বন্ধন ব্যাঙ্ক

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
বন্ধন ব্যাঙ্ক
বেসরকারী খাতের ব্যাঙ্ক
ব্যবসা হিসেবেBSE950041
NSEBANDHANBNK
আইএসআইএনINE545U01014
শিল্পব্যাঙ্কিং
আর্থিক পরিষেবা
প্রতিষ্ঠাকাল২৩ আগস্ট ২০১৫; ৪ বছর আগে (2015-08-23)
প্রতিষ্ঠাতাসমূহচন্দ্র শেখর ঘোষ
সদরদপ্তরকলকাতা,পশ্চিমবঙ্গ,ভারত
অবস্থানে সংখ্যা
৪,২৮৮ টি ব্যাঙ্কিং আউটলেট [১] (২০১৯)
বাণিজ্য অঞ্চল
ভারত
প্রধান ব্যক্তি
পণ্যসমূহকৃষি ঋণ,ক্ষুদ্র ঋণ,এমএসএমই ঋণ
বৃদ্ধি ১,৭০৪.৪৭ কোটি (US$২৩৭.১৭ মিলিয়ন) (২০১৭)
বৃদ্ধি ১,১১১.৯৫ কোটি (US$১৫৪.৭২ মিলিয়ন) (২০১৭)
মোট সম্পদবৃদ্ধি ৩০,২৩৬.০৯ কোটি (US$৪.২১ বিলিয়ন) (২০১৭)
মোট ইকুইটিবন্ধন ফিনান্সিয়াল হোল্ডিংস লিমিটেড
কর্মীসংখ্যা
৩৭,৩৩১ (২০১৯) [৩]
ওয়েবসাইটbandhanbank.com

বন্ধন ব্যাঙ্ক হল ভারতের একটি বেসরকারি ব্যাঙ্ক। এর সদর দপ্তর পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের রাজধানী কলকাতায় অবস্থিত।[৪] বন্ধন ব্যাঙ্ক ভারতের ৩৬ টি রাজ্য এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলির মধ্যে ৩৪ টিতে উপস্থিত রয়েছে। বর্তমানে বন্ধন ব্যাঙ্কের ৪,৪১৪ টি ব্যাঙ্কিং আউটলেট ভারতের ১.৯ কোটিরও বেশি গ্রাহকে পরিষেবা প্রদান করে। এই আউটলেটগুলির মধ্যে ১,০১৩ টি ব্যাঙ্ক শাখা, ৩,২০৬ টি ডোরস্টেপ সার্ভিস সেন্টার (ডিএসসি) এবং ১৯৫ টি জিআরইউ কেন্দ্র রয়েছে। ব্যাঙ্কের ৪৮৫ টি এটিএম রয়েছে। ব্যাঙ্কটিতে মোট কর্মচারির সংখা ৩৭,৩৩১ জন (২০১৯)।

১৭ ই জুন, ২০১৫ সালে, ভারতীয় রিজার্ভ ব্যাঙ্ক বন্ধন ব্যাঙ্ককে সর্বজনীন ব্যাঙ্কিং লাইসেন্সটি প্রদান করে। একই বছর ২৩ শে আগস্ট ব্যাংকটি ৫০১ টি শাখা, ৫০ টি এটিএম এবং ২,০২২ ডিএসসি নিয়ে কার্যক্রম শুরু করে।[৫] ২০০১ সাল থেকে এটি ক্ষুদ্র ঋনের সংস্থা হিসাবে চালু হয়ে ছিল।

৩১ ডিসেম্বর, ২০১৯ সাল পর্যন্ত ব্যাঙ্কটি ৫৫,৯০৮ কোটি টাকারও বেশি আমানত একত্রিত করেছে এবং বকেয়া বা অনাদায়ী ঋণের পরিণাম দাঁড়িয়েছে ৬৫,৪৫৬ কোটি টাকা।[৫]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

২০০১ সালে বন্ধন একটি অলাভজনক উদ্যোগ হিসাবে সমাজের সুবিধাবঞ্চিত অংশের মানুষের মধ্যে ক্ষুদ্র ঋণ সরবরাহ শুরু করে।[৬] এটি টেকসই জীবিকা নির্বাহের মাধ্যমে আর্থিক অন্তর্ভুক্তি এবং নারীর ক্ষমতায়নে জোর দিয়েছিল। ২০০৬ সালে, বন্ধন তার ক্ষুদ্র ঋণ কার্যক্রমের পরিমাণ বাড়ানোর জন্য এনবিএফসি অর্জন করে। এটি আর্থিক অন্তর্ভুক্তির মূল লক্ষ্যটি আরও এগিয়ে নেওয়ার জন্য একটি এনবিএফসি-এমএফআইতে পরিণত হয়। ২০১০ সালে, ক্ষুদ্র ঋণ দেশের বৃহত্তম এমএফআই হিসাবে স্বীকৃত হয়।

