ভুতু

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ভুতু
ভূতুর চিত্র.jpeg
বাংলাতে ভুতু ধারাবাহিকের স্ক্রিনশট৷
আরও যে নামে পরিচিতভুতু
ধরণহাস্যরস
নাটক
রচনাগল্প
শাহানা
রাগভির শওকত
দামিনী জোসি
কথপোকথন
মালোভা মজুমদার জি টিভি
রাহুল পান্ডে
স্ক্রিনপ্লে
আশরুনু মৈত্র জি টিভি
রাহুল পান্ডে
পরিচালকশ্রী জিৎ রায়
হেমন্ত মিশ্র (হিন্দী)
সৃজনশীল পরিচালক(বৃন্দ)রিয়া সেনগুপ্ত
অভিনয়েআরশিয়া মুখার্জী
বিরাজ কাপুর
সানা আমিন শেখ
কিংশুক মহাজন
আকাঙ্ক্ষা চামোলা
তুষার খান্না
অনিন্দিতা রায়চৌধুরী
বর্ণনাকারীজি ক্রিয়েটিভ টিম
আবহ সঙ্গীত রচয়িতাউপালি চ্যাটার্জী
জি টিভি প্রকাশ, বিরাজ
প্রস্তুতকারক দেশভারত
মূল ভাষাবাংলা
হিন্দী
মৌসুম সংখ্যা
পর্বসংখ্যাজি বাংলা (৩০০)
জি টিভি (২১৪)
নির্মাণ
প্রযোজকশ্রীকান্ত মোহতা
মাহেন্দ্র সোনি
সম্পাদকধর্মেশ পাটেল
প্রমদ কুন্ডার
অবস্থানকোলকাতা
নাইগাও
চলচ্চিত্রকারহানিফ শেখ
ব্যাপ্তিকাল২২ মিনিট
প্রোডাকশন কোম্পানিশ্রী ভেনকাটেশ ফিল্ম
সম্প্রচার
ছবির ফরম্যাট
মূল প্রদর্শনীজি বাংলা: ১৪ মার্চ ২০১৬- ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ ফিরে দেখা: ৩০ মার্চ ২০২০- বর্তমান
জি টিভি: ২১ আগস্ট ২০১৭- ১৫ জুন ২০১৮
ক্রমধারা
সম্পর্কিত প্রদর্শনীভুতু
বহিঃসংযোগ
অফিসিয়াল ওয়েবসাইট


ভুতু ভারতের বাংলাহিন্দি ভাষায় প্রচারিত শিশুদের জন্য কমেডি-নাটক টেলিভিশন সিরিজ যা জি বাংলা এবং জি টিভিতে সম্প্রচারিত হতো।

মূল সিরিজ সম্প্রচার করা হয়েছিলো জি বাংলাতে৷ এই ধারাবাহিকের চারপাশে একটি বন্ধুত্বপূর্ণ মেয়ে ভূত দেখা যায় যার নাম "ভুতু", এই মেয়েটি সবসময় অন্যদের সাহায্য করার চেষ্টা করে। এই সাহায্যের কারণে প্রায়ই হালকা দুর্ঘটনা এবং মেহেম সৃষ্টি হয়। এই চরিত্রটি বন্ধুত্বপূর্ণ ভূত ক্যাসপার এর উপর ভিত্তি করে তৈরি করা হয়েছে। এই ধারাবাহিকটি হিন্দিতে ডাবিং করে জি আনমোল চ্যানেলে "লাড্ডু" প্রচারিত হয়েছে।[১]

এই শো বাংলায় সম্প্রচার হবার পরে জি টিভিতে ২১ ডিসেম্বর ২০১৭ সালে পূনরায় উপানৎ হয়৷ এটি বিন কুচ কাহের পরিবর্তে শুরু হয়। এই শোয়ের তারকা আরশিয়া মুখার্জি,শানা আমিন শেখ,কিংশুক মহাজন, আকাঙ্ক্ষা চামোলাঅঞ্জলি প্রিয়া[২]

প্লট[সম্পাদনা]

ভুতু ছোট্ট মিষ্টি একটি ভুত৷ এই শোতে ভুতুকে এই ভুত রূপে দেখা যায়। ভুতুর বয়স ৭ বছর এবং সে একজন বন্ধুত্বপূর্ণ ভুত৷ সে তার বন্ধুদের সাথে খেলতে ভালোবাসে এবং সে তার মায়ের খুবই কাছের। কিন্তু সে খুবই দুঃখী ও বিরক্ত কারণ তাকে কেউ দেখতে পায় না। সে তার বাড়িতে নতুন ভাড়াটেদের পায় তার পরিবারের সদস্য হিসাবে এবং তার জাদু দিয়ে তাদের সমস্যা সমাধান করে। অবশেষে সে তার মূল পরিবারকে ফিরে পায়। মূল গল্পে এরপর তার আত্মার মুক্তি পায়। এদিকে, হিন্দি সংস্করণে গোপাল (কৃষ্ণ) তার সাথে সঙ্গতিপূর্ণ হন এবং তিনি প্রতিশ্রুতি দেন যে, তিনি তার মাকে তার সাথে দেখা করতে পারবেন।

