জঙ্গলের মৃত্যু

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
২০০৬ সালে মধ্য ইউরোপের জিজেরা পর্বতমালা
২০২০ সালে স্যাক্সোনিয়ান ভোগল্যান্ডে ক্রমাগত খরার কারণে জঙ্গলের মৃত্যু

জঙ্গলের মৃত্যু  ("ওয়াল্ডস্টারবেন", একটি জার্মান লোন শব্দ) গাছ বা কাষ্ঠময় উদ্ভিদের এমন একটি অবস্থা যেখানে গাছের বাহিরের অংশগুলি প্যাথোজেন, পরজীবী বা অ্যাসিড বৃষ্টি, খরা,[১] এবং আরও অনেক কিছু দ্বারা আক্রান্ত হয়ে মারা যায়। এই অবস্থাগুলির পরিণতি বাস্তুতন্ত্রের স্থিতিস্থাপকতা হ্রাস,[২] গুরুত্বপূর্ণ মিথোজীবী সম্পর্ক [৩] এবং সূত্রপাতগুলি অদৃশ্য হওয়ার মতো বিপর্যয়কর হতে পারে।[৪] পরবর্তী শতাব্দীর জলবায়ু পরিবর্তনের পূর্বাভাসের জন্য কিছু টিপিং পয়েন্ট সরাসরি জঙ্গলের মৃত্যুর সাথে সম্পর্কিত।[৫]


সংজ্ঞা[সম্পাদনা]

জঙ্গলের মৃত্যু বলতে এমন একটি অবস্থা বোঝায় যেখানে কোন স্পষ্ট কারণ ছাড়াই গাছ গুলির স্বাস্থ্যের ক্ষতি হয় এবং মারা যায়। এই অবস্থাটি জঙ্গলের পতন, জঙ্গলের ক্ষতি, ক্যানোপি লেভেল ডাইব্যাক এবং স্ট্যান্ড লেভেল ডাইব্যাক নামেও পরিচিত।[৬] এটি সাধারণত নির্দিষ্ট প্রজাতির গাছকে প্রভাবিত করে তবে একাধিক প্রজাতিকেও এটি প্রভাবিত করতে পারে। ডাইব্যাক একটি অনিয়মিত ঘটনা[৬] এবং এটি বিভিন্ন অবস্থান ও আকার ধারণ করতে পারে। এটি নির্দিষ্ট উচ্চতায় পরিধির মাঝে থাকতে পারে আবার বনের বাস্তুতন্ত্রের সর্বত্র ছড়িয়েও যেতে পারে[৭]

জঙ্গলের মৃত্যু নিজেকে বিভিন্ন উপায়ে উপস্থাপন করে।এগুলো হলো পাতা এবং সূচির পতন, পাতা এবং সূচির বিবর্ণতা, গাছের মুকুট পাতলা হওয়া, একটি নির্দিষ্ট বয়সের গাছের মৃত্যু এবং গাছের শিকড়ের পরিবর্তন। এর অনেকগুলি গতিশীল রূপ রয়েছে। গাছের একটি স্ট্যান্ড হালকা লক্ষণ, চরম লক্ষণ, এমনকি মৃত্যুও প্রদর্শন করতে পারে। জঙ্গলের পতনকে বনাঞ্চলে একাধিক প্রজাতির ক্রমাগত, বিস্তৃত এবং মারাত্মক মৃত্যুর ফল হিসাবে দেখা যেতে পারে।[৬] বর্তমান বনের পতনকে নির্দিষ্ট গাছের দ্রুত বিকাশ, বিভিন্ন ধরনের বনের সংঘটন, দীর্ঘ সময়কালের (১০ বছরেরও বেশি সময় ধরে) সংঘটন এবং আক্রান্ত প্রজাতির প্রাকৃতিক পরিসীমা জুড়ে ছড়িয়ে যাওয়ার ঘটনা দ্বারা সংজ্ঞায়িত করা যেতে পারে।[৭]


