পিয়ের সিমোঁ লাপ্লাস

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পিয়ের সিমোঁ, মার্কি দ্য লাপ্লাস
Pierre-Simon Laplace.jpg
পিয়ের সিমোঁ লাপ্লাস (১৭৪৯-১৮২৭); মাদাম ফেতো-র আঁকা মরণোত্তর প্রতিকৃতি, ১৮৪২
জন্ম২৩শে মার্চ, ১৭৪৯
বোমোঁ-অঁ-ওজ, নরমঁদি, ফ্রান্স
মৃত্যু৫ মার্চ ১৮২৭(1827-03-05) (বয়স ৭৭)
প্যারিস, ফ্রান্স
বাসস্থানফ্রান্স
জাতীয়তাফরাসি
কর্মক্ষেত্রজ্যোতির্বিদ এবং গণিতবিদ
প্রতিষ্ঠানএকোল মিলিতের (১৭৬৯-১৭৭৬)
প্রাক্তন ছাত্রকাঅঁ বিশ্ববিদ্যালয়
শিক্ষায়তনিক উপদেষ্টাবৃন্দজঁ দালঁবের
ক্রিস্তফ গাদব্লে
পিয়ের ল্য কানু
পিএইচডি ছাত্ররাসিমেওঁ দ্যনি পোয়াসোঁ
পরিচিতির কারণউল্লেখযোগ্য কাজ জ্যোতিঃবলবিদ্যা
লাপ্লাস সমীকরণ
লাপলাসিয়ান
লাপ্লাস রূপান্তর
লাপ্লাস বন্টন
লাপ্লাসের দৈত্য
লাপ্লাস বর্ধন
ইয়ং-লাপ্লাস সমীকরণ
লাপ্লাস সংখ্যা
লাপ্লাস সীমা
লাপ্লাস অভেদ
লাপ্লাস নীতি

পিয়ের সিমোঁ মার্কি দ্যু-লাপ্লাস (ফরাসি: Pierre-Simon Marquis de Laplace) (২৩শে মার্চ, ১৭৪৯ - ৫ই মার্চ, ১৮২৭) একজন ফরাসি গণিতবিদজ্যোতির্বিদ, যিনি গাণিতিক জ্যোতির্বিদ্যাপরিসংখ্যানের উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছেন। তিনি তাঁর মেকানিক সেলেস্ত (অর্থাৎ জ্যোতিঃবলবিদ্যা) গ্রন্থের পাঁচ খণ্ডে তাঁর পূর্বসূরীদের কাজের সারসংক্ষেপ ও পরিবর্ধন করেছেন। তার এই কাজ চিরায়ত বলবিদ্যার জ্যামিতিক দৃষ্টিভঙ্গির পরিবর্তন ঘটিয়ে ক্যালকুলাস ভিত্তিক চর্চার পথ খুলে দেয়, এবং এর ফলে অনেক নতুন সমস্যা সমাধানের দুয়ার খুলে যায়। পরিসংখ্যানে সম্ভাব্যতার বেইসীয় পরিভাষাও মূলত লাপ্লাসেরই অবদান।

তিনি লাপ্লাস সমীকরণ সৃষ্টি করেন এবং লাপ্লাস রূপান্তরের পথ প্রদর্শন করেন, যা গাণিতিক পদার্থবিজ্ঞানে বহুল ব্যবহৃত একটি হাতিয়ার; এ ক্ষেত্রটিতে তিনি ছিলেন সেরাদের একজন। ফলিত গণিতে নানাভাবে ব্যবহৃত লাপ্লাসীয় অন্তরক অপারেটরের নাম তার নামানুসারে রাখা হয়েছে।

লাপ্লাস ও তার কর্ম[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]


পূর্বসূরী
নিকোলা মারি কিনেত
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
নভে - ডিসে ১৭৯৯
উত্তরসূরী
লুসিয়াঁ বোনাপার্ত
পূর্বসূরী
মিশেল-লুই-এতিয়েন রেনো দ্য সাঁ-জাঁ দঁজেলি
সিট ৮
আকাদেমি ফ্রঁসেজ

১৮১৬ - ১৮২৭
উত্তরসূরী
পিয়ের-পল রোয়াইয়ে-কোলার