মৌসুম ১[সম্পাদনা]

গল্পের শুরুতে ভুতুকে একটি খালি বাড়িতে হাঁটাহাঁটি করতে দেখা যায়। সারা দিন ধরে সে তার বন্ধুদের সাথে কথা বলার চেষ্টা করে কিন্তু ব্যর্থ হয়৷ সে তার মা অনন্দিতার ফিরে আসার অপেক্ষা করে কিন্তু ভুতুর বাড়িতে একটি ভুত আছে বলে প্রতিবেশীরা বুঝতে পারে এবং তারা এই ভুত সম্পর্কে বলবলি শুরু করে৷ যখন প্রতিবেশীরা এই বাড়ির ঘরগুলো শুদ্ধ করার চেষ্টা করে, সে ভীড়ু হয় এবং তখন বাল গোপাল (কৃষ্ণ) তাকে দেখা দেয়।

গোপাল ভুতুকে বলে ভুতু একটি অগ্নি দূর্ঘটনাতে ৬ মাস আগে মারা গিয়েছে এবং এখন সে একটি আত্মা৷ তিনি তাকে আশ্বাস দেন যে তার একজন বন্ধু থাকবে, যিনি তার কথা শুনতে সক্ষম হবে৷ গোপাল ভুতুকে বলে ভুতু একটি অগ্নি দূর্ঘটনাতে ৬ মাস আগে মারা গিয়েছে এবং এখন সে একটি আত্মা৷ তিনি তাকে আশ্বাস দেন যে তার একজন বন্ধু থাকবে, যিনি তার কথা শুনতে সক্ষম হবে।

ভুতুর নতুন বন্ধু হিসাবে সুখী উপস্থাপিত হয়। সে বন্ধুত্বপূর্ণ, সে দ্বায়িত্বপূর্ণ কিন্তু বাচ্চাদের সে ঘৃণা করে। তার বিবাহের কয়েক দিন আগে যখন তারা হঠাৎ তাদের ঘর খালি করে, তখন তারা ভুতুর বাড়ীতে আসে এবং এটি ভাড়া নেয়।

যখন সুচী ভুতুর কন্ঠ শুনতে পারে তখন সবাই অনুমান করে তার মানসিক ব্যাধি হয়েছে তা থেকে কষ্ট ভোগ করছে। সুচী বুঝতে পারে যে সে কল্পনা করছেন না এবং ভুতু নামের ভূত এখনও তার বাড়িতে আছে৷ একটি ত্বরান্বিতের মধ্যে বুঝতে পারে তাকে মুক্ত করা প্রয়োজন, সুচি ডেলিভারি করে একটি পার্সাল সিঙ্গাপুরে পাঠায় যেখানে সুবোধ (ভুতুর বাবা) ও আনান্দিতা কয়েক দিনের মধ্যে অনুমতি নিয়ে স্থানান্তর করবে এবং ভুতুকে পার্সালের সাথে থাকার জন্য নির্দেশ করে সুচী৷

যাইহোক,তিনি এই ছোট্ট বালিকার প্রতি উন্নয়নশীল সস্নেহ টের পান। পরে, যখন সুচী এটা খুঁজে বের করে যে অনান্দিতা এই শহর ত্যাগ করেনি এবং সে উন্মত্তবৎ অনুসন্ধান করে ভুতুকে তাদের সাথে পুনর্মিলন ঘটায়।......

মৌসুম ২[সম্পাদনা]

২ বছর একটি লিপ দেখানো হয়৷ ভুতু এখনও তার বাড়িতে বসবাস করে এবং তার মায়ের জন্য অপেক্ষা করছে। আনন্দিতা বাড়ি ফিরে আসে কিন্তু সে ভুতুর মৃত্যুর কথা মনে রাখে না।ভুতুর চাচা বিক্রম একটি এন্ট্রি তৈরি করে৷ তিনি আনন্দিতা এবং তার মানসিক অবস্থা ঠিক করার চেষ্টা করে৷ অপরাধীদের একটি নতুন দল এই বাড়িতে প্রবেশ করে এবং আনন্দিতা থেকে সম্পত্তি ছিনাইয়ের জন্য বিভিন্ন কৌশল প্রয়োগ করে। They even present a doppelganger of Bhutu but fails. Bhutu helps her doppelganger - Shona to unite with her real mother. এরপর আনন্দিতা অতি শীগ্রই আবার মা হতে চলেছে। একটি একটি মেয়ে শিশু হয়ে জন্মায়৷ গোপাল তার(ভুতুর) আত্মা বাচ্চাটির শরীরে প্রবেশ করায় এবং আনন্দিতা ভুতুর মতো আরেকটি মেয়ে পায়।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Indiablooms। "After Casper for big screen in Hollywood, Bhutu debuts in Bengali telly as friendly ghost - Indiablooms - First Portal on Digital News Management" 
  2. উদ্ধৃতি ত্রুটি: অবৈধ <ref> ট্যাগ; Khanna নামের সূত্রের জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি