চার্লস ইডি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
চার্লস ইডি
Charles Eady.jpg
১৮৯৬ সালের সংগৃহীত স্থিরচিত্রে চার্লস ইডি
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামচার্লস জন ইডি
জন্ম২৯ অক্টোবর, ১৮৭০
হোবার্ট, তাসমানিয়া, অস্ট্রেলিয়া
মৃত্যু২০ ডিসেম্বর, ১৯৪৫
হোবার্ট, তাসমানিয়া, অস্ট্রেলিয়া
উচ্চতা৬ ফুট ৩ ইঞ্চি (১.৯১ মিটার)
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনডানহাতি ফাস্ট
ভূমিকাঅল-রাউন্ডার, প্রশাসক
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
টেস্ট অভিষেক
(ক্যাপ ৭৩)
২২ জুন ১৮৯৬ বনাম ইংল্যান্ড
শেষ টেস্ট২৮ ফেব্রুয়ারি ১৯০২ বনাম ইংল্যান্ড
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছরদল
১৮৮৯ - ১৯০৮তাসমানিয়া
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট এফসি
ম্যাচ সংখ্যা ৪৩
রানের সংখ্যা ২০ ১৪৯০
ব্যাটিং গড় ৬.৬৬ ২২.৯২
১০০/৫০ ০/০ ৩/৬
সর্বোচ্চ রান ১০* ১১৬
বল করেছে ২২৩ ৬৫৬২
উইকেট ১৩৬
বোলিং গড় ১৬.০০ ২৩.১৩
ইনিংসে ৫ উইকেট ১২
ম্যাচে ১০ উইকেট
সেরা বোলিং ৩/৩০ ৮/৩৪
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ২/- ৪৫/-
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো.কম, ২০ এপ্রিল ২০২০

চার্লস জন ইডি (ইংরেজি: Charles Eady; জন্ম: ২৯ অক্টোবর, ১৮৭০ - মৃত্যু: ২০ ডিসেম্বর, ১৯৪৫) তাসমানিয়ার হোবার্ট এলাকায় জন্মগ্রহণকারী অস্ট্রেলীয় আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার, অস্ট্রেলীয় রুলস ফুটবলার, প্রশাসক ও রাজনীতিবিদ ছিলেন। অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। ১৮৯৬ থেকে ১৯০২ সময়কালে অস্ট্রেলিয়ার পক্ষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করেছেন।

ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটে তাসমানিয়া দলের প্রতিনিধিত্ব করেন। দলে তিনি মূলতঃ অল-রাউন্ডার হিসেবে খেলতেন। ডানহাতে ব্যাটিংয়ের পাশাপাশি ডানহাতি ফাস্ট বোলিংয়ে পারদর্শী ছিলেন চার্লস ইডি

প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেট[সম্পাদনা]

১৮৮৯-৯০ মৌসুম থেকে ১৯০৭-০৮ মৌসুম পর্যন্ত চার্লস ইডি’র প্রথম-শ্রেণীর খেলোয়াড়ী জীবন চলমান ছিল। পনেরো স্টোন ওজনসম্পন্ন ছিলেন। দীর্ঘ ছয় ফুট তিন ইঞ্চি উচ্চতার অধিকারী চার্লস ইডি অল-রাউন্ডারের ভূমিকায় অবতীর্ণ হতেন। ডানহাতে আক্রমণাত্মক ব্যাটিংয়ের পাশাপাশি ডানহাতে ফাস্ট বোলিং করতেন তিনি। ১৮৯৫ সালে তাসমানিয়ার সদস্যরূপে ভিক্টোরিয়ার বিপক্ষে ১১৬ ও অপরাজিত ১১২ রান তুলেছিলেন। একই সালে মেলবোর্নে তাসমানিয়ার সদস্যরূপে ভিক্টোরিয়ার বিপক্ষে ৮/৩৫ বোলিং পরিসংখ্যান গড়েন।

১৮৮৯ থেকে ১৯০৮ সময়কাল পর্যন্ত তাসমানিয়ার পক্ষে প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেট খেলায় অংশ নিয়েছিলেন। শেফিল্ড শিল্ড ও অন্যান্য প্রতিযোগিতায় তাসমানিয়ার পক্ষে অংশগ্রহণের পূর্বে তিনি তাসমানিয়ার ক্লাব ও প্রতিনিধিত্বমূলক দলে খেলতেন।[১]

