পরিপাক নালি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
মুখতালুআলজিভজিহ্বাদাঁতলালাগ্রন্থিসাবলিঙ্গুয়াল গ্রন্থিসাবম্যান্ডিবুলার গ্রন্থিপ্যারোটিড গ্রন্থিযকৃৎপিত্তাশয়পিত্তনালীক্ষুদ্রান্ত্রডিওডেনামজেজুনামইলিয়ামঅ্যাপেন্ডিক্সগলবিলঅন্ননালীপাকস্থলীঅগ্ন্যাশয়অগ্ন্যাশয় নালীবৃহদান্ত্রট্রান্সভার্স কোলনঊর্ধ্বগামী কোলনসিকামনিম্নগামী কোলনসিগময়েড কোলনমলাশয়পায়ু
উপর ও নিচের পরিপাক নালী

পরিপাক নালী (ইংরেজি: Gastrointestinal tract) বহুকোষী জীবদের এক ধরনের অঙ্গতন্ত্র যার কাজ খাদ্য গ্রহণ করা, গৃহীত খাদ্য পরিপাক করে শক্তি ও পুষ্টি নিষ্কাশন করা, এবং অবশিষ্ট বর্জ্য শরীর থেকে বহিস্কার করা।

প্রাণীভেদে এই নালী বিভিন্ন রকমের হয়। কিছু কিছু প্রাণীর বহু কক্ষবিশিষ্ট পাকস্থলী আছে, আবের অন্য প্রাণীর ক্ষেত্রে এটি এক-কাক্ষিক। একজন স্বাভাবিক প্রাপ্তবয়স্ক পুরুষ মানুষের পরিপাক নালী প্রায় ২০ ফুট লম্বা এবং এটিকে ঊর্ধ্ব ও নিম্ন পরিপাকনালী---এই দুই অংশে ভাগ করা যায়।

ঊর্ধ্বপরিপাকনালীতে আছে মুখ, গলনালী, অন্ননালী ও পাকস্থলী। নিম্ন পরিপাকনালীতে আছে ক্ষুদ্রান্ত্র (ডুওডেনাম, জেজুনাম ও ইলিয়াম), বৃহদান্ত্র (সিকাম, কোলন ও রেক্টাম বা মলাশয়) এবং পায়ু।

নিম্নে পরিপাক তন্ত্র গুলো বর্ণনা করা হল ::-

মুখ :- মুখ দিয়ে পৌষ্টিকনালীর শুরু হয় ৷ এটি নাসারন্ধ্রের নিচে অাড়াঅাড়ি একটি বড় ছিদ্র যা উপরে ও নিচে ঠোট দ্বারা বেষ্টিত থাকে ৷

গলবিল :- মুখ গহ্ববরের পরের অংশ গলবিল ৷ মুখগহ্ববর থেকে খাদ্যবস্তু অন্ননালীতে পৌছে ৷ গলবিল সাধারনত ১৩ - ১৫ সে.মি লম্বা হয় ৷

অন্ননালী :- গলবিল থেকে পাকস্থলি পর্যন্ত নালীটির নাম অন্ননালী ৷ খাদ্যবস্তু এই নালীর মধ্য দিয়ে পাকস্থলিতে পৌছে ৷

পাকস্থলি :- অন্ননালী ও ক্ষুদ্রান্তের মাঝখানে একটি থলির মত অঙ্গ ৷ এর প্রাচীর পুরু ও পেশিবহুল ৷ এর প্রাচীরে অসংখ গ্যাস্ট্রিকগ্রন্থি থাকে ৷ পাকস্থলীর পেশি সংকোচন ও প্রসারনের মাধ্যমে খাদ্যবস্তুকে পিষে মন্ডে পরিনত করে ৷ গ্যাস্ট্রিকগ্রন্থি থেকে নিঃসৃত রস খাদ্য পরিপাকে সাহায্য করে ৷

ক্ষুদ্রান্ত :-পাকস্থলি থেকে বৃহদন্ত পর্যন্ত বিস্তৃত লম্বা , প্যাচানো নলকে ক্ষুদ্রান্ত বলে ৷ এটি ৩টি অংশে বিভক্ত যথা :- ডুওডেনাম , জুজেনাম ও ইলিয়াম ৷

বৃহদন্ত :- ইলিয়ামের পর থেকে পায়ু পর্যন্ত বিস্তৃত মোটা নলাকৃতি অংশটি হল বৃহদন্ত ৷ এটির তিনটি অংশ যথা :- সিকাম , কোলন ও মলাশয় ৷