ইতিহাস[সম্পাদনা]

১৯৮০ এর দশকে জার্মানি এবং উত্তর-পূর্ব মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে মারাত্মক ডাইব্যাকের ঘটনা ঘটার সময় অনেক গবেষণা হয়েছিল। পূর্ববর্তী ডাইব্যাকগুলি আঞ্চলিকভাবে সীমাবদ্ধ ছিল, তবে ১৯৭০ এর দশকের শেষের দিকে, মধ্য ইউরোপ এবং উত্তর আমেরিকার কিছু অংশে জঙ্গলের পতন ঘটেছিলো। তবে জার্মানিতে বনের পতন তীব্র হওয়ায় সৃষ্ট ক্ষতি অন্যরকম ছিল।বিভিন্ন উদ্ভিদের  প্রজাতিতে এই ক্ষয়ক্ষতি ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়েছিল। আক্রান্ত গাছের শতাংশ ১৯৮২ সালে ৮৮% থেকে বেড়ে ১৯৮৪ সালে ৫০% এ দাঁড়িয়েছিলো এবং ১৯৮৭ সাল পর্যন্ত ৫০% এই ছিল।[৭] এই ডাইব্যাকের জন্য অনেক প্রকল্প প্রস্তাব করা হয়েছে, নীচে দেখুন।

বিংশ শতাব্দীতে, উত্তর আমেরিকা পাঁচটি উল্লেখযোগ্য হার্ডউড ডাইব্যাকস দিয়ে আক্রান্ত হয়েছিল। এগুলি বনের পূর্ণতা প্রাপ্তির পরে ঘটেছিল এবং প্রতিটি পর্ব প্রায় এগারো বছর ধরে চলেছিল। সর্বাধিক তীব্র নাতিশীতোষ্ণ  বনের ডাইব্যাক সাদা বার্চ এবং হলুদ বার্চ গাছকে লক্ষ্য করে হয়েছিলো। তাদের অভিজ্ঞতা লব্ধ এই পর্বটি ১৯৩৪ থেকে ১৯৩৭ সালের মধ্যে শুরু হয়েছিল এবং ১৯৫৩ এবং ১৯৫৪ সালের মধ্যে শেষ হয়েছিল। এটি একটি তরঙ্গ রীতি অনুসরণ করে যা প্রথম দক্ষিণাঞ্চলে দেখা গিয়েছিল এবং পরবর্তীতে উত্তর অঞ্চলে চলে গিয়েছিল, যেখানে ১৯৫৭ থেকে ১৯৬৫ সালের মধ্যে উত্তর কিউবেকে একটি দ্বিতীয় তরঙ্গ দেখা গিয়েছিল।[৮]

ডাইব্যাক এ্যাশ, ওক এবং ম্যাপেল এর মতো অন্যান্য প্রজাতিকেও প্রভাবিত করতে পারে।১৯৬০ এর দশকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কিছু অংশে সুগার ম্যাপেল ডাইব্যাকের একটি তরঙ্গ অনুভব করে। ১৯৮০ এর দশকে প্রাথমিকভাবে কানাডায় দ্বিতীয় তরঙ্গ দেখা দিয়েছিল,যা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রেও পৌঁছাতে সক্ষম হয়েছিল। এই ডাইব্যাকগুলি প্রাকৃতিক গাছের মরণশীলতা কমানোর জন্য সংখ্যাগতভাবে বিশ্লেষণ করা হয়েছিল। এটি অনুমান করা হয় যে একটি পরিণত বন চরম পরিবেশগত চাপের জন্য বেশি সংবেদনশীল।[৮]


জঙ্গলের মৃত্যুর সম্ভাব্য কারণ[সম্পাদনা]

