ক্রোয়েশিয়ার ভাষা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

ক্রোয়েশীয় ভাষা (তথা সার্বো-ক্রোয়েশীয় ভাষা) ক্রোয়েশিয়ার সরকারী ভাষা। ভাষাটি রোমান বা লাতিন লিপির একটি পরিবর্তিত সংস্করণে লিখিত হয়। একই ভাষা সার্বিয়াতে সার্বীয় ভাষা, বসমিয়াতে বসনীয় ভাষা নামে পরিচিত, এদের মধ্যে খুব একটা পার্থক্য নেই। ক্রোয়েশিয়ার স্বল্প-প্রচলিত ভাষাগুলির মধ্যে আছে ইতালীয়, হাঙ্গেরীয় এবং আলবেনীয় ভাষা, কিন্তু এগুলি সরকারী কর্মক্ষেত্রে ব্যবহার করা হয় না।

১৯৯২ সালে স্বাধীনতা লাভের পর জাতিগত দাঙ্গার প্রেক্ষিতে ক্রোয়েশিয়াতে ভাষা-পরিকল্পনা একটি স্পর্শকাতর ইস্যু হয়ে দাঁড়ায়। ক্রোয়েশীয় সরকার অন্যান্য সার্বো-ক্রোয়েশীয় ভাষাগুলির সাথে ক্রোয়েশীয় ভাষার পার্থক্যগুলি যথাসম্ভব বড় করে দেখানোর চেষ্টা করেন। ১৯৯৫ সালে ক্রোয়েশিয়ায় বসবাসরত সার্বদের এক বিরাট অংশ দেশ ছেড়ে পালিয়ে যায়। ফলে সার্বীয় ভাষায় কথা বলে, এরকম লোকের সংখ্যা অস্বাভাবিকভাবে হ্রাস পায়।

ক্রোয়েশীয় ভাষার দুইটি প্রধান উপভাষা হল একাভীয় উপভাষা এবং ইয়েকাভীয় উপভাষা। এদের মধ্যে ইয়েকাভীয় উপভাষাটিতেই ক্রোয়েশিয়ার অধিকাংশ জনগণ কথা বলেন। ক্রোয়েশিয়াতে ক্রোয়েশীয় ভাষাভাষীর সংখ্যা প্রায় ৪২ লক্ষ, অর্থাৎ ক্রয়েশিয়ার জনসংখ্যার প্রায় ৯৬%। এছাড়া সার্বীয় ভাষায় প্রায় ৪৫ হাজার, ইতালীয় ভাষায় ২০ হাজার, আলবেনীয় ভাষায় ১৪ হাজার এবং হাঙ্গেরীয় ভাষায় প্রায় ১২ হাজার লোক কথা বলেন।

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]