তাসমানীয় ক্লাব ব্রেক ও’ ডে এবং আরেকটি তাসমানীয় দল ওয়েলিংটন ক্লাবের মধ্যকার খেলায় অবিস্মরণীয় ইনিংস খেলে নিজেকে স্মরণীয় করে রেখেছেন। ১৯০২ সালে অনুষ্ঠিত ঐ খেলায় দলের ৯০৮ রানের মধ্যে নিজে করেছিলেন অপরাজিত ৫৬৬ রান।[২] দীর্ঘ আট ঘণ্টারও কম সময় নিয়ে এ ইনিংসটি খেলেছিলেন। ৪৭৭ মিনিটে সংগৃহীত রানগুলো তিনটি শনিবারে সম্পন্ন হয়েছিল। অদ্যাবিধ এ সংগ্রহটি যে-কোন স্তরের ক্রিকেটে তৃতীয় সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত ইনিংসের মর্যাদা পেয়ে আসছে। ২০১৬ সালে প্রণব ধন্যবাদের অপরাজিত ১০০৯ রান ও ১৮৯৯ সালে এ. ই. জে. কলিন্স ৬২৮ রান তুলে তার সামনে অবস্থান করছেন। এছাড়াও, জানুয়ারি, ১৯০৬ সালে সাউথ হোবার্টের সদস্যরূপে ইস্ট হোবার্টের বিপক্ষে ৪২ রান খরচায় ১০ উইকেটের সবগুলো করায়ত্ত্ব করেন।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট[সম্পাদনা]

সমগ্র খেলোয়াড়ী জীবনে দুইটিমাত্র টেস্টে অংশগ্রহণ করেছেন চার্লস ইডি। ২২ জুন, ১৮৯৬ তারিখে লর্ডসে স্বাগতিক ইংল্যান্ড দলের বিপক্ষে টেস্ট ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে তার। এরপর, ২৮ ফেব্রুয়ারি, ১৯০২ তারিখে মেলবোর্নে একই দলের বিপক্ষে সর্বশেষ টেস্টে অংশ নেন তিনি।

১৮৯৬ সালে ইংল্যান্ড গমনার্থে তাকে অস্ট্রেলীয় দলের সদস্যরূপে অন্তর্ভূক্ত করা হয়। কিন্তু ঐ সফরে তিনি নিজ নামের প্রতি সুবিচার করতে পারেননি। লর্ডস টেস্টে মাত্র ১২ রান তুলেছিলেন। তবে, বল হাতে চার উইকেট লাভ করেন। প্রথম টেস্টে অপরাজিত ১০ ও ২ রান তুলেন। তবে, বল হাতে নিয়ে সফলতার স্বাক্ষর রাখেন। ৩২ ওভারে ৪/৬৯ পান। অসুস্থতা তার খেলায় প্রভাব ফেলে। সমগ্র সফরে ১৬ খেলায় অংশ নিয়ে ১৩.১৭ গড়ে ২৯০ রান তুলতে সক্ষম হন। এছাড়াও, ২৫.৮০ গড়ে ১৬ উইকেট দখল করেন তিনি।

এরপর, ১৯০১-০২ মৌসুমে আরেকটি টেস্টে অংশগ্রহণ করতে পেরেছিলেন। এবারও তিনি কম সফল হন।

অবসর[সম্পাদনা]

ক্রিকেট খেলার পাশাপাশি অস্ট্রেলীয় রুলস ফুটবলে দক্ষ ছিলেন। দুই মেয়াদে ২৫ বছর তাসমানীয় ফুটবল লীগে সভাপতিত্ব করেছেন।[৩]

ক্রিকেট খেলা থেকে অবসর গ্রহণের পর অস্ট্রেলীয় কন্ট্রোল বোর্ডের সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন। এছাড়াও, ১৯৪৪ থেকে ১৯৪৫ সাল পর্যন্ত তাসমানীয় আইনসভায় সভাপতির দায়িত্বে ছিলেন।[৪]

২০ ডিসেম্বর, ১৯৪৫ তারিখে ৭৫ বছর বয়সে তাসমানিয়ার হোবার্ট এলাকায় চার্লস ইডি’র দেহাবসান ঘটে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Charlie Eady"। www.cricketarchive.com। সংগ্রহের তারিখ ৪ অক্টোবর ২০১১ 
  2. "Obituary"। Wisden Cricketers' Almanack (1946 সংস্করণ)। Wisden। পৃষ্ঠা 439। 
  3. Cardosi, Adam। "Neglected heroes – The sad case of the Australian Football Hall of Fame/"australianfootball.com। সংগ্রহের তারিখ ১৪ মার্চ ২০১৪ 
  4. "Mr C. J. Eady, Politician and Sportsman, Dies at 75"The Mercury। Hobart, Tasmania। ২১ ডিসেম্বর ১৯৪৫। পৃষ্ঠা 4। সংগ্রহের তারিখ ২১ আগস্ট ২০১১ – National Library of Australia-এর মাধ্যমে। 

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

বিধানসভার আসন
পূর্বসূরী
টমাস মারডক
তাসমানীয় আইনসভার সভাপতি
১৯৪৪ - ১৯৪৫
উত্তরসূরী
রুপার্ট শুব্রিজ
পূর্বসূরী
জেমস চ্যাপম্যান
হোবার্ট নির্বাচনী এলাকার সদস্য
১৯২৫ - ১৯২৬
যৌথভাবে: প্রপস্টিং / স্ট্রাট, মারডক / ম্যাকেঞ্জি / গাহা / টাইলার / লোনারগান
উত্তরসূরী
জন সাউন্ডি