বিষয়বস্তুতে চলুন

"আশুরা" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

(r2.7.1) (বট যোগ করছে: simple:Day of Ashura)
 
== আশুরার ঐতিহাসিক গুরুত্ব ==
জনপ্রিয় ধারণায় আশুরা মূলত একটি শোকাবহ দিন কেননা এদিন মুহাম্মদ(দ:)-এর দৌহিত্র হুসাইন (রা:) নির্মমভাবে শহীদ হয়েছিলেন। কিন্তু ইসলামের ইতিহাস অনুসারে এই দিনটি বিভিন্ন কারণে গুরুত্বপূর্ণ। এই দিনটি একটি পবিত্র দিন কেননা ১০ মুহররম তারিখে আসমান ও যমিন সৃষ্টি করা হয়েছিল। এই দিনে পৃথিবীর প্রথম মানুষ [[আদম (আ:)|হযরত আদম (আ:)]] কে সৃষ্টি করা হয়েছিল। এই দিনে [[আল্লাহ]] নবীদেরকে স্ব স্ব শত্রুর হাত থেকে আশ্রয় প্রদান করেছেন। এই দিন নবী [[মুসা (আ:)|ইব্রাহিমের (আ:)]] শত্রু [[ফেরাউন|ফেরাউনকে]] নীল নদে ডুবিয়ে দেয়া হয়। [[নূহ (আ:)]]-এর কিস্তি ঝড়ের কবল হতে রক্ষা পেয়েছিলো এবং তিনি জুডি পর্বতশৃংগে নোঙ্গর ফেলেছিলেন। এই দিনে [[দাউদ (আ:)]]-এর তাওবা কবুল হয়েছিলো, [[নমরূদ|নমরূদের]] অগ্নিকুণ্ড থেকে [[ইব্রাহীম (আ:)]] উদ্ধার পেয়েছিলেন ; [[আইয়ুব (আ:)]] দূরারোগ্য ব্যাধি থেকে মুক্ত ও সুস্থতা লাভ করেছিলেন ; এদিনে আল্লাহ তা'আলা [[ঈসা (আ:)]]-কে উর্দ্ধাকাশে উঠিয়ে নিয়েছেন।<ref>[http://sunnibarta.wordpress.com/2009/01/01/muharram/ আশুরার দিনে ঐতিহাসিক ঘটনা]</ref> হাসিদে বর্ণিত আছে যে এই তারিখেই [[কেয়ামত]] সংঘটিত হবে।
 
=== ইমাম হুসাইন (রা:)-এর শাহাদাৎ ===
বেনামী ব্যবহারকারী