স্বপ্না বর্মণ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
স্বপ্না বর্মণ
২০১৭ সালে ওড়িশায়
ব্যক্তিগত তথ্য
জাতীয়তাভারতীয়
জন্ম২৯ অক্টোবর ১৯৯৬[১]
জলপাইগুড়ি, পশ্চিমবঙ্গ
বাসস্থানজলপাইগুড়ি, পশ্চিমবঙ্গ
২৯ অগাস্ট ২০১৮তে হালনাগাদ

স্বপ্না বর্মণ (জন্ম ২৯ অক্টোবর ১৯৯৬) একজন ভারতীয় অ্যাথলেট। তিনি হেপটাথেলন ইভেন্টে অংশগ্রহণ করেন। ২০১৭ সালে, এশীয় অ্যাথলেটিক্স চ্যাম্পিয়নশিপে, হেপটাথেলন ইভেন্টে তিনি প্রথম স্থান লাভ করেন।[১] ২০১৮ সালে, জাকার্তা, এশিয়ান গেমসে হেপটাথেলন ইভেন্টে স্বর্ণ পদক জিতেছেন।[২]

প্রাথমিক জীবন[সম্পাদনা]

১৯৯৬ সালে, পশ্চিমবঙ্গের জলপাইগুড়িতে স্বপ্না জন্মগ্রহণ করেন। তার মা বাসনা বর্মণ একটি চা এস্টেটে কাজ করেন এবং তার পিতা, পঞ্চানন বর্মণ, একজন রিক্সা চালক ছিলেন এবং ২০১৩ সালে পক্ষাঘাতে পড়ার পর তিনি বিছানায়। ছোটোবেলা থেকেই অনটনের সংসারে বড় হতে হয়েছে। সঠিক এবং পরিমান মতন খাদ্য তিনি পাননি। [১] তার প্রতিটি পায়ে ছয়টি আঙ্গুল আছে [৩] এবং তার অস্বাভাবিক পায়ের জন্য তার পায়ে ব্যথা হত কারণ তিনি অতিরিক্ত চওড়া জুতো কেনার ক্ষমতা তার ছিল না। [৩] স্বপ্না তার পুরস্কারের অর্থ দিয়ে পারিবারিক খরচা চালাতেন এবং তার পরিবারকে নিয়ে একটি কংক্রিট দেয়াল ছাড়া বাড়ীতে বাস করেন। [৪] ২০১২ সালে তিনি অ্যাথলেটিকসে সাফল্যের স্বীকৃতি স্বরূপ ১৫০,০০০ টাকা বৃত্তি পান। [৩]

ক্যারিয়ার[সম্পাদনা]

২০১৪ এশিয়ান গেমসে পাঁচ নম্বরে শেষ করেছিলেন। ২০১৭ সালে, এশিয়ান অ্যাথলেটিক্স চ্যাম্পিয়নশিপের চূড়ান্ত মহিলাদের হেপটলথন ইভেন্টের ৮০০ মিটারে, তিনি পড়ে যান এবং অচেতন হয়ে পড়েন, তার অসীম চেষ্টার ফল সরূপ তিনিই স্বর্ণ পদক লাভ করেন।[১] পরে, সে বছরে, তিনি ভুবনেশ্বরে এশিয়ান ট্র্যাক এন্ড ফিল্ড মিটে স্বর্ণ পদক জিতে নেন এবং রাজ্য মিটে হাইজাম্পের রেকর্ড তারই ঝুলিতে। ২০১৮, জাকার্তা এশিয়ান গেমসে, মহিলাদের হেপটলথন ইভেন্টে স্বর্ণ পদক জিতে যেন তিনি তার স্বপ্নের অনেকটা পূরণ করতে পারলেন।[২]

তিনি বর্তমানে কলকাতার স্পোর্টস অথরিটি অফ ইন্ডিয়া ক্যাম্পাসে প্রশিক্ষণ করেন।

সাফল্য[সম্পাদনা]

এশিয়ান অ্যাথলেটিক্স চ্যাম্পিয়নশিপস

বছর স্থান ইভেন্ট পয়েন্টস ফল
২০১৭ কলিঙ্গ স্টেডিয়াম, ভুবনেশ্বর হেপটাথেলন ৫৯৪২ স্বর্ণ পদক

ফেডারেশন কাপ

বছর স্থান ইভেন্ট পয়েন্টস ফল
২০১৭ জেএলএন স্টেডিয়াম, নিউ দিল্লি হেপটাথেলন ৫৮৯৭ স্বর্ণ পদক

এশিয়ান গেমস

বছর স্থান ইভেন্ট পয়েন্টস ফল
২০১৪ ইনচেওন এশিয়াড ম্যান স্টেডিয়াম হেপটাথেলন ৫১৭৮ পঞ্চম
২০১৮ গিলোরা বং কর্ণো স্টেডিয়াম হেপটাথেলন ৬০২৬ স্বর্ণ পদক

তথ্য উৎস[সম্পাদনা]

  1. "Could never afford nutritious food required by athlete, Asian gold-medallist Swapna Barman's father"The Indian Express (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৭-০৭-১১। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-০৭-১৭ 
  2. "Asian Games 2018: Swapna Barman wins India's first ever gold in heptathlon"India Today। ২০১৮-০৮-২৯। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৮-২৯ 
  3. "Swapna Barman Receives GSI Sports Scholarship - Company CSR | Largest CSR News Network - Social Responsibilities Give Better World"Company CSR | Largest CSR News Network (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৬-০১-২৫। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-০৭-১৭ 
  4. "Swapna Barman on comeback wins gold, pledges for a job to run her ailing family"www.oneindia.com (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-০৭-১৭ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

https://www.iaaf.org/athletes/india/swapna-barman-287791