ইব্রাহিম-আল-ইব্রাহিম মসজিদ

স্থানাঙ্ক: ৩৬°০৬′৪৩.৩″ উত্তর ৫°২০′৪৪.২″ পশ্চিম / ৩৬.১১২০২৮° উত্তর ৫.৩৪৫৬১১° পশ্চিম / 36.112028; -5.345611
উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
ইব্রাহিম-আল-ইব্রাহিম মসজিদ
DIMG 6359 (1874021030).jpg
ধর্ম
অন্তর্ভুক্তিইসলাম
অবস্থান
অবস্থানজিব্রাল্টার
স্থানাঙ্ক৩৬°০৬′৪৩.৩″ উত্তর ৫°২০′৪৪.২″ পশ্চিম / ৩৬.১১২০২৮° উত্তর ৫.৩৪৫৬১১° পশ্চিম / 36.112028; -5.345611
স্থাপত্য
ধরনমসজিদ
প্রতিষ্ঠার তারিখ৮ আগস্ট, ১৯৯৭

ইব্রাহিম-আল-ইব্রাহিম মসজিদ, বাদশাহ ফাহাদ বিন আব্দুল আজিজ আল-সৌদ মসজিদ বা কাস্টোডিয়ানের দুই পবিত্র মসজিদের একটি মসজিদ নামেও পরিচিত। এটি দক্ষিণ স্পেনের একটি উপদ্বীপ সংযুক্ত ব্রিটিশ বিদেশী অঞ্চল জিব্রাল্টারের ইউরোপা পয়েন্টে অবস্থিত। মসজিদটি জিব্রাল্টার প্রণালী এবং মরক্কোর দিকে দক্ষিণে কয়েক কিলোমিটার দূরে অবস্থিত।

ভবনটি সৌদি আরবের বাদশাহ ফাহাদের জন্য একটি উপহার ছিল। এটি নির্মাণ করতে প্রায় £5 মিলিয়ন খরচ এবং দুই বছর সময় লেগেছিল। এটি আনুষ্ঠানিকভাবে ১৯৯৭ সালের ৮ আগস্ট উদ্বোধন করা হয়। [১]

এটি মহাদেশীয় ইউরোপের সবচেয়ে দক্ষিণের মসজিদ এবং একটি অমুসলিম দেশের বৃহত্তম মসজিদগুলোর মধ্যে একটি। [২]

বর্ণনা[সম্পাদনা]

ইব্রাহিম-আল-ইব্রাহিম মসজিদ [৩] যা বাদশাহ ফাহাদ বিন আবদুল আজিজ আল সৌদ মসজিদ নামেও পরিচিত, জিব্রাল্টারের প্রায়ই পরিদর্শন করা একটি স্থান। [৪] একে একটি অমুসলিম দেশে বিদ্যমান সবচেয়ে বড় মসজিদগুলোর একটি বলা হয়। [৪] [৫] মসজিদের প্রাথমিক মুদ্রণগুলো মোটামুটি সাধারন এবং নমনীয়, তবে নকশাটি খুব জটিল এবং সুচিন্তিত। এর নিচতলার আয়তন ৯৮৫ বর্গ মিটার এবং এতে ছয়টি শ্রেণীকক্ষ, একটি সম্মেলন কেন্দ্র, একটি গ্রন্থাগার, একটি রান্নাঘর, স্নানকক্ষ, তত্ত্বাবধায়কের জন্য আবাসন, মর্গ, প্রশাসনিক অফিস এবং ইমামের ঘর রয়েছে। প্রধান প্রার্থনা হল ভবনের দ্বিতীয় তলায় অবস্থিত। ছাদটি নয়টি শক্ত পিতলের ঝাড়বাতি দিয়ে তৈরি, যা প্রার্থনার জায়গায় প্রবেশ করার সময় লক্ষচ্যুত করা যাবে না। একটি বিশাল গম্বুজ থেকে একটি ঝাড়বাতি ঝুলানো হয়, যা অত্যন্ত উচ্চ অবস্থানে রয়েছে। পুরো মসজিদ জুড়ে দেয়ালগুলো আমদানীকৃত বিস্তৃত মার্বেল দিয়ে নির্মাণ করা হয়। [৫] নিচের স্তরে একটি নার্সারিসহ মহিলা প্রার্থনা হল অবস্থিত, যেখান থেকে মূল প্রার্থনা হলকে দেখা যায়। [৬] এই মসজিদের সবচেয়ে বেশি বিশেষত্ব হলো, এর অবস্থান। এটি অনেক পাহাড়ের মধ্যবর্তী এলাকায় অবস্থিত, যা মসজিদের সৌন্দর্যকে অনেক বেশি আলোকিত করে। সম্পূর্ণ শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত ইব্রাহিম-আল-ইব্রাহিম মসজিদটি জিব্রাল্টারে বসবাসকারী মুসলমানরা প্রতিদিন ব্যবহার করে এবং দিনের বেলায় এটি জনসাধারণের জন্য উন্মুক্ত থাকে।

কমপ্লেক্স[সম্পাদনা]

মসজিদ কমপ্লেক্সেও একটি বিদ্যালয়, গ্রন্থাগার এবং বক্তৃতা হল রয়েছে। জিব্রাল্টারের একমাত্র উদ্দেশ্য হিসেবে প্রায় ১০০০-এরও বেশি (জিব্রাল্টারের মোট জনসংখ্যার প্রায় ৪%) মুসলিমদের সেবা করার জন্য এই অঞ্চলে মসজিদটি নির্মান করা হয়। [৭] [৮]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. DiscoverGibraltar.com – Ibrahim-al-Ibrahim Mosque ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ২০১২-০৬-২৬ তারিখে
  2. McGuire, Kelly J.। "The Essential Gibraltar"। Lifted Magazine। ১৩ জুলাই ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২২ নভেম্বর ২০১০ 
  3. "Ibrahim-al-Ibrahim Mosque | Sightseeing | Gibraltar"www.inyourpocket.com (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-১২-০৯ 
  4. "Ibrahim-Al-Ibrahim Mosque | Attractions"www.lonelyplanet.com (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-১২-০৯ 
  5. "Ibrahim-al-Ibrahim Mosque | Welcome to Gibraltar"gibraltar.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-১২-০৯ 
  6. "Visit Gibraltar"Visit Gibraltar (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-১২-০৯ 
  7. "Census of Gibraltar 2001." (PDF)। সেপ্টেম্বর ২৭, ২০০৭ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। 
  8. "Gibraltar"The World Factbook (ইংরেজি ভাষায়)। Central Intelligence Agency। ২০২২-০৪-২৬।