২০১৪ সালের এপ্রিলে বন্ধন সর্বজনীন ব্যাঙ্ক স্থাপনের জন্য নীতিগত অনুমোদন পায়। ১৭ ই জুন, ২০১৫ সালে, ভারতীয় রিজার্ভ ব্যাঙ্ক বন্ধন ব্যাঙ্ককে সর্বজনীন বন্ধন ব্যাঙ্কিং লাইসেন্সটি প্রদান করে। এর দু'মাস পরে ২৩ শে আগস্ট বন্ধন বন্ধন ব্যাঙ্ক কার্যক্রম শুরু করে। আন্তর্জাতিক ফিনান্স কর্পোরেশন সহ ব্যাঙ্কটির পাবলিক শেয়ারহোল্ডারদের মধ্যে তখন অন্তর্ভুক্ত ছিল; জিআইসির একটি শাখা, সিঙ্গাপুরের সার্বভৌম সম্পদ তহবিল; এবং ভারতের ক্ষুদ্র শিল্প উন্নয়ন ব্যাঙ্ক।

তদানীন্তন মাননীয় কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী, শ্রী অরুণ জেটলি, ২৩ শে আগস্ট, কলকাতায় এই ব্যাঙ্কের উদ্বোধন করেন এবং স্বাধীনতার পরে পূর্ব ভারতে প্রথম ব্যাংক স্থাপন করা হয় বন্ধন ব্যাঙ্কের স্থাপনের মাধ্যমে।

২৭ শে মার্চ, ২০১৮ সালে, বন্ধন ব্যাঙ্ক বাজারের তালিকাভুক্ত হওয়ার দিন মূলধন দ্বারা ভারতের ৮ তম বৃহত্তম ব্যাঙ্ক হয়ে ওঠে।[৭]

ক্ষুদ্র ঋণ[সম্পাদনা]

কলকাতা থেকে ৬০ কিলোমিটার দূরের একটি ছোট্ট গ্রাম বাগনান থেকে বন্ধন তার ক্ষুদ্র ঋণ কার্যক্রম শুরু করে। অনুসরণ করা মডেলটি ছিল গোষ্ঠী গঠনের মাধ্যমে স্বতন্ত্র ঋণ। ১৮ বছরে, ভারতের পূর্ব ও অনুন্নত উত্তর-পূর্বের রাজ্যগুলিতে বিশেষ লক্ষ্য সহ ৩৪ টি রাজ্য এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলিতে ব্যাঙ্কের উপস্থিতি রয়েছে।

বিনিয়োগকারী[সম্পাদনা]

বন্ধন ব্যাঙ্ক 'বন্ধন ফিনান্সিয়াল হোল্ডিংস লিমিটেডের' (বিএফএইচএল) একটি সহায়ক সংস্থা। বিএফএসএলের পাবলিক শেয়ারহোল্ডারদের মধ্যে রয়েছে ইন্টারন্যাশনাল ফিনান্স কর্পোরেশন (আইএফসি), আইএফসি এফআইজি বিনিয়োগ সংস্থা, ভারতের ক্ষুদ্র শিল্প উন্নয়ন ব্যাংক (সিআইডিবিআই) এবং জিআইসি স্পেশাল ইনভেস্টমেন্টস প্রাইভেট লিমিটেড পরিচালিত সংস্থা ক্যালাডিয়াম ইনভেস্টমেন্ট প্রাইভেট লিমিটেড।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Annual report FY 2018-19" (PDF) 
  2. "Bandhan Bank looks to ramp up home loan portfolio" https://www.moneycontrol.com/ (24 October 2019).
  3. "Annual report FY 2017-18" (PDF) 
  4. "Bandhan to Focus on Deposits in Initial Years"। NDTV। সংগ্রহের তারিখ ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৫ 
  5. "About Bandhan Bank: Bandhan Banking in India"। Bandhan Bank। 
  6. "India's Best Banks: Banking For Inclusivity"। সংগ্রহের তারিখ ১৪ অক্টোবর ২০১৯ 
  7. "8th largest bank in India"। Economics Times। সংগ্রহের তারিখ ২৮ মার্চ ২০১৮ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]