সৈয়দ এ. বি. মাহমুদ হোসেন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
মাননীয় প্রধান বিচারপতি
সৈয়দ এ. বি. মাহমুদ হোসেন
সৈয়দ এ. বি. মাহমুদ হোসেন.jpg
বাংলাদেশের প্রধান বিচারপতি
কাজের মেয়াদ
১৮ নভেম্বর ১৯৭৫ – ৩১ জানুয়ারি ১৯৭৮
পূর্বসূরীবিচারপতি আবু সাদাত মোহাম্মদ সায়েম
উত্তরসূরীবিচারপতি কামালউদ্দিন হোসেন
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্ম১৯১৭
লস্করপুর ইউনিয়ন, হবিগঞ্জ, পূর্ব বাংলা (বর্তমান: বাংলাদেশ)
মৃত্যু২ আগস্ট ১৯৮১
ঢাকা, বাংলাদেশ
জাতীয়তাবাংলাদেশী
বাসস্থানঢাকা
পেশাআইন
জীবিকাআইনবিদ
ধর্মইসলাম

বিচারপতি সৈয়দ এ. বি. মাহমুদ হোসেন (১৯১৭ - ২ আগস্ট ১৯৮১)[১] বাংলাদেশের একজন প্রখ্যাত আইনবিদ এবং ২য় প্রধান বিচারপতি[২]

জন্ম ও পারিবারিক পরিচিতি[সম্পাদনা]

সৈয়দ এ. বি. মাহমুদ হোসেন ১৯১৭ সালে ব্রিটিশ ভারতের হবিগঞ্জ জেলার লস্করপুর ইউনিয়নের এক সম্ভ্রান্ত জমিদার পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতার নাম সৈয়দ আব্দুল মোতাকাব্বির আবুল হোসেন।[২]

শিক্ষাজীবন[সম্পাদনা]

তিনি শায়েস্তাগঞ্জ হাইস্কুল, সিলেট এম সি কলেজ, কলকাতা ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে লেখাপড়া করেন।[৩]

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

ঢাকা দারুল উলুম আহসানিয়া মাদ্রাসার প্রধান হিসাবে কর্মজীবন শুরু করেন। পরে ১৯৩০ সালে হবিগঞ্জ বারে যোগদানের মাধ্যমে জড়িত হয়ে পড়েন আইন পেশায়। ১৯৪৩-৪৮খ্রি. পর্যন্ত এপিপি’র দায়িত্ব পালন করেন। তিনি ১৯৪৪-৪৭ সালে আসাম প্রভিন্সিয়াল মুসলিম লীগের কাউন্সিলার, ১৯৪৫-৪৭ সালে নিখিল ভারত মুসলিম লীগের কাউন্সিলর, ১৯৪৭-৫৫ সালে নিখিল পাকিস্তান মুসলিম লীগের কাউন্সিলর ছাড়াও পাকিস্তান ও সিলেট রেফারেন্ডাম আন্দোলনে বিশেষ ভূমিকা রাখেন। কর্ম জীবনে তিনি ১৯৫১ সালে ফেডারেল কোর্ট অব পাকিস্তানের এটর্নি, ১৯৫৮ সালে পাকিস্তান সুপ্রীম কোর্টের সিনিয়র এডভোকেট পরে পূর্ব পাকিস্তান হাইকোর্টের ভারপ্রাপ্ত এডভোকেট জেনারেল, ১৯৬৫ সালে তিনি পূর্ব পাকিস্তান হাইকোর্টের বিচারপতি হিসেবে যোগদান করেন। বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার পর তিনি বাংলাদেশ সুপ্রীম কোর্টের এপিলেট ডিভিশনের বিচারপতি নিযুক্ত হন।[৩]

বিচারপতি আবু সাদাত মোহাম্মদ সায়েমের অবসর গ্রহণের প্রেক্ষিতে বাংলাদেশের মহামান্য রাষ্ট্রপতি বাংলাদেশের ২য় প্রধান বিচারপতি হিসাবে সৈয়দ এ. বি. মাহমুদ হোসেনকে নিয়োগ প্রদান করেন এবং তিনি ১৯৭৫ সালের ১৮ নভেম্বর তারিখে প্রধান বিচারপতি হিসাবে শপথ গ্রহণ করেন ও ১৯৭৮ সালের ৩১ জানুয়ারি তারিখে উক্ত পদ হতে অবসর গ্রহণ করেন।[১]

রচনাবলী[সম্পাদনা]

পুরস্কার ও সম্মাননা[সম্পাদনা]

মৃত্যু[সম্পাদনা]

বিচারপতি মাহমুদ ১৯৮১ সালের ২ আগস্ট বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকার মৃত্যুবরণ করেন।[৪][৫]

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "সাবেক প্রধান বিচারপতি সৈয়দ এবি মাহমুদ হোসেনের মৃত্যুবার্ষিকী"। ৮ জুলাই ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৮ জুলাই ২০১৫ 
  2. "তরফ অঞ্চলের সাহিত্যিক সৈয়দ আবুল হোসেন-এর মৃত্যুবার্ষিকী আজ"। ১৪ জুলাই ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৮ জুলাই ২০১৫ 
  3. "হবিগঞ্জের আলোকিত সন্তানেরা"habiganjinfo.com। ১১ নভেম্বর ২০১৩। ১ সেপ্টেম্বর ২০১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১ সেপ্টে ২০১৯ 
  4. বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের মৃত্যুবার্ষিকী আজ।
  5. "সৈয়দ এ বি মাহমুদ হোসেন-এর মৃত্যুবার্ষিকী"। ৯ জুলাই ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৮ জুলাই ২০১৫ 

বহি:সংযোগ[সম্পাদনা]