আফতাব গুল

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
আফতাব গুল
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামআফতাব গুল খান
জন্ম (1946-03-31) ৩১ মার্চ ১৯৪৬ (বয়স ৭৫)
গুলজার খান, ব্রিটিশ ভারত
(বর্তমানে পাকিস্তান)
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনলেগ ব্রেক
ভূমিকাব্যাটসম্যান
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
টেস্ট অভিষেক
(ক্যাপ ৫৭)
২১ ফেব্রুয়ারি ১৯৬৯ বনাম ইংল্যান্ড
শেষ টেস্ট৮ জুলাই ১৯৭১ বনাম ইংল্যান্ড
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট এফসি
ম্যাচ সংখ্যা ১০১
রানের সংখ্যা ১৮২ ৬১৭৯
ব্যাটিং গড় ২২.৭৫ ৩৬.৭৭
১০০/৫০ -/- ১১/৪২
সর্বোচ্চ রান ৩৩ ১৪০
বল করেছে ৭৪৫
উইকেট - ১৪
বোলিং গড় - ৩৪.৫০
ইনিংসে ৫ উইকেট - -
ম্যাচে ১০ উইকেট - -
সেরা বোলিং - ২/২০
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ৩/- ৪৮/-
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো.কম, ১৭ অক্টোবর ২০২০

আফতাব গুল খান (উর্দু: آفتاب گل خان‎‎; জন্ম: ৩১ মার্চ, ১৯৪৬) তৎকালীন ব্রিটিশ ভারতের গুলজার খান এলাকায় জন্মগ্রহণকারী সাবেক পাকিস্তানি আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার। পাকিস্তান ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। ১৯৬০-এর দশকের শেষদিক থেকে শুরু করে ১৯৭০-এর দশকের সূচনালগ্ন পর্যন্ত সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্যে পাকিস্তানের পক্ষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করেছেন।

ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর পাকিস্তানি ক্রিকেটে লাহোর, পাঞ্জাব, পাঞ্জাব বিশ্ববিদ্যালয় ও সার্ভিস ইন্ডাস্ট্রিজ দলের প্রতিনিধিত্ব করেন। দলে তিনি মূলতঃ ডানহাতি ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলতেন। এছাড়াও, লেগ ব্রেক বোলিংয়ে পারদর্শী ছিলেন আফতাব গুল

প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেট[সম্পাদনা]

১৯৬৪-৬৫ মৌসুম থেকে ১৯৭৭-৭৮ মৌসুম পর্যন্ত আফতাব গুলের প্রথম-শ্রেণীর খেলোয়াড়ী জীবন চলমান ছিল। গুটিয়ে রাখা ডানহাতি উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান ছিলেন আফতাব গুল। প্রায়শঃই তিনি বিশ্বস্ত ও কার্যকর ব্যাটসম্যান হিসেবে নিজের পরিচয় দিতেন।

উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান আফতাব গুল ১৯৬৪-৬৫ মৌসুম থেকে ১৯৭৭-৭৮ মৌসুম পর্যন্ত পাকিস্তানের মাটিতে অনেকগুলো প্রথম-শ্রেণীর খেলায় অংশ নিয়েছেন। ১৯৬৮-৬৯ মৌসুমে প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটের প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডে অংশগ্রহণের কারণে জামিনে মুক্ত হয়ে খেলেন। ছাত্র নেতা ছিলেন তিনি। বলা হয়ে থাকে যে, পাকিস্তানি ক্রিকেট কর্মকর্তারা তাকে দলের বাইরে রেখে লাহোর টেস্ট চালাতে সাহস পাচ্ছিলেন না। ১৯৬৮-৬৯ মৌসুমে রাজনৈতিক অস্থিরতার মধ্যে তাকে শুরুতে টেস্ট দলে রাখা হয়েছিল। তবে, ছাত্রনেতা হওয়ায় ক্রিকেটের দিকে কম নজর দিয়েছিলেন।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট[সম্পাদনা]

সমগ্র খেলোয়াড়ী জীবনে ছয়টিমাত্র টেস্টে অংশগ্রহণ করেছেন আফতাব গুল। ২১ ফেব্রুয়ারি, ১৯৬৯ তারিখে লাহোরে সফরকারী ইংল্যান্ড দলের বিপক্ষে টেস্ট ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে তার। ৮ জুলাই, ১৯৭১ তারিখে লিডসে একই দলের বিপক্ষে সর্বশেষ টেস্টে অংশ নেন তিনি।

১৯৭১ সালে দলের সাথে ইংল্যান্ড গমন করেন। এ সফরে তিনি ঐ সফরে ৪১.১৬ গড়ে ১১৫৪ রান সংগ্রহ করেছিলেন। বার্মিংহামের এজবাস্টন ক্রিকেট গ্রাউন্ডে সিরিজের প্রথম টেস্টের প্রথম ওভারে অ্যালান ওয়ার্ডের বলে মাথায় আঘাতপ্রাপ্ত হন। এরফলে তাকে রিটায়ার হার্ট হতে হয়। এ আঘাতের পরদিন বিবিসিতে ব্রায়ান জনস্টন জনপ্রিয় মন্তব্য করেন। তিনি বলেন, ‘গুলের সবকিছুই ঠিক আছে। আজ সকালে চিকিৎসক তার মাথা দেখেছেন ও আঘাতের কোন চিহ্ন মাথায় খুঁজে পাননি।’ এছাড়াও, ১৯৭৪ সালে ইংল্যান্ড গমন করেছিলেন। এ সফরে কম সফলতা পান ও কোন টেস্টে তাকে খেলানো হয়নি।[১]

প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে বেশ সফলতার স্বাক্ষর রাখলে ক্রিকেটের বৃহৎ আসরে নিজেকে মেলে ধরতে পারেননি তিনি। ছয় টেস্টে অংশ নিয়ে তিনি মাত্র ৩৩ রানের সর্বোচ্চ ইনিংস খেলতে সমর্থ হয়েছিলেন।

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

পেশায় তিনি আইনজীবী। ২০১০ সালের শুরুতে ক্রিকেটার সালমান বাটকে পাকিস্তানের ক্রিকেটে পাতানো খেলার কেলেঙ্কারীতে সম্পৃক্ত থাকার কথা জানান।[২][৩]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Richards, Giles (৯ অক্টোবর ২০১০)। "Pakistan cricketer calls on Marxist in case for the defence"The Guardian (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২৯ ডিসেম্বর ২০১৭ 
  2. Dani, Bipin (৭ অক্টোবর ২০১০)। "Gul the right man to contest Butt's case"The Nation (ইংরেজি ভাষায়)। Lahore, Pakistan: Nawaiwaqt Group। সংগ্রহের তারিখ ২৯ ডিসেম্বর ২০১৭ 
  3. "Salman Butt hires lawyer of Indian origin"Cricbuzz (ইংরেজি ভাষায়)। Times InternetPTI। ১৯ এপ্রিল ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ ২৯ ডিসেম্বর ২০১৭ 

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]