বনাঞ্চলের বাস্তুতন্ত্রের উপাদানগুলি জটিল।ডাইব্যাক এবং পরিবেশের মধ্যে নির্দিষ্ট কারণ-প্রভাব সম্পর্কগুলি চিহ্নিত করাও একটি কঠিন প্রক্রিয়া। বছরের পর বছর ধরে, এ সম্পর্কে প্রচুর গবেষণা পরিচালিত হয়েছে এবং কিছু প্রকল্প নেয়া হয়েছে।যেমন:

  • বাকল পোকা: বাকল পোকাগুলি আশ্রয়, জীবিকা নির্বাহ এবং বাসা বাঁধার জন্য গাছের নরম টিস্যু ব্যবহার করে। তাদের আগমনের সাথে সাধারণত ছত্রাক এবং ব্যাকটেরিয়ার মতো অন্যান্য জীবও অন্তর্ভুক্ত থাকে।তারা একসাথে মিথোজীবী সম্পর্ক তৈরি করে যেখানে গাছের অবস্থা আরও খারাপ হয়ে যায়।[৯] তারা গাছের মধ্যে ডিম দেয় তাই তাদের জীবনচক্র গাছের উপস্থিতির উপর নির্ভর করে।ডিম একবার ফেটে গেলে, লার্ভা গাছের সাথে পরজীবী সম্পর্ক তৈরি করতে পারে, যেখানে এটি গাছ থেকে দূরে থাকে এবং শিকড় থেকে অঙ্কুর পর্যন্ত পানি এবং পুষ্টির সংবহন বন্ধ করে দেয়।[৯]


  • ভূগর্ভস্থ পানির পরিস্থিতি: অস্ট্রেলিয়ায় পরিচালিত একটি সমীক্ষায় দেখা গেছে যে, গভীরতা এবং লবণাক্ততার মতো ক্ষেত্রগুলি ডাইব্যাক হওয়ার আগে সম্ভবত এর পূর্বাভাস দিতে সহায়তা করতে পারে। একটি বায়োরিজিয়নে, যখন গভীরতা এবং লবনাক্ততার ঘনত্ব উভয়ই বৃদ্ধি পায়, জঙ্গলের অবস্থান ও বৃদ্ধি পায়। যাইহোক, একই অধ্যয়নের ক্ষেত্রে অন্য একটি বায়োরিজিয়নে, যখন গভীরতা বৃদ্ধি পায় কিন্তু পানিতে লবণ এর ঘনত্ব কম থাকে (যেমন মিঠাপানি),তখন ডাইব্যাকস বৃদ্ধি পায়।[১০]


  • খরা এবং হিট স্ট্রেস: খরা এবং হিট স্ট্রেসকে ডাইব্যাকের কারণ হিসাবে অনুমান করা হয়। তাদের আপাত কারণ দুটি প্রক্রিয়া থেকে আসে।[২] প্রথমটি জলবহন ব্যর্থতা,[২] এর ফলে গাছের শিকড় থেকে অঙ্কুর পর্যন্ত পানির পরিবহনের ব্যর্থতা দেখা দেয়। এটি ডিহাইড্রেশন এবং সম্ভবত মৃত্যুর কারণ হতে পারে। [১১] দ্বিতীয়টি, কার্বন অনাহার,[২] এটি হল তাপের প্রতিক্রিয়ায় উদ্ভিদের স্টোমাটা বন্ধ করে রাখা। এই ঘটনাটি কার্বন ডাই অক্সাইডের প্রবেশ বন্ধ করে দেয়, যার ফলে উদ্ভিদ চিনির মতো সঞ্চিত যৌগগুলিতে নির্ভর করে থাকে। যদি তাপের প্রতিক্রিয়া দীর্ঘ হয় এবং উদ্ভিদটির সঞ্চিত চিনি শেষ হয়ে যায় তবে এটি ক্ষুধার্ত হয়ে মারা যাবে।[১১]


