সুলতানুল কবির চৌধুরী

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
সুলতানুল কবির চৌধুরী
সুলতানুল কবির চৌধুরী.jpg
চট্টগ্রাম-১৫ আসন আসনের
সংসদ সদস্য
কাজের মেয়াদ
৫ মার্চ ১৯৯১ – ২৪ নভেম্বর ১৯৯৫
পূর্বসূরীমাহমুদুল ইসলাম চৌধুরী
উত্তরসূরীজাফরুল ইসলাম চৌধুরী
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্মআনু. ১৯৪৬
মৃত্যু৩০ জুন ২০১৪ (বয়স ৬৮)
রাজনৈতিক দলবাংলাদেশ আওয়ামী লীগ

সুলতানুল কবির চৌধুরী (আনু. ১৯৪৬ – ৩০ জুন ২০১৪) বাংলাদেশের চট্টগ্রাম জেলার একজন মুক্তিযোদ্ধা, আইনজীবী ও রাজনীতিবিদ ছিলেন যিনি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের রাজনীতির সাথে যুক্ত ছিলেন।[১] তিনি একজন সাংসদ ছিলেন।

জীবনী[সম্পাদনা]

সুলতানুল কবির চৌধুরী ১৯৬৯ সালে চট্টগ্রাম সিটি কলেজ ছাত্র সংসদের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে নির্বাচিত হয়েছিলেন। তিনি ঊনসত্তরের গণঅভ্যুত্থানে অংশগ্রহণ করেছেন। ১৯৭১ সালে তিনি বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধে অংশগ্রহণ করেন।[২]

সুলতানুল কবির চৌধুরী ১৯৭২ সালে যুবলীগের চট্টগ্রাম শাখার সাধারণ সম্পাদক হিসেবে নিযুক্ত হন। তিনি শেখ মুজিবুর রহমানের হত্যাকাণ্ড সংঘটিত হবার পর তাকে গ্রেফতার করা হয়েছিল।[২] ছয় মাস জেল খাটার পর তিনি মুক্তি পান।

সুলতানুল কবির চৌধুরী ১৯৯১ সালে চট্টগ্রাম-১৫ আসন থেকে সাংসদ হিসেবে নির্বাচিত হয়েছিলেন।[৩] ১৯৯৯ সালে তিনি যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। তিনি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের চট্টগ্রাম জেলা শাখার সিনিয়র সহসভাপতি হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছেন।

সুলতানুল কবির চৌধুরী ২০১৪ সালের ৩০ জুন ৬৮ বছর বয়সে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেন।[৪][৫]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "আওয়ামী লীগের টেনশন জাপা : কোন্দলে বিএনপি"আলোকিত বাংলাদেশ। ৭ জুন ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ১৩ জানুয়ারি ২০২০ 
  2. "শোকে স্তব্ধ বাঁশখালী"কালের কণ্ঠ। ১ জুলাই ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ ১৩ জানুয়ারি ২০২০ 
  3. "List of 5th Parliament Members" (PDF)জাতীয় সংসদ। সংগ্রহের তারিখ ৯ এপ্রিল ২০১৮ 
  4. "সাবেক সংসদ সদস্য সুলতানুল কবির আর নেই"বাংলানিউজ২৪.কম। ৩০ জুন ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ ১৩ জানুয়ারি ২০২০ 
  5. "সাবেক সংসদ সদস্য সুলতানুল কবিরের ইন্তেকাল"সমকাল। ১ জুলাই ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ ১৩ জানুয়ারি ২০২০