কঠোপনিষদ্‌

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
(কঠ উপনিষদ্‌ থেকে পুনর্নির্দেশিত)
উপনিষদ্‌

হিন্দু ধর্মগ্রন্থ-সংক্রান্ত একটি ধারাবাহিকের অংশ

Aum symbol
ঋগ্বেদ
ঐতরেয়
যজুর্বেদ
বৃহদারণ্যক · ঈশ · তৈত্তিরীয় · কঠ
সামবেদ
ছান্দোগ্য · কেন
অথর্ববেদ
মুণ্ডক · মাণ্ডুক্য · প্রশ্ন
অন্যান্য প্রধান উপনিষদ্‌
শ্বেতাশ্বেতর ·কৌষীতকি ·মৈত্রায়ণীয়

কঠোপনিষদ্‌ (সংস্কৃত: कठोपनिषद्) (Kaṭhopaniṣad) হল অন্যতম মুখ্য (প্রধান) একটি উপনিষদ্‌। এই উপনিষদ্‌টি যজুর্বেদের কঠ শাখার শেষ আটটি ক্ষুদ্র অংশের মধ্যে নিহিত রয়েছে।[১][২] এই উপনিষদ্‌ কাঠকোপনিষদ্‌ নামেও পরিচিত। ১০৮টি উপনিষদের মুক্তিকা শাস্ত্রের ক্রমসংখ্যা অনুসারে কঠোপনিষদ্‌ হল তৃতীয় উপনিষদ্‌।

কঠোপনিষদ্‌ দু-টি অধ্যায়ে বিভক্ত। প্রত্যেকটি অধ্যায় আবার তিনটি করে ‘বল্লী’ বা অংশে বিভক্ত। মনে করা হয়, প্রথম অধ্যায়টি দ্বিতীয় অধ্যায়ের পূর্বে রচিত হয়েছিল।[২] এই উপনিষদ্‌টি হল ঋষি বাজশ্রবসের পুত্র নচিকেতাহিন্দু মৃত্যুদেবতা যমের সাক্ষাৎকারের কিংবদন্তি উপাখ্যান। তাঁদের কথোপকথনের মধ্যে দিয়ে মানব-প্রকৃতি, জ্ঞান, আত্মামোক্ষ-সংক্রান্ত বিষয়গুলি উঠে আসে।[২]

কঠোপনিষদ্‌ গ্রন্থের কালক্রম অস্পষ্ট ও বিতর্কিত। বৌদ্ধ পণ্ডিতেরা বলেছেন, এই গ্রন্থটি সম্ভবত আদিযুগের বৌদ্ধ ধর্মগ্রন্থগুলির পূর্বে (খ্রিস্টপূর্ব ৫ম শতাব্দ) রচিত হয়েছিল।[৩] কিন্তু হিন্দু পণ্ডিতেরা বলেছেন, এই গ্রন্থের রচনাকাল সম্ভবত খ্রিস্টপূর্ব ১ম সহস্রাব্দের প্রথম ভাগ। অর্থাৎ আদিযুগের বৌদ্ধ ধর্মগ্রন্থগুলির পূর্বেই কঠোপনিষদ্‌ রচিত হয়েছিল—এই তাঁদের মত।[৪]

কঠোপনিষদ্‌ বেদান্ত দর্শনের একটি গুরুত্বপূর্ণ প্রাচীন সংস্কৃত শাস্ত্র। হিন্দুধর্মের বিভিন্ন সম্প্রদায়ের কাছে এটি প্রভাবশালী শ্রুতিশাস্ত্রও বটে। এই উপনিষদের মতে, “আত্মার অস্তিত্ব রয়েছে” এবং এই উপনিষদ্‌ “পরমানন্দ-স্বরূপ আত্মজ্ঞান অনুসন্ধানে”র শিক্ষা দেয়। অন্যান্য মুখ্য উপনিষদের মতো কঠোপনিষদ্‌ গ্রন্থটিও এই আদর্শের ভিত্তিতেই উক্ত মতবাদের ব্যাখ্যা দান করেছে। এই উপনিষদের মাধ্যমেই হিন্দু ও বৌদ্ধ দর্শনের মধ্যে যে পার্থক্য তা স্পষ্ট রূপ নিয়েছে। কারণ, বৌদ্ধধর্মের শিক্ষা অনুসারে “আত্মার অস্তিত্ব নেই” এবং বৌদ্ধধর্ম শিক্ষা দেয় “পরমানন্দ-স্বরূপ শূন্যতারই অনুসন্ধান করা” মানবের কর্বত্য।[৫][৬] কঠোপনিষদ্‌ গ্রন্থের বিস্তারিত শিক্ষাবলির বিভিন্ন ব্যাখ্যা পাওয়া যায়। আদি শঙ্কর প্রমুখ অদ্বৈতবাদী ধর্মগুরুরা যেমন মূল বৈদান্তিক মত অনুসরণ করে এই উপনিষদ্‌টিকে ব্যাখ্যা করেছেন,[৭][৮][৯] তেমনই পরবর্তীকালে দ্বৈতবাদী পণ্ডিতেরাও সাংখ্য মতানুসারে এই উপনিষদের পৃথক ব্যাখ্যা উপস্থাপনা করেছেন।[১০]