  • প্যাথোজেনগুলি বিভিন্ন ডাইব্যাকের জন্য দায়ী। যথাযথভাবে কোন প্যাথোজেন দায়ী এবং তা গাছের সাথে কীভাবে আচরণ করে তা সঠিকভাবে পৃথক করা এবং সনাক্ত করা কঠিন। উদাহরণস্বরূপ, Phomopsis azadirachtae হল Phomopsis বংশের ছত্রাক যা ভারতীয় অঞ্চলগুলিতে Azadirachta indica (নিম) -এর ডাইব্যাকের জন্য দায়ী হিসাবে চিহ্নিত।[১২] কিছু বিশেষজ্ঞ ডাইব্যাককে রোগের একটি গ্রুপ হিসাবে বিবেচনা করেন।এর উৎসগুলি সম্পূর্ণভাবে বোঝা যায় না  কারণ এরা এমন কিছু প্রভাবক দ্বারা নিয়ন্ত্রিত যা আক্রমণের চাপের আগেই গাছগুলো কে মেরে ফেলে।[৬]


অন্যান্য কিছু অনুমান ডাইব্যাকের কারণ এবং প্রভাবগুলি ব্যাখ্যা করতে পারে।১৯৮৮ সালে জার্মানি এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বৈজ্ঞানিক বিনিময়গুলির মধ্যে সম্মতি অনুযায়ী :[৭]

  • মাটির অম্লতা / অ্যালুমিনিয়াম বিষাক্ততা: মাটির অম্লতা বৃদ্ধির সাথে সাথে অ্যালুমিনিয়াম নিঃসৃত হয় এবং গাছের মূলকে ক্ষতি করে। কিছু পর্যবেক্ষিত প্রভাবগুলি হল: কিছু ধনাত্মক আয়নের গ্রহণ এবং পরিবহন হ্রাস, মূলীয় শ্বসন হ্রাস, সূক্ষ্ম খাদক শিকড় এবং মূল অঙ্গসংস্থানের ক্ষতি এবং কোষপ্রাচীর এর স্থিতিস্থাপকতা হ্রাস। এটি প্রফেসর বার্নহার্ড উলরিক এর দ্বারা ১৯৭৯ সালে প্রস্তাবিত হয়েছিলো। [৭]


  • জটিল উচ্চ-উচ্চতা রোগ: উচ্চ ওজোন স্তর, অ্যাসিড তলানি এবং পুষ্টির ঘাটতির সংমিশ্রণ অধিক উচ্চতার গাছগুলিকে হত্যা করে।অধিক ওজোন ঘনত্ব গাছের পাতা এবং সূচিগুলির ক্ষতি করে এবং পুষ্টি গাছের পাতাগুলি থেকে পরিস্রুত হয়ে যায়। সময়ের সাথে সাথে ঘটনাগুলি শিকলের মতো বৃদ্ধি পায়। এটি বার্নহার্ড প্রিন্স, কার্ল রেফুয়েস এবং হেইঞ্জ জটল দ্বারা গঠিত একদল অধ্যাপকের দ্বারা প্রস্তাবিত হয়েছিল।[৭]


  • স্প্রুস এর লাল-সুচ রোগ: এই রোগের কারণে সূচি ঝরে পড়ে এবং মুকূট পাতলা হয়। সূচিগুলি মরিচা রঙ ধারণ করে এবং পড়ে যায়। এটি ফলিয়ার ছত্রাকের কারণে ঘটে যা ইতিমধ্যে দুর্বল গাছগুলিতে আক্রমণকারী একটি মাধ্যমিক পরজীবী। এটি প্রফেসর কার্ল রেফুয়েস প্রস্তাব করেছিলেন।[৭]


