বীরত্বগাথা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

সাগা বা বীরকাহিনী হলো প্রধানত প্রাচীন নর্ডিক ও জার্মানিক ইতিহাসের গল্প, ভাইকিংদের সমুদ্রযাত্রা, পথে শত্রুদের সাথে লড়াই, তাদের আইসল্যান্ডে দেশান্তরিত হওয়া এবং বিভিন্ন আইসল্যান্ডীয় পরিবারের দাঙ্গার কাহিনী। এগুলো লেখা হতো মূলত আইসল্যান্ডে, প্রাচীন নর্স ভাষায়।[১]

লেখাগুলো ছিল গদ্যে রচিত কাহিনী যা মহাকাব্যের সাথে কিছুটা সাদৃশ্যপূর্ণ। লেখার মধ্যে মধ্যে অনুপ্রাসধর্মী পদে কবিতার স্তবক বা কখনো আস্ত কবিতাই তুলে দেয়া হয়েছে। লেখার বিষয়বস্তু ছিল অতীত দিনের বীরত্বপূর্ণ কর্ম আর "সুযোগ্য লোকদের কাহিনী", যারা কিনা প্রায় সময়ই ভাইকিং, মাঝেমধ্যে পৌত্তলিক বা খ্রিস্টান। কাহিনীগুলো ছিল বাস্তবানুগ, তবে ব্যতিক্রম ছিল কিংবদন্তি সাগা, সাধুদের সাগা বা বিশপদের সাগা এবং অনূদিত বা পুনর্লিখিত প্রেমকাহিনী। এগুলো কখনো কখনো কল্পনাময় ও আজগুবি মনে হলেও সবসময়ই তা মানুষকে ঘিরে আবর্তিত হয়, যা সবার বোধগম্য হয়।[২]

প্রেক্ষাপট[সম্পাদনা]

Excerpt from Njáls saga in the Möðruvallabók (AM 132 folio 13r) c. 1350.

সাগা শব্দটি এসেছে নর্স শব্দ সাগা (বহু. sögur) থেকে, যার অর্থ (১) "যা বলা হয়েছে, বর্ণনা" বা (২) "গল্প, কাহিনী, ইতিহাস"। আইসল্যান্ডীয় সাগাগুলো লোকের মুখে মুখে প্রচলিত, এবং এর প্রতিটি গল্পে কতটুকু সত্য ও কতটুকু কল্পনা তা নিয়ে বিস্তর গবেষণা হয়েছে। সাগাগুলোর নির্ভুলতা প্রশ্নবিদ্ধ। যেসব পাণ্ডুলিপিতে সাগা সংকলিত ছিল তার অধিকাংশই ১৭ শতাব্দীতে ডেনমার্ক এবং সুইডেনে নিয়ে যাওয়া হয়, অবশ্য পরে আইসল্যান্ড সেগুলো ফিরে পেয়েছিলো। ধ্রুপদী সাগাগুলো রচিত হয়েছিলো ১৩শ শতাব্দীতে। একসময় পণ্ডিতগণ মনে করতেন যে, এর আগ পর্যন্ত সাগাগুলো মৌখিকভাবে প্রজন্ম থেকে প্রজন্মে বাহিত হয়েছে। তবে এখন অনেক গবেষক বিশ্বাস করেন যে সাগাগুলো ছিলো সচেতন শিল্পসৃষ্টি, যা মৌখিক ও লিখিত দুভাবেই ধারাবাহিত হয়েছে।

শ্রেণীবিভাগ[সম্পাদনা]

Snorri Sturluson, portrait by Christian Krohg: Illustration for Heimskringla 1899-Edition

নর্স সাগার সাধারণ শ্রেণীগুলো হলো রাজকীয় সাগা (Konungasögur), আইসল্যান্ডারদের সাগা (Íslendinga sögur), আইসল্যান্ডারদের অণুকাহিনী (Íslendingaþættir), সমসাময়িক সাগা (Samtíðarsögur or Samtímasögur), কিংবদন্তি সাগা (Fornaldarsögur), বীরত্বপূর্ণ সাগা (Riddarasögur), সাধুদের সাগা (Heilagra manna sögur) এবং বিশপের সাগা (Biskupa sögur).[৩]

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র ও টীকা[সম্পাদনা]

উৎস[সম্পাদনা]

প্রাথমিক:

অন্যান্য:

আরো পড়ুন[সম্পাদনা]

নরওয়েজীয় ভাষায়:

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

টেমপ্লেট:Norse mythology