কঠোপনিষদ্‌ সর্বাধিক পঠিত ও চর্চিত উপনিষদ্‌গুলির অন্যতম। খ্রিস্টীয় ১৭শ শতাব্দীতে এই উপনিষদ্‌টি ফারসি ভাষায় অনূদিত হয়। সেই অনুবাদ অবলম্বনে পরবর্তীকালে এই উপনিষদ্‌টি লাতিন ভাষায় অনূদিত হয় এবং সমগ্র ইউরোপে বিতরিত হয়।[১১] ম্যাক্স মুলার ও অন্যান্য অনেক গবেষক এই উপনিষদ্‌টি অনুবাদ করেছিলেন। আর্থার সোফেনহায়ার প্রমুখ অন্যান্য দার্শনিকেরা এই উপনিষদ্‌টির প্রশংসা করেছিলেন। এডউইন আর্নল্ড কবিতায় এটিকে “মৃত্যুর গোপন কথা” ("The Secret of Death") বলে উল্লেখ করেন। রালফ ওয়াল্ডো এমারসন তাঁর ইমমর্টালিটি নামক প্রবন্ধের শেষে উপনিষদ্‌টির কেন্দ্রীয় উপাখ্যানের কৃতিত্ব স্বীকার করে নেন। তাঁর ব্রহ্ম নামক কবিতাটিতেও তিনি একই কাজ করেছিলেন।[৭][১২]

পাদটীকা[সম্পাদনা]

  1. Johnston, Charles (1920-1931). The Mukhya Upanishads. Kshetra Books. ISBN 9781495946530 (Reprinted in 2014).
  2. Paul Deussen. Sixty Upanishads of the Veda. Volume 1, Motilal Banarsidass. ISBN 978-8120814684. pages 269-273
  3. Richard King (1995). Early Advaita Vedānta and Buddhism: the Mahāyāna context of the Gauḍapādīya-kārikā. SUNY Press. ISBN 978-0-7914-2513-8, page 52
  4. উদ্ধৃতি ত্রুটি: অবৈধ <ref> ট্যাগ; stephenphillips নামের সূত্রের জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  5. Robert Altobello (2009), Meditation from Buddhist, Hindu, and Taoist Perspectives, American University Studies - Series VII, Peter Lang Publishers, ISBN 978-1433106927, pages 73-101
  6. John C. Plott et al (2000), Global History of Philosophy: The Axial Age, Volume 1, Motilal Banarsidass, ISBN 978-8120801585, page 63, Quote: "The Buddhist schools reject any Ātman concept. As we have already observed, this is the basic and ineradicable distinction between Hinduism and Buddhism".
  7. SH Nasr (1989), Knowledge and the Sacred: Revisioning Academic Accountability, State University of New York Press, ISBN 978-0791401767, page 99, Quote: "Emerson was especially inebriated by the message of the Upanishads, whose nondualistic doctrine contained so lucidly in the Katha Upanishad, is reflected in his well known poem Brahma".
  8. Kathopanishad, in The Katha and Prasna Upanishads with Sri Shankara's Commentary, Translated by SS Sastri, Harvard College Archives, pages 1-3
  9. Patrick Olivelle (1996), The Early Upanishads: Annotated Text & Translation, Oxford University Press, ISBN 978-0195124354, Introduction Chapter
  10. Ariel Glucklich (2008), The Strides of Vishnu: Hindu Culture in Historical Perspective, Oxford University Press, ISBN 978-0-19-531405-2, page 70, Quote: "The Upanishadic age was also characterized by a pluralism of worldviews. While some Upanishads have been deemed 'monistic', others, including the Katha Upanishad, are dualistic. Monism holds that reality is one – Brahman – and that all multiplicity (matter, individual souls) is ultimately reducible to that one reality. The Katha Upanishad, a relatively late text of the Black Yajurveda, is more complex. It teaches Brahman, like other Upanishads, but it also states that above the 'unmanifest' (Brahman) stands Purusha, or 'Person'. This claim originated in Samkhya (analysis) philosophy, which split all of reality into two coeternal principles: spirit (purusha) and primordial matrix (prakriti)."
  11. Philip Renard (1995), Historical bibliography of Upanishads in translation, Journal of Indian philosophy, vol 23, issue 2, pages 223-246
  12. R White (2010), Schopenhauer and Indian Philosophy, International Philosophical Quarterly, vol. 50, issue 1, pages 57-76

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]