সুপারঅক্সাইড

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
সুপারঅক্সাইডের লুইস ইলেকট্রন বিন্যাস। প্রতিটি অক্সিজেন অণুর সর্ববহিঃস্থ স্তরের ছয়টি ইলেকট্রন কালো রঙে দেখানো হয়েছে; একজোড়া ইলেকট্রন দুইটি পরমাণু ভাগাভাগি করেছে (মাঝে); মুক্তজোড় ইলেকট্রনটি বাম দিকে উপরে দেখানো হয়েছে; এবং একটি ঋণাত্মক আধান, যা বাকি ইলেকট্রনটি নির্দেশ করে, লাল রঙে দেখানো হয়েছে।

সুপারঅক্সাইড একটি রাসায়নিক মূলক যার মাঝে সুপারঅক্সাইড অ্যানায়ন রয়েছে। এর রাসায়নিক সংকেত O
2
[১] অ্যানায়নটির ইউপ্যাক নাম ডাইঅক্সাইড(১−)[২]।এর আণবিক ওজন ৩১.৯৯৮ গ্রাম/মোল[৩]

সক্রিয় অক্সিজেন অ্যানায়ন সুপারঅক্সাইড প্রকৃতিতে বিশেষভাবে গুরুত্বপূর্ণ একটি যৌগ কারণ এটি ডাইঅক্সিজেন (O2) অণুর একটি ইলেকট্রন বিজারণের ফলে উৎপন্ন হয় যা প্রকৃতিতে ব্যাপকহারে ঘটে থাকে।[৪]

বন্ধন গঠন এবং আকৃতি[সম্পাদনা]

সুপারঅক্সাইড দ্বারা গঠিত যৌগসমূহে অক্সিজেনের জারণ সংখ্যা হলো −12। যেহেতু অক্সিজেন একটি দ্বিপরমাণুক অণু যাতে দুইটি মুক্তজোড় ইলেকট্রন রয়েছে, তাই দ্বিতীয় একটি ইলেকট্রন এর দুইটি পরমাণুর ডিজেনারেট অরবিটালদ্বয়ের একটিতে একটি মুক্তজোড় ইলেক্ট্রনের সাথে জোড়া গঠন করে, ফলে একটি ঋণাত্মক আধানযুক্ত আয়ন সৃষ্টি হয় যাতে অবশিষ্ট একটি মুক্তজোড় ইলেকট্রন বিদ্যমান থাকে এবং এর নেট আধান হয় ( -১)। ডাইঅক্সিজেন (O2) এবং সুপারঅক্সাইড আয়ন উভয়েই মুক্ত মূলক যারা প্যারাচৌম্বকীয় ধর্ম প্রদর্শন করে।[৫]

ডাইঅক্সিজেনের যৌগসমূহের নির্দিষ্ট O–O বন্ধন দূরত্ব রয়েছে যা O–O বন্ধনের বন্ধন ক্রম তথা বন্ধন সংখ্যা নির্দেশ করে

ডাইঅক্সিজেনের যৌগসমূহ নাম O–O বন্ধন দূরত্ব (Å) O–O বন্ধন ক্রম
O+
2
ডাইঅক্সিজিনাইল ক্যাটায়ন ১.১