চাঁদপুর সরকারি মহিলা কলেজ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
চাঁদপুর সরকারি মহিলা কলেজ
অন্যান্য নাম
চাঁদপুর মহিলা কলেজ
নীতিবাক্যজ্ঞানই শক্তি
ধরনসরকারি কলেজ
স্থাপিত২৪ আগস্ট ১৯৬৪; ৫৭ বছর আগে (1964-08-24)
প্রতিষ্ঠাতাহোসেন শহীদ সোহ্‌রাওয়ার্দী
অধিভুক্তিজাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়
অধ্যক্ষঅধ্যাপক মো. মাসুদুর রহমান[১]
উপাধ্যক্ষঅধ্যাপক আবুল খায়ের খান
শিক্ষার্থী১৪,০০০+
ঠিকানা
কলেজ রোড, নাজিরপাড়া
, , ,
শিক্ষাঙ্গনশহুরে
ভাষাবাংলাইংরেজি
সংক্ষিপ্ত নামCGMC
ওয়েবসাইটchgmc.edu.bd

চাঁদপুর সরকারি মহিলা কলেজ বাংলাদেশের চাঁদপুর জেলার একটি পুরোনো ও ঐতিহ্যবাহী শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। এককভাবে নারী শিক্ষায় জেলার প্রথম কলেজ হিসেবে এটি পরিচিত। এ কলেজটি ১৯৬৪ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়।

প্রতিষ্ঠার পটভূমি[সম্পাদনা]

চাঁদপুর সরকারি মহিলা কলেজের ভিত্তিপ্রস্তর হয় ২৪ আগস্ট ১৯৬৪ সালে । [২]

সরকারি করণ[সম্পাদনা]

১ মার্চ, ১৯৮০ সালে কলেজটি সরকারি করণ করা হয়।

ক্যাম্পাস[সম্পাদনা]

কলেজে ২৮ জন শিক্ষকসহ মোট ২৪০০ শিক্ষার্থী এই প্রতিষ্ঠানটির কার্যক্রম চলছে। নারীদের কলেজ হিসেবে পর্যাপ্ত সুরক্ষা ও নিরাপত্তাসহ কলেজ আঙ্গিনায় ২৫০ জন শিক্ষার্থী বসবাসের উপযোগী করে তিনটি হোস্টেল রয়েছে।

অনুষদ ও বিভাগসমুহ[সম্পাদনা]

১৯৬৯ সালে বিএ এবং বিবিএস কোর্স চালু করা হয়। ১৯৮৪ সালে, কলেজ জাতীয়করণ এবং এইভাবে একটি সরকারি কলেজ হয়ে ওঠে। ২০০৬-০৭ শিক্ষাবর্ষে বাংলা ও ইতিহাসে এবং ২০০৯ -১০ সালে ইংরেজি ও সমাজকল্যাণে সম্মাননা কোর্স শুরু হয়। একই বছরে (২০০৯-১০) এইচএসসি স্তরের বিজনেস স্টাডিজও চালু করা হয়।

উচ্চ মাধ্যমিক শ্রেণি[সম্পাদনা]

স্নাতক (পাস) শ্রেণি[সম্পাদনা]

স্নাতক (সম্মান) শ্রেণি[সম্পাদনা]

কলেজটিতে মোট ১৭টি বিষয়ে অনার্স ও ১৪টি বিষয়ে মাস্টার্স কোর্স চালু আছে। সেগুলো হলো -

একাডেমিক সুযোগ সুবিধা[সম্পাদনা]

কলেজটিতে বিভিন্ন ধরনের একাডেমিক সুযোগ সুবিধা রয়েছে। যেমন একাডেমিক ভবন, গ্রন্থাগার ইত্যাদি। এছাড়া এখানে পড়াশুনার পাশাপাশি মেধাবী শিক্ষার্থীদের জন্য রয়েছে বৃত্তির ব্যবস্থা।

একাডেমিক ভবন[সম্পাদনা]

কলেজটিতে মোট পাঁচটি ভবন রয়েছে।

  • মূল ভবন
  • একাডেমিক ভবন
  • ভবন-২
  • ভবন-৩
  • বিজ্ঞান ভবন

লাইব্রেরি[সম্পাদনা]

মূল ভবনে একটি কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগার অবস্থিত। এখানে ছাত্র এবং ছাত্রীদের আলাদা রুমে পড়ার সুযোগ রয়েছে। ১৫০ (প্রায়) শিক্ষার্থী একসাথে পড়তে ও বই সংগ্রহ করতে পারে। গ্রন্থাগারে ২০০০+ বই সংগৃহীত আছে। নিয়মিত জাতীয় ও স্থানীয় দৈনিক সমূহ সংগ্রহ করা হয়।

বোটানিক্যাল গার্ডেন[সম্পাদনা]

কলেজের সুযোগ সুবিধা[সম্পাদনা]

কলেজটিতে বিভিন্ন ধরনের সুযোগ সুবিধা রয়েছে। ছাত্রছাত্রীদের থাকার জন্য রয়েছে হোস্টেল এবং ছাত্রছাত্রীদের খেলার জন্য রয়েছে এক বিশাল খেলার মাঠ।

হোস্টেল[সম্পাদনা]

ছাত্রীদের জন্য রয়েছে দুটি হল।

  • শেখ হাসিনা ছাত্রীনিবাস।
  • নির্মাণাধীন হল যার নাম এখনও ঠিক হয়নি।

খেলার মাঠ[সম্পাদনা]

কলেজের নিজস্ব একটি মাঠ রয়েছে।

মসজিদ[সম্পাদনা]

সহশিক্ষা কার্যক্রম[সম্পাদনা]

চাঁদপুর সরকারি মহিলা কলেজে বর্তমানে বিভিন্ন ধরনের সহশিক্ষা কার্যক্রম চালু রয়েছে:

সাংস্কৃতিক কার্যক্রম[সম্পাদনা]

প্রাক্তন শিক্ষার্থী[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "পদোন্নতির আদেশ" (PDF)মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগ শিক্ষা মন্ত্রণালয় অফিসিয়াল সাইট। সংগ্রহের তারিখ ২৬ জুন ২০১৯ 
  2. চাঁদপুর সরকারি মহিল কলেজ