  • দূষণ: বায়ুমণ্ডলীয় দূষক এর ক্রমবর্ধমান ঘনত্বের স্তরটি মূল ব্যবস্থাকে আঘাত করে এবং নতুন পাতায় টক্সিন পুঁজিভবন পরিচালনা করে। দূষকগুলি গাছের বৃদ্ধি পরিবর্তন করতে পারে, সালোকসংশ্লেষণমূলক ক্রিয়াকলাপ হ্রাস করতে পারে, এবং গৌণ বিপাকগুলির গঠন হ্রাস করতে পারে। এটি বিশ্বাস করা হয় যে কম ঘনত্বের স্তরগুলি বিষাক্ত বলে বিবেচিত হতে পারে। এটি পিটার শোটের নেতৃত্বে একদল অধ্যাপক প্রস্তাব করেছিলেন।[৭]
    • জৈব বায়ু দূষক: এই অনুচ্ছেদটি জৈব যৌগগুলিতে ফোকাস করে। যে তিনটি যৌগ গুরুত্ব সহকারে আলোচিত হয় সেগুলো হল ইথিলিন, অ্যানিলিন এবং ডাইনাইট্রোফেনল। এমনকি নিম্ন স্তরেও এই জৈব রাসায়নিক যৌগগুলি অস্বাভাবিক পাতা ঝরা, পাতার মোচড় খাওয়া এবং চারার মৃত্যু ঘটাতে পারে। এটি ফ্রিটজ ফাহার প্রস্তাব করেছিলেন।[৭]


  • অতিরিক্ত নাইট্রোজেন জমা: নাইট্রোজেন এবং অ্যামোনিয়াম এর উচ্চ মাত্রা, উভয়ই সার এ পাওয়া যায়।এর নিম্নলিখিত সম্ভাব্য প্রভাব থাকতে পারে: এটি উপকারী ছত্রাককে বাধা দিতে পারে, রাসায়নিক প্রতিক্রিয়া বিলম্বিত করতে পারে, অঙ্কুর এবং মূলের বৃদ্ধির মধ্যে স্বাভাবিক ভারসাম্যকে ব্যাহত করতে পারে এবং মাটির ক্ষরণ বৃদ্ধি করতে পারে। তবে এর পরীক্ষামূলক কোনও প্রমাণ নেই। এটি কার্ল ওলাফ তাম দ্বারা প্রস্তাবিত হয়েছিল।[৭] আরও দেখুন: পুষ্টি দূষণ


জঙ্গলের মৃত্যুর ফলাফল[সম্পাদনা]

জঙ্গলের মৃত্যু অনেকগুলি ঘটনার কারণে ঘটতে পারে। তবে এটি একবার ঘটে গেলে তার ফলে কিছু নির্দিষ্ট পরিণতি হতে পারে।

  • ছত্রাক জনগোষ্ঠী: অ্যাক্টোমাইক্রোরিজাল ছত্রাক গাছের সাথে একটি মিথোজীবী সম্পর্ক তৈরি করে।বাকল পোকার প্রাদুর্ভাবের পরে ডাইব্যাক দেখা যায়। এই প্রক্রিয়া সালোকসংশ্লেষণ, পুষ্টির সহজলভ্যতা এবং পচন হার এবং প্রক্রিয়াগুলি হ্রাস করতে পারে।তাই ডাইব্যাকের পরে, পূর্বে উল্লিখিত মিথোজীবী সম্পর্ক নেতিবাচকভাবে প্রভাবিত হয়। অ্যাক্টোমাইক্রোরিজাল ছত্রাক জনগোষ্ঠী হ্রাস পায় এবং তারপরে সম্পর্কটি সম্পূর্ণ অদৃশ্য হয়ে যায়।[৩] যেহেতু কিছু গাছপালা বেঁচে থাকার জন্য তাদের উপস্থিতির উপর নির্ভর করে তাই এটি সমস্যা হয়ে দাড়ায়।[১৩]


