উদয়পুর (ত্রিপুরা)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
উদয়পুর
উদয়পুর
শহর
উদয়পুর ত্রিপুরা-এ অবস্থিত
উদয়পুর
উদয়পুর
ভারতের ত্রিপুরায় অবস্থান
স্থানাঙ্ক: ২৩°৩২′উত্তর ৯১°২৯′পূর্ব / ২৩.৫৩° উত্তর ৯১.৪৮° পূর্ব / 23.53; 91.48স্থানাঙ্ক: ২৩°৩২′উত্তর ৯১°২৯′পূর্ব / ২৩.৫৩° উত্তর ৯১.৪৮° পূর্ব / 23.53; 91.48
দেশ  ভারত
রাজ্য ত্রিপুরা
জেলা গোমতি জেলা
জনসংখ্যা (২০১১)[১]
 • মোট ৩২,৭৫৮
ভাষাসমূহ
 • সরকারী বাংলা, ককবরক, ইংরাজি
সময় অঞ্চল IST (ইউটিসি+5:30)
যানবাহন নিবন্ধন TR-03


উদয়পুর (ত্রিপুরা) (ইংরেজি:Udaipur), ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যের দক্ষিণ ত্রিপুরা জেলার একটি নগর পঞ্চায়েত-শাসিত শহর ।

ভৌগোলিক উপাত্ত[সম্পাদনা]

শহরটির অবস্থানের অক্ষাংশ ও দ্রাঘিমাংশ হল ২৩°৩২′উত্তর ৯১°২৯′পূর্ব / ২৩.৫৩° উত্তর ৯১.৪৮° পূর্ব / 23.53; 91.48[২] সমূদ্র সমতল হতে এর গড় উচ্চতা হল ২২ মিটার (৭২ ফুট)।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

উদয়পুর দক্ষিণ ত্রিপুরার অন্যতম প্রধান শহর। ত্রিপুরার রাজধানী আগরতলা থেকে এর দূরত্ব ৫৫ কিলোমিটার। ত্রিপুরার মহারাজাদের শাসনামলে উদয়পুর ত্রিপুরার রাজধানী ছিলো। পরে তা আগরতলাতে স্থানান্তরিত করা হয়। সে সময় এর নাম ছিল রাঙ্গামাটি। মহারাজার নামানুসারে এর আরেকটি নাম ছিলো রাধাকিশোরপুর।

জনসংখ্যার উপাত্ত[সম্পাদনা]

ভারতের ২০০১ সালের আদম শুমারি অনুসারে উদয়পুর (ত্রিপুরা) শহরের জনসংখ্যা হল ২১,৭৫১ জন।[৩] এর মধ্যে পুরুষ ৫২%, এবং নারী ৪৮%।

এখানে সাক্ষরতার হার ৮৪%, । পুরুষদের মধ্যে সাক্ষরতার হার ৮৭%, এবং নারীদের মধ্যে এই হার ৮১%। সারা ভারতের সাক্ষরতার হার ৫৯.৫%, তার চাইতে উদয়পুর (ত্রিপুরা) এর সাক্ষরতার হার বেশি।

এই শহরের জনসংখ্যার ৯% হল ৬ বছর বা তার কম বয়সী।

উদয়পুরের মন্দির[সম্পাদনা]

ত্রিপুরা সুন্দরী মন্দির

উদয়পুর শহর থেকে তিন কিলোমিটার দূরে মন্দিরটি অবস্থিত। মহারাজা ধন্যমাণিক্য ১৫০১ সালে এই মন্দিরটি প্রতিষ্ঠা করেন। মাতা ত্রিপুরেশ্বরীকে (মা কালী) এই মন্দিরে পূজা দেওয়া হয়। হিন্দুদের পবিত্র ৫১টি পীঠের একটি মনে করা হয় এই মন্দিরটিকে।

প্রতি বছর দীপাবলি ও কালী পূজায় মন্দির প্রাঙ্গনে মেলা বসে। সে সময় বহু পর্যটক ও দর্শনার্থীরা এখানে আসেন। মন্দিরে পাশে বিশাল কল্যাণ সাগর নামে একটি পুকুর রয়েছে।

অন্যান্য মন্দির

অন্যান্য মন্দিরের মধ্যে ভুবনেশ্বরী মন্দির, গুণাবতী মন্দির, দুর্গা মন্দির, জগন্নাথ মন্দির, বিষ্ণু মন্দির, মহাদেবের মন্দির ইত্যাদি উল্লেখযোগ্য। ভুবনেশ্বরী মন্দিরে বসেই রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর তাঁর বিখ্যাত বিসর্জন নাটিকাটি লিখেছিলেন। এছাড়া ভুবনেশ্বরী মন্দিরের পাশে বদরমোকাম মুসলিম ধর্মাবলম্বীদের পবিত্র স্থান।

উদয়পুরে যাতায়াত[সম্পাদনা]

উদয়পুর এবং ত্রিপুরা সুন্দরী মন্দির ভারতের ন্যাশনাল হাইওয়ে-৪৪-এ সংযুক্ত। রাজধানী আগরতলা থেকে সরাসরি বাসে উদয়পুর যাওয়া যায় কিংবা গাড়ি ভাড়া করে যাওয়া যায।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. http://censusindia.gov.in/2011-prov-results/paper2/data_files/India2/Table_2_PR_Cities_1Lakh_and_Above.pdf
  2. "Udaipur"Falling Rain Genomics, Inc। সংগৃহীত ১ অক্টোবর ২০০৬ 
  3. "ভারতের ২০০১ সালের আদম শুমারি"। সংগৃহীত ১ অক্টোবর ২০০৬