ভিডিও গেম

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

ভিডিও গেম্‌স হচ্ছে একটি ইলেকট্রনিক গেম্‌স যা ব্যবহারকারীর সাথে ভিডিও ডিভাইজে পারস্পরিক প্রতিক্রিয়া জন্মায়। ভিডিও গেম্‌সকে আজকাল তার জনপ্রিয়তার জন্যে যন্ত্রে ডিস্‌প্লে ডিভাইজ ব্যবহৃত হয়। ভিডিও গেম্‌স খেলার জন্য যে সকল ইলেকট্রনিক সিস্টেম ব্যবহৃত হয় তাকে বলা হয় প্লাটফর্ম। যেমন পার্সোনাল কম্পিউটার এবং ভিডিও গেম কনসোল। তাছাড়া ভিডিও গেম্‌স ব্যবহৃত হয় ইনপুট ডিভাইজ। যেমন পি.এস.পিতে খেলার জন্য ব্যবহৃত গেম কন্ট্রোলার, জয়স্টিক। কম্পিউটারে খেলার জন্য কী-বোর্ড ও মাউজ ব্যবহৃত হয়।

ইতিহাস[উৎস সম্পাদনা]

ভিডিও গেমের ইতিহাস জন্য ফিরে যেতে হবে ১৯৪০-এর দশকে, যখন থমাস টি. গোল্ডস্মিথ জুনি. এবং এস্টেল রে ম্যানন কর্তৃক যুক্তরাষ্ট্রের প্যাটেন্টে আবেদন করে একটি আবিস্কারের জন্য যা তারা বর্ণনা করে ''বিনোদনমূলক ক্যাথোড রে টিউব ডিভাইস''। কিন্তু ভিডিও গেম জনপ্রিয়তায় পৌছায় না সত্তুর আশির দশকের আগে যতদিননা পর্যন্ত সাধারণ মানুষ '''আর্কেড গেম্‌স''', কনসোল গেম্‌স, হোম কম্পিউটার গেমস্ এর সাথে পরিচিত হয়। সেই থেকে এখন পর্যন্ত, ভিডিও গেম বিনোদনের জন্য একটি জনপ্রিয় মাধ্যম এবং আধুনিক সংস্কৃতির অঙ্গ। ২০১৩ পর্যন্ত আট প্রজন্মের ভিডিও গেম কনসোল রয়েছে।

মূল প্লাটফর্মসমূহ[উৎস সম্পাদনা]

কম্পিউটার গেম্‌স[উৎস সম্পাদনা]

যেসব গেম্স সাধারনত কম্পিউটারে খেলা হয়ে থাকে তাকে কম্পিউটার গেম্স বলে। বর্তমানে ডেস্কটপ কম্পিউটারে গেমস খেলা, বেশি জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। সাধারনত গেম সফটওয়্যার হিসেবে থাকে। এটি ইন্টারনেট থেকে ডাউনলোড অথবা কিনে খেলা যায়। এছাড়াও গেমসের বিভিন্ন সিডি বা ডিক্স পাওয়া যায়। বিভিন্ন অনলাইন গেমস রয়েছে।

আর্কেড গেম্‌স[উৎস সম্পাদনা]

আর্কেড গেম্‌স (ইংরেজি: Arcade game) (অথবা কয়েন-অপ) হচ্ছে মুদ্রা-চলিত বিনোদন-মূলক যন্ত্র, যা সাধারণত শুঁড়িখানা এবং প্রভৃতি বিনোদন দানকারী স্থাপনা(য়) স্থলভিষিক্ত থাকে। অধিকাংশই ভিডিও গেম, পিনবল যন্ত্র এবং যান্ত্রিক বৈদ্যতিক গেম (যেমন ক্লাও ক্রেনস্)।

কনসোল গেম্‌স[উৎস সম্পাদনা]

হ্যান্ডহেল্ড গেম্‌স[উৎস সম্পাদনা]

মোবাইল গেম্‌স[উৎস সম্পাদনা]

যে সমস্ত গেম মোবাইল এ খেলা হয়ে থাকে তাকে মোবাইল গেম বলে

উন্নয়ন[উৎস সম্পাদনা]

পরিবর্তনকরণ[উৎস সম্পাদনা]

প্রতারণাকরণ[উৎস সম্পাদনা]

ত্রুটিঘটা[উৎস সম্পাদনা]

তত্ত্ববিষয়[উৎস সম্পাদনা]

সামাজিক দিকসমূহ[উৎস সম্পাদনা]

জনসংখ্যা পরিসংখ্যন[উৎস সম্পাদনা]

একাধিক গেমপ্লেয়ার[উৎস সম্পাদনা]

সুবিধাসমূহ[উৎস সম্পাদনা]

তর্কবিতর্ক[উৎস সম্পাদনা]

ব্যবসায়িক দিকসমূহ[উৎস সম্পাদনা]

গেম্‌স বিক্রয়[উৎস সম্পাদনা]

সমালোচনা[উৎস সম্পাদনা]

আরও দেখুন[উৎস সম্পাদনা]

পাদটীকা[উৎস সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[উৎস সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[উৎস সম্পাদনা]