  • মৃত্তিকা রসায়ন: ডাইব্যাক পর্বের পরে মাটির রসায়ন পরিবর্তন হতে পারে। বায়োমাস কর্তৃক ক্যালসিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম এবং পটাসিয়াম এর মতো নির্ধারিত কিছু মুক্ত আয়নকে ছেড়ে দেয়ার ফলে বেস স্যাচুরেশন বৃদ্ধি পেতে পারে।[১৪] এটি একটি ইতিবাচক পরিণতি হিসাবে বিবেচিত হতে পারে কারণ উদ্ভিদের বৃদ্ধি এবং মাটির উর্বরতার জন্য বেস স্যাচুরেশন অপরিহার্য।[১৫] সুতরাং, এটি ইঙ্গিত দেয় যে ডাইব্যাকের পরে মৃত্তিকার রসায়ন অম্লীয় মাটি পুনরুদ্ধারে সহায়তা করতে পারে।[১৪]


জলবায়ু পরিবর্তন[সম্পাদনা]

জঙ্গলের মৃত্যুতে প্রধান অবদানকারী ঘটনা হলো গড় বার্ষিক তাপমাত্রা পরিবর্তন এবং খরা। বিশেষত অ্যামাজন এবং বোরিয়াল বনাঞ্চলে মৃত গাছ থেকে অধিক কার্বন নিঃসৃত হওয়ায় বায়ুমণ্ডলে আরও গ্রিনহাউস গ্যাস নির্গত হয়। গ্রীনহাউস গ্যাসের বর্ধিত মাত্রা বায়ুমণ্ডলের তাপমাত্রা বৃদ্ধি করে। ডাইব্যাকের প্রভাব বিভিন্ন্রকম হতে পারে, তবে বৈশ্বিক জলবায়ু পরিবর্তনের হুমকি কেবল ডাইব্যাকের হার বাড়িয়ে তুলবে।[৯]


  • স্থিতিস্থাপকতা হ্রাস: গাছ স্থিতিস্থাপক হতে পারে। তবে, ইকোসিস্টেম খরা পর্বের দ্বারা আঘাত প্রাপ্ত হলে এটি পরিবর্তন হয়ে যেতে পারে। ফলস্বরূপ গাছগুলি পোকামাকড়ের আক্রমণে আরও বেশি সংবেদনশীল হয়ে ওঠে এবং এর ফলে ডাইব্যাক ইভেন্টটি শুরু হয়।[২] এটি একটি সমস্যা কারণ জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে বিশ্বের কয়েকটি অঞ্চলে খরা বাড়ার পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে।[১৬]


  • থ্রেশহোল্ডস: বন ডাইব্যাক সম্পর্কিত অনেকগুলো থ্রেশহোল্ডস রয়েছে যেমন "জীববৈচিত্র‍্য [...], বাস্তুসংস্থানীয় অবস্থা [...] এবং বাস্তুতন্ত্র ফাংশন"।[৪] যেহেতু জলবায়ু পরিবর্তন একাধিক প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে ডাইব্যাকস সৃষ্টি করার ক্ষমতা রাখে, তখন এই থ্রেশহোল্ডগুলি আরও বেশি পরিমাণে গ্রহণযোগ্য হয়ে উঠে। কিছু ক্ষেত্রে তাদের কাছে একটি ইতিবাচক প্রতিক্রিয়া প্রক্রিয়া প্রবর্তন করার ক্ষমতা রয়েছে। [৪] যেমনঃ যখন বাস্তুসংস্থার মৌলিক অঞ্চলটি ৫০% হ্রাস পায়, একটোমাইকোরাইজাল ছত্রাকের প্রজাতি সমৃদ্ধি। যেমনটি আগেই উল্লেখ করা হয়েছে, কিছু গাছের বেঁচে থাকার জন্য অ্যাক্টোমাইক্রোরাইজাল ছত্রাক গুরুত্বপূর্ণ।[১৩] এটি ডাইব্যাককে একটি ইতিবাচক প্রতিক্রিয়া ব্যবস্থায় পরিণত করে।


