বটুলিসম

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
বটুলিসম
Botulism1and2.JPG
বটুলিজমে আক্রান্ত রোগী। যা এর চোখের পেশীগুলির দুর্বলতা এবং বাম ছবিতে দেখানো চোখের পাতা বন্ধ হয়ে যাওয়া দ্বারা চিহ্নিত। ১৪ বছরের এই তরুন সম্পূর্ণ সচেতন ছিল।
বিশেষত্বসংক্রামক রোগ, পাকান্ত্রবিজ্ঞান
লক্ষণদুর্বলতা, ঝাপসা দৃষ্টি, ক্লান্ত বোধ, কথায় জড়তা
জটিলতাশ্বসনতন্ত্রের সমস্যা
রোগের সূত্রপাত১২ থেকে ৭২ ঘণ্টা
স্থিতিকালবিভিন্ন
কারণClostridium botulinum
রোগনির্ণয়ের পদ্ধতিব্যাকটেরিয়া বা এর টক্সিন সন্ধান
পার্থক্যমূলক রোগনির্ণয়মায়াস্থেনিয়া গ্রাভিস, গুলেন বারি সিনড্রোম, অ্যামায়োট্রফিক ল্যাটেরাল স্ক্লেরসিস, ল্যামবার্ট–ইটন মায়াস্থেনিক সিনড্রোম
প্রতিরোধসঠিক খাবারের প্রস্তুতি, এক বছরের চেয়ে কম বয়সের বাচ্চাদের মধু না খাওয়ানো
চিকিৎসাঅ্যান্টিটক্সিন, অ্যান্টিবায়োটিক, যান্ত্রিক বায়ুচলাচল
আরোগ্যসম্ভাবনামৃত্যুর ঝুকি ~৭.৫%

বটুলিজম হলো Clostridium botulinum নামক ব্যাকটেরিয়াম কর্তৃক উত্পাদিত একধরনের অধিবিষের ফলে সৃষ্ট একটি বিরল এবং সম্ভাব্য মারাত্মক ব্যাধি। রোগটি লক্ষণ দুর্বলতা, ঝাপসা দৃষ্টি, ক্লান্তি এবং কথায় জড়তা দিয়ে শুরু হয়। এরপরে হাত, বুকের পেশী এবং পা দুর্বল হয়ে যেতে পারে। বমি বমি ভাব, পেট ফুলে যাওয়া এবং ডায়রিয়াও হতে পারে। এই রোগটি সাধারণত চেতনাকে প্রভাবিত করে না বা এর কারনে জ্বর হয় না।

বটুলিজম বিভিন্নভাবে ছড়াতে পারে। এটির কারন এন্ডোস্পোর, যা মাটি এবং পানি উভয়েই দেখা দেয়। অক্সিজেনের মাত্রা কম হলে বা নির্দিষ্ট কোনো তাপমাত্রায় এলে এরা বোটুলিনাম টক্সিন তৈরি করে। টক্সিনযুক্ত খাবার খাওয়ার সময় খাদ্যবাহিত বটুলিজম হয়। শিশুদের বটুলিজম হয় যখন ব্যাকটেরিয়াগুলি অন্ত্রে প্রবেশ করে টক্সিন ছেড়ে দেয়। এটি সাধারণত ছয় মাসের কম বয়সী শিশুদের মধ্যে ঘটে, কারণ তখনও শিশুদের প্রতিরক্ষামূলক ব্যবস্থাগুলি বিকশিত হয়নি। যারা ইনজেকশনের মাধ্যমে নেশাদ্রব্য গ্রহণ করেন তাদের মধ্যে প্রায়শই ক্ষত বটুলিজম দেখা যায়। এক্ষেত্রে ব্যাকটেরিয়ার জীবাণু ক্ষতস্থানে প্রবেশ করে এবং অক্সিজেনের অভাবে টক্সিন ছেড়ে দেয়। এটি সরাসরি একজন থেকে আরেকজনের কাছে ছড়ায় না। সন্দেহজনক ব্যক্তির শরীরে টক্সিন বা ব্যাকটিরিয়া খুঁজে বের করে রোগ নির্ণয়ের বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়।

মূলত সঠিকভাবে খাদ্য প্রস্তুত করার মাধ্যমেই প্রতিরোধ করা সম্ভব। খাবারকে ৫ মিনিটের বেশি সময় ধরে ৮৫° সেলসিয়াস (১৮৫° ফারেনহাইট) এর বেশি তাপমাত্রায় গরম করলে টক্সিন ধ্বংস হয়ে যায়। মধু এই জীবাণু ধারণ করতে পারে এবং একারণে ১২ মাসের কম বয়সী বাচ্চাদের মধু খাওয়ানো উচিত নয়। অ্যান্টিটক্সিন বা প্রতিবিষ দিয়ে এর চিকিত্সা করা হয়। যারা নিজে থেকে শ্বাস নেওয়ার ক্ষমতা হারিয়ে ফেলেন তাদের কয়েক মাসের জন্য যান্ত্রিক বায়ুচলাচল প্রয়োজন হতে পারে। ক্ষত বটুলিজমের জন্য অ্যান্টিবায়োটিক ব্যবহার করা যেতে পারে। আক্রান্ত ৫ থেকে ১০% ব্যক্তিদের মৃত্যু ঘটে। বটুলিজম অন্যান্য অনেক প্রাণীকেও প্রভাবিত করে। শব্দটি লাতিন botulus থেকে এসেছে, যার অর্থ সসেজ।

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

টেমপ্লেট:Offline

শ্রেণীবিন্যাস
বহিঃস্থ তথ্যসংস্থান