সৈয়দ মোহাম্মদ জোবায়ের

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

সৈয়দ মোহাম্মদ জোবায়ের জন্ম ১লা মার্চ ১৯৫৫ মৃত্যু ২৪শে মার্চ ২০০৯। সর্বোচ্চ​ সরকারী কর্মকর্তা[১] ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব। পৈতৃক নিবাস সিলেটের হবিগঞ্জ জেলার, লস্করপুর ইউনিয়নের ঐতিহাসিক মশাজান গ্রামের ঐতিহ্যবাহী সৈয়দ হাবেলী। সৈয়দ জোবায়ের ছিলেন কুমিল্লা জেলার ভূতপূর্ব জেলাপ্রশাসক সৈয়দ আব্দুল বারী (ই,পি,সি,এস)[১] সাহেবের জ্যেষ্ঠ সন্তান।[২] উল্যেখ্য যে কুমিল্লা জেলাপ্রশাসনের এস, এ বারী কনভেনশন হলটি অদ্যাবধি যার স্মৃতি ধারন করে আছে।[৩]

শিক্ষা[সম্পাদনা]

সৈয়দ মোহাম্মদ জোবায়ের ১৯৭৪ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইংরেজি ভাষা ও সাহিত্যে বি,এ (অনার্স) এবং একই বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ১৯৭৫ সালে এম,এ ডিগ্রি লাভ করেন। ১৯৮২ সালে নেদারল্যান্ডসের ডেলফট বিশ্ববিদ্যালয় থেকে উন্নয়ন অর্থনীতি বিষয়ে পোস্ট গ্র্যাজুয়েট অর্জন করেন। এ ছাড়াও তিনি যুক্তরাষ্ট্র, জাপান, অস্ট্রেলিয়াডেনমার্ক থেকে টেলিযোগাযোগ, প্রাইভেতাইজেশন ও ডি-রেজুলেশন, ভুমিকম্প ও সুনামি প্রতিরোধ, বিশ্ববাণিজ্য আইন, প্রকল্প পরিকল্পনা, পরিবীক্ষণ ও মূল্যায়ন বিষয়ে বিভিন্ন মেয়াদে উচ্চতর প্রশিক্ষণ গ্রহণ করেন।[৪]

পেশা[সম্পাদনা]

সৈয়দ মোহাম্মদ জোবায়ের ১৯৭৯ সালে বি,সি,এস প্রশাসন ক্যাডারে যোগদান করে বিভিন্ন সময়ে শিল্প, স্বরাষ্ট্র, ডাক ও টেলিযোগাযোগ, বাণিজ্য, অর্থ, পানিসম্পদ, দুর্যোগ ব্যাবস্থাপনা সহ বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পালন করেন। তা ছাড়াও তিনি বিভিন্ন সময় বিভিন্ন দেশে বাংলাদেশ সরকারের কূটনৈতিক দায়িত্বও পালন করেন।[৫] সবশেষে বেসামরিক বিমান ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের সচিব অবস্থায় তাঁর মৃত্যু হয়।[৬] [৭] [৮]

সংস্কৃতি[সম্পাদনা]

শিল্প, সাহিত্য, সংস্কৃতি তথা চিত্রকলা, সঙ্গীত, আবৃত্তি ইত্যাদির সাথে ছোটবেলা থেকেই ওতপ্রোত ভাবে সংশ্লিষ্ট ছিলেন। তৎকালে তিনি একজন শ্রুতানন্দিত আবৃত্তি শিল্পী হিসাবে জনপ্রিয় ছিলেন, তা ছারাও ছাত্রজীবন থেকেই তিনি রেডিও ও টেলিভিশনের একজন অনিয়মিত সঙ্গীত শিল্পী এবং দীর্ঘকাল যাবত নিয়মিত ইংরেজি খবর পাঠক হিসাবে সারা দেশের দর্শক-শ্রুতার কাছে পরিচিত মুখ ছিলেন।তিনি বাংলাদেশ টেলিভিশনের ইংরেজি সংবাদ পাঠক এবং রবীন্দ্র সংগীত শিল্পী ছিলেন। তার একাধিক গানের অ্যালবাম প্রকাশিত হয়েছে।[৭] [৯]

তথ্যসুত্র[সম্পাদনা]

  1. http://www.dpp.gov.bd/upload_file/gazettes/041-042-Law-1982.pdf
  2. ছাপাকৃত মশাজান সৈয়দ হাবেলীর হালনাগাদ নসবনামার পুস্তক। প্রকাশকাল জুন ২০০১।
  3. প্রসঙ্গ বিচিত্রা (প্রকাশিত প্রবন্ধের গ্রন্থসংকলন) চতুর্থ পল্লব, লেখকঃ সৈয়দ মস্তফা কামাল। প্রকাশকাল ফেব্রুয়ারি ২০১০।
  4. ৫. প্রসঙ্গ বিচিত্রা (প্রকাশিত প্রবন্ধের গ্রন্থসংকলন) চতুর্থ পল্লব, লেখকঃ সৈয়দ মস্তফা কামাল। প্রকাশকাল ফেব্রুয়ারি ২০১০।
  5. ৬. প্রসঙ্গ বিচিত্রা (প্রকাশিত প্রবন্ধের গ্রন্থসংকলন) চতুর্থ পল্লব, লেখকঃ সৈয়দ মস্তফা কামাল। প্রকাশকাল ফেব্রুয়ারি ২০১০।
  6. https://mocat.gov.bd/site/page/1d2f9526-2995-4ca3-b945-1eadd8f4dbd0/%E0%A6%AA%E0%A7%8D%E0%A6%B0%E0%A6%BE%E0%A6%95%E0%A7%8D%E0%A6%A4%E0%A6%A8-%E0%A6%B8%E0%A6%9A%E0%A6%BF%E0%A6%AC%E0%A6%97%E0%A6%A3?fbclid=IwAR1qgKQnGaeSxNreLoOa9JdwEICMF3PlZCfYtW3VkBYZqMJFPVagtH3PUN4
  7. https://m.bdnews24.com/amp/bn/detail/bangladesh/431852?fbclid=IwAR3dg3W7PPBCVR4vzXfAHt_xR5DM005PlHap_lAG3DEIBkmUXihtRGx7QYE
  8. https://bangla.bdnews24.com/bangladesh/article431858.bdnews
  9. ৭. প্রসঙ্গ বিচিত্রা (প্রকাশিত প্রবন্ধের গ্রন্থসংকলন) চতুর্থ পল্লব, লেখকঃ সৈয়দ মস্তফা কামাল। প্রকাশকাল ফেব্রুয়ারি ২০১০।