  • টিপিং পয়েন্ট: বিজ্ঞানীরা জলবায়ু পরিবর্তনের সঠিক টিপিং পয়েন্টগুলি জানেন না এবং কেবল টাইমস্কেলগুলি অনুমান করতে পারেন। একটি টিপিং পয়েন্ট এ পৌঁছে যাওয়ার পরে, মানুষের ক্রিয়াকলাপের একটি ছোট পরিবর্তন পরিবেশ এর উপর দীর্ঘমেয়াদী প্রভাব ঘটাতে পারে।[৫] পরবর্তী শতাব্দীর জন্য জলবায়ু পরিবর্তনের পূর্বাভাসের নয়টি টিপিং পয়েন্টের মধ্যে দুটি সরাসরি জঙ্গলের মৃত্যুর সাথে সম্পর্কিত । বিজ্ঞানীরা আশঙ্কা করছেন যে অ্যামাজন রেইন ফরেস্ট [১৭] এবং বোরিয়াল চিরসবুজ বন[১৮] এ জঙ্গলের মৃত্যু আগামী ৫০ বছরে একটি টিপিং পয়েন্ট জাগিয়ে তুলবে।[১৯]


আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Climate-induced forest dieback: an escalating global phenomenon?"। Food and Agricultural Organization (FAO)। ২০০৯। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ১৬, ২০১০ 
  2. Sangüesa-Barreda G, Linares JC, Camarero JJ (ডিসেম্বর ২০১৫)। "Reduced growth sensitivity to climate in bark-beetle infested Aleppo pines: Connecting climatic and biotic drivers of forest dieback"। Forest Ecology and Management357: 126–137। hdl:10261/123320অবাধে প্রবেশযোগ্যআইএসএসএন 0378-1127ডিওআই:10.1016/j.foreco.2015.08.017 
  3. Stursová M, Snajdr J, Cajthaml T, Bárta J, Santrůčková H, Baldrian P (সেপ্টেম্বর ২০১৪)। "When the forest dies: the response of forest soil fungi to a bark beetle-induced tree dieback"The ISME Journal8 (9): 1920–31। ডিওআই:10.1038/ismej.2014.37পিএমআইডি 24671082পিএমসি 4139728অবাধে প্রবেশযোগ্য 
  4. Evans PM, Newton AC, Cantarello E, Martin P, Sanderson N, Jones DL, ও অন্যান্য (জুলাই ২০১৭)। "Thresholds of biodiversity and ecosystem function in a forest ecosystem undergoing dieback"Scientific Reports7 (1): 6775। ডিওআই:10.1038/s41598-017-06082-6পিএমআইডি 28754979পিএমসি 5533776অবাধে প্রবেশযোগ্যবিবকোড:2017NatSR...7.6775E 
  5. Lenton TM, Held H, Kriegler E, Hall JW, Lucht W, Rahmstorf S, Schellnhuber HJ (ফেব্রুয়ারি ২০০৮)। "Tipping elements in the Earth's climate system"Proceedings of the National Academy of Sciences of the United States of America105 (6): 1786–93। ডিওআই:10.1073/pnas.0705414105পিএমআইডি 18258748পিএমসি 2538841অবাধে প্রবেশযোগ্য 
  6. Ciesla WM, Donaubauer E (১৯৯৪)। Decline and dieback of trees and forests: A global overview.। Rome, Italy: Food and Agriculture Organization of the United Nations। 
  7. Krahl-Urban B, Papke HE, Peters K (১৯৮৮)। Forest Decline: Cause-Effect Research in the United States of North America and Federal Republic of Germany.। Germany: Assessment Group for Biology, Ecology and Energy of the Julich Nuclear Research Center। 
  8. Auclair AN, Eglinton PD, Minnemeyer SL (১৯৯৭)। Principle Forest Dieback Episodes in Northern Hardwoods: Development of Numeric Indices of Aereal Extent and Severity.। Netherlands: Kluwer Academic Publishers। 
