টোবর ১৭, ২০০৭ 
  41. "'Musical' actress apologizes"। The Boston Globe। সেপ্টেম্বর ৮, ২০০৭। 
  42. Keating, Gina (সেপ্টেম্বর ৮, ২০০৭)। "Disney backs star after her apology for nude photo"। Reuters। সংগ্রহের তারিখ সেপ্টেম্বর ৮, ২০০৭ 
  43. "'Musical' star Hudgens not dumped by Disney"। MSNBC। নভেম্বর ১৭, ২০০৭। সংগ্রহের তারিখ ডিসেম্বর ২৩, ২০০৭ 
  44. Lara Martin (আগস্ট ৬, ২০০৯)। "'Hudgens 'facing second nude pic scandal'"Digital Spy। সংগ্রহের তারিখ আগস্ট ৭, ২০০৯ 
  45. Marc Malkin (আগস্ট ৫, ২০০৯)। "Hudgens: The Real Story on Latest Nude Pics"E!। সংগ্রহের তারিখ আগস্ট ৭, ২০০৯ 
  46. Jon Boon (ডিসেম্বর ২৪, ২০০৯)। "Vanessa Hudgens sues website for posting nude pic"। সংগ্রহের তারিখ ডিসেম্বর ২৪, ২০০৯ 
  47. "Vanessa Hudgens: Her Allure Photoshoot"Allure। সেপ্টেম্বর ২২, ২০০৯। সংগ্রহের তারিখ অক্টোবর ৩, ২০০৯ 
  48. "Vanessa Hudgens "Upset and Angered" by Nude Pics Leak"US Weekly। মার্চ ১৬, ২০১১। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ১৭, ২০১১ 
  49. Lewis, Hilary (অক্টোবর ২০, ২০০৮)। "William Morris's Latest Woe: Spike Lee"Business Insider। সংগ্রহের তারিখ সেপ্টেম্বর ২৮, ২০০৯ 
  50. Flemming, Mike (এপ্রিল ২৫, ২০১১)। "CAA Signs Vanessa Hudgens From WME"Deadline New York। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ২৬, ২০১১ 
  51. "Vanessa Hudgens"Richest Teen Stars। Comcast Entertainment। ২৩ জুলাই ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জুন ১৯, ২০১৩ 
  52. "Young Hollywood's Top-Earning Stars"Forbes। ফেব্রুয়ারি ২৬, ২০০৭। সংগ্রহের তারিখ জুন ১৩, ২০০৯ 
  53. "Beyonce Knowles tops list of richest young stars"Die Welt। ডিসেম্বর ৫, ২০০৮। সংগ্রহের তারিখ সেপ্টেম্বর ২১, ২০০৯ 
  54. "High Earners Under 30" আর্কাইভইজে আর্কাইভকৃত ১০ ডিসেম্বর ২০১২ তারিখে. (2008-12-12) Forbes. Retrieved 2008-12-13.
  55. List of 2008's sexiest women in the worldRetrieved 2008-07-11. ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ২০০৯-০৪-১৮ তারিখে
  56. "FHM Girls – The 100 Sexiest Women in the World"। Fhmonline.com। ৭ জুলাই ২০০৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ২৬, ২০১১ 
  57. Young Hot HollywoodRetrieved 2009-05-11. ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ২০০৯-০৫-১৫ তারিখে
  58. "World's Most Beautiful People"People। এপ্রিল ৩০, ২০০৮। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ২৩, ২০১১ 
  59. "Beauty at Every Age"People। মে ১১, ২০০৯। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ২৩, ২০১১ 
  60. "Neutrogena Signs Emerging New Talent to Represent the Brand"Zimbio। আগস্ট ২৭, ২০০৭। ২৫ নভেম্বর ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ সেপ্টেম্বর ৪, ২০০৯ 
  61. "Vanessa Hudgens Sears Commercial Peak"The Insider। মে ৮, ২০০৮। ৯ অক্টোবর ২০০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ সেপ্টেম্বর ৪, ২০০৯ 
  62. "Vanessa Hudgens to Star in 'RENT'"The Celebrity Cafe। এপ্রিল ৯, ২০১০। ১৩ আগস্ট ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ৯, ২০১০ 
  63. 21st Annual Imagen Awards Finalists ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ১২ আগস্ট ২০০৯ তারিখে (2006). Accessed 2008-09-24.
  64. Stephen M. Silverman (2006-08-21). Nick, Jessica Dodge Run-In at Teen Awards. People. Accessed 2008-09-23.
  65. Jennifer McDonnell (2007-07-31). 2007 Teen Choice Awards Winners ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ১২ মে ২০১৪ তারিখে. Montreal Gazette. Accessed 2008-09-23.
  66. 28th Annual Young Artist Awards – Nominations. Young Artist Foundation. 2007-03-10. Accessed 2009-06-13.
  67. 2008 Teen Choice Awards winners and nominees. Teen Choice Awards 2008. 2008-06-17. Accessed 2009-09-06.
  68. Nickelodeon Kids' Choice Awards 2009. ScoopIndependent News. 2009-03-30. Retrieved 2011-05-20.
  69. "2009 Teen Choice Awards Nominees & Voting! (Full List)"Backseatcuddler.com। জুন ১৬, ২০০৯। ৪ অক্টোবর ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ২৩, ২০১১ 
  70. Vanessa Hudgens: ShoWest Winner[স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]. Celebrity-Gossip.com. 2010-03-19. Retrieved 2011-05-20.
  71. And the winners are.... People's Choice Awards. Retrieved 2011-05-20
  72. "Nickelodeon.nl homepagina"। Nick.com। ২৪ জানুয়ারি ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ২৪, ২০১৪ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]