সেন্ট্রাল ব্যুরো অফ ইনভেস্টিগেশন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
সেন্ট্রাল ব্যুরো অফ ইনভেস্টিগেশন
Cbi logo.svg
সিবিআই এর প্রতীক চিন্হ
সংস্থার রূপরেখা
গঠিত১৯৪১ খ্রিস্টাব্দে এক বিশেষ পুলিশ প্রতিষ্ঠান হিসাবে স্থাপিত হয়
অধিক্ষেত্রভারত সরকার
সদর দপ্তরনতুন দিল্লি,  ভারত
নীতিবাক্যশ্রমশীলতা, নিরপেক্ষতা, সততা
কর্মী
অনুমোদন: ৬৫৯০
প্রকৃত: ৫৬৬৬
কর্মশূন্যহীন: ৯২৪ (১৪%)
৩১ ডিসেম্বর ২০১১ অনুযায়ী
বার্ষিক বাজেট৬৯৫.৬২ কোটি (US$৯৬.৮ মিলিয়ন) (FY2017-18)
সংস্থা নির্বাহী
  • ঋষি কুমার শুক্লা[১]
মূল সংস্থাভারতের সুপ্রিম কোর্টের ব্যক্তিগত মন্ত্রক, জনগনের অভিযোগ ও পেনশন মন্ত্রণালয়
ওয়েবসাইটcbi.nic.in

সেন্ট্রাল ব্যুরো অফ ইনভেস্টিগেশন বা কেন্দ্ৰীয় অনুসন্ধান সংস্থা(সিবিআই) ভারতের একটি গোয়েন্দা এবং নিরাপত্তা সংস্থা যা একযোগে দেশের প্রধানমন্ত্রী ফেডারেল আইন প্রয়োগকারী সংস্থা হিসেবে কাজ করে। এটা ভারত সরকারের আওতাভুক্ত একটি সংস্থা। এই সংস্থা কৰ্মচারী, জন অভিযোগ ও পেনসন মন্ত্ৰণালয়ের অধীন। এই সংস্থা দেশের বহু অৰ্থনৈতিক অপরাধ, বিশেষ অপরাধ, দুৰ্নীতি ও উচ্চ পৰ্যায়ের অপরাধ অনুসন্ধানের জন্য বিখ্যাত।

কেন্দ্ৰীয় অনুসন্ধান সংস্থার মুখ্য কাৰ্যালয় নতুন দিল্লীর জওহরলাল নেহরু ষ্টেডিয়ামে অবস্থিত ।এর বৰ্তমান সঞ্চালক প্ৰধান ঋষি কুমার শুক্লা।

গঠন[সম্পাদনা]

কেন্দ্ৰীয় অনুসন্ধান সংস্থার প্রধানকে সঞ্চালক প্ৰধান বলা হয়। তার একজন ভারতীয় পুলিশ সেবা অফিসার ও এর সঞ্চালক প্ৰধান হবার যোগ্যতা থাকা বাঞ্চনীয়। এর সঞ্চালক প্ৰধান দিল্লির বিশেষ পুলিশ সংস্থাপন (ডিএসপিই) আইন ১৯৪৬ এর আধারে দুবছর পরে চয়ন করা হয়।এর বাকী অফিসাররা ভারতীয় রাজস্ব সেবাভারতীয় পুলিশ সেবা থেকে নেয়া হয়। অন্যান্য পদ সমূহ হল : বিশেষ সঞ্চালক, অতিরিক্ত সঞ্চালক, যুগ্ম সঞ্চালক, উপ আরক্ষী প্ৰধান, আরক্ষী অধীক্ষক, অতিরিক্ত আরক্ষী অধীক্ষক, উপ আরক্ষী অধীক্ষক, পরিদৰ্শক, উপ পরিদৰ্শক, সহযোগী উপ পরিদৰ্শক, মুখ্য কনষ্টেবল ও কনষ্টেবল। এই পদ সমূহ কৰ্মচারী চয়ন আয়োগ অথবা পুলিশ,রাজস্ব‌ ও সীমা শুল্ক বিভাগ দ্বা‌রা পূরণ করা হয়।

দণ্ডাজ্ঞা হার[সম্পাদনা]

কেন্দ্ৰীয় অনুসন্ধান সংস্থার দণ্ডাজ্ঞার হার উচ্চ :

সন দণ্ডাজ্ঞার হার
২০১১ ৬৭%[২]
২০১০ ৭০.৮%[৩]
২০০৯ প্ৰযোজ্য নয়
২০০৮ ৬৬.২%[৪]
২০০৭ ৬৭.৭%[৫]

তথ্য সূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Rishi Kumar Shukla appointed as New CBI Director", Times of India, ২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ 
  2. "cbi_annual_report_2011" (PDF)। Central Bureau of Investigation। পৃষ্ঠা 107। ৩ মে ২০১২ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১০ সেপ্টেম্বর ২০১২ 
  3. "CBI annual report 2010" (PDF)। cbi.gov.in। ২১ এপ্রিল ২০১২ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৮ ডিসেম্বর ২০১৯ 
  4. "CBI annual report 2008" (PDF)। cbi.gov.in। ২ জুলাই ২০১০ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৮ ডিসেম্বর ২০১৯ 
  5. "CBI annual report 2007" (PDF)। cbi.gov.in। ১ ডিসেম্বর ২০০৮ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৮ ডিসেম্বর ২০১৯ 

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বাহ্যিক সংযোগ[সম্পাদনা]