  9. Allen C, Ayres M, Berg E, Carroll A, teal (২০০৫)। "Bark Beetle Outbreaks in Western North America: Causes and Consequences." (PDF)US Forestry Service। সংগ্রহের তারিখ ১৭ মার্চ ২০২১ 
  10. Cunningham SC, Thomson JR, Mac Nally R, Read J, Baker PJ (২০১১-০২-২১)। "Groundwater change forecasts widespread forest dieback across an extensive floodplain system"। Freshwater Biology56 (8): 1494–1508। আইএসএসএন 0046-5070ডিওআই:10.1111/j.1365-2427.2011.02585.x 
  11. Adams HD, Zeppel MJ, Anderegg WR, Hartmann H, Landhäusser SM, Tissue DT, ও অন্যান্য (সেপ্টেম্বর ২০১৭)। "A multi-species synthesis of physiological mechanisms in drought-induced tree mortality"। Nature Ecology & Evolution1 (9): 1285–1291। hdl:10316/87201অবাধে প্রবেশযোগ্যএসটুসিআইডি 294491ডিওআই:10.1038/s41559-017-0248-xপিএমআইডি 29046541 
  12. Prasad, M. N. Nagendra; Bhat, S. Shankara; Raj, A. P. Charith; Janardhana, G. R. (২০০৯-০২-০১)। "Detection of Phomopsis azadirachtae from dieback affected neem twigs, seeds, embryo by polymerase chain reaction"Archives of Phytopathology and Plant Protection42 (2): 124–128। আইএসএসএন 0323-5408ডিওআই:10.1080/03235400600982584 
  13. Policelli N, Horton TR, Hudon AT, Patterson T, Bhatnagar JM (২০২০-০৮-০৬)। "Back to Roots: The Role of Ectomycorrhizal Fungi in Boreal and Temperate Forest Restoration"। Frontiers in Forests and Global Change3: 97। এসটুসিআইডি 220975025ডিওআই:10.3389/ffgc.2020.00097অবাধে প্রবেশযোগ্য 
  14. Kaňa J, Kopáček J, Tahovská K, Šantrůčková H (ফেব্রুয়ারি ২০১৯)। "Tree dieback and related changes in nitrogen dynamics modify the concentrations and proportions of cations on soil sorption complex"। Ecological Indicators97: 319–328। আইএসএসএন 1470-160Xডিওআই:10.1016/j.ecolind.2018.10.032 
  15. "Cation Exchange Capacity and Base Saturation | UGA Cooperative Extension"extension.uga.edu। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৩-২৯ 
  16. Gray E, Merzdorf J। "Earth's Freshwater Future: Extremes of Flood and Drought"Climate Change: Vital Signs of the Planet। NASA's Jet Propulsion Laboratory। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৩-২৯ 
  17. Blaustein RJ (মার্চ ২০১১)। "Amazon dieback and the 21st century."। BioScience61 (3): 176–82। এসটুসিআইডি 86473306ডিওআই:10.1525/bio.2011.61.3.3অবাধে প্রবেশযোগ্য 
  18. Krankina ON, Dixon RK, Kirilenko AP, Kobak KI (মে ১৯৯৭)। "Global climate change adaptation: examples from Russian boreal forests."। Climatic Change36 (1): 197–215। এসটুসিআইডি 154737245ডিওআই:10.1023/A:1005348614843 
  19. Lenton TM, Held H, Kriegler E, Hall JW, Lucht W, Rahmstorf S, Schellnhuber HJ (ফেব্রুয়ারি ২০০৮)। "Tipping elements in the Earth's climate system"Proceedings of the National Academy of Sciences of the United States of America105 (6): 1786–93। ডিওআই:10.1073/pnas.0705414105পিএমআইডি 18258748পিএমসি 2538841অবাধে প্রবেশযোগ্যlay summaryEurekAlert! 

টেমপ্লেট:বৈশ্বিক উষ্ণায়ন