দক্ষিণ ত্রিপুরা জেলা

স্থানাঙ্ক: ২৩°৩২′ উত্তর ৯১°২৯′ পূর্ব / ২৩.৫৩৩° উত্তর ৯১.৪৮৩° পূর্ব / 23.533; 91.483
উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
দক্ষিণ ত্রিপুরা জেলা
জেলা
Amarpur (45).JPG
ত্রিপুরার ৮টি জেলা
ত্রিপুরার ৮টি জেলা
স্থানাঙ্ক: ২৩°৩২′ উত্তর ৯১°২৯′ পূর্ব / ২৩.৫৩৩° উত্তর ৯১.৪৮৩° পূর্ব / 23.533; 91.483
রাজ্যত্রিপুরা
দেশভারত
সদরদপ্তরবেলোনিয়া
আয়তন
 • মোট১,৫১৪.৩ বর্গকিমি (৫৮৪.৭ বর্গমাইল)
উচ্চতা২৬ মিটার (৮৫ ফুট)
জনসংখ্যা (২০১১ [১])
 • মোট৪,৫৩,০৭৯
 • জনঘনত্ব৩০০/বর্গকিমি (৭৭০/বর্গমাইল)
সময় অঞ্চলভারতীয় প্রমান সময় (ইউটিসি+০৫:৩০)
টেলিফোন কোড০৩৮২৩
আইএসও ৩১৬৬ কোডIN-TR-ST
ওয়েবসাইটhttp://southtripura.nic.in/
একটি হিন্দু মন্দির, উদয়পুরে

দক্ষিণ ত্রিপুরা জেলা (ইংরেজি: South Tripura district) হচ্ছে উত্তর-পূর্ব ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যের একটি প্রশাসনিক জেলা।যেটির বাঙালি হিন্দু জনগন প্রধানত ভারতবর্ষ বিভক্তি ও ১৯৭১ বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের বিভিন্ন সময়কালে বৃহত্তর নোয়াখালী জেলা (লক্ষ্মীপুর, ফেনী)থেকে উদ্বাস্তু হয়ে দক্ষিণ ত্রিপুরায় অভিবাসী হয়ে এসেছে। এবং এরাই বর্তমানে দক্ষিন ত্রিপুরায় আদিবাসী ত্রিপুরা জাতিগোষ্ঠীকে ছাপিয়ে প্রধান জাতিগোষ্ঠী হয়ে উঠেছে।এদের অধিকাংশের কথ্য ভাষা বাংলাদেশের নোয়াখালী জেলার মানুষের কথ্যভাষার অনুরুপ অর্থাৎ নোয়াখাইল্লা ভাষা।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

১ সেপ্টেম্বর ১৯৭০ এই জেলা সৃষ্টি হয়, যখন সমগ্র প্রদেশকে তিন জেলায় বিভক্ত করা হয়।

ভূগোল[সম্পাদনা]

বিভাগসমূহ[সম্পাদনা]

দক্ষিণ ত্রিপুরা জেলায় মোট ৩টি মহকুমা ও ৮টি ব্লক রয়েছে।

  • মহকুমাগুলি হচ্ছে-
    • শান্তিরবাজার
    • বেলোনিয়া
    • সাব্রুম

  • ব্লকগুলি হচ্ছে-
    • ঋষ্যমুখ
    • রাজনগর
    • ভারতচন্দ্রনগর
    • জোলাইবাড়ি
    • বগাফা
    • সাতচাঁদ
    • রূপাইছড়ি
    • পোয়াংবাড়ি

উদ্ভিদ ও প্রাণী[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Demography of South Tripura"। Govt. of Tripura। সংগ্রহের তারিখ ৩০ নভেম্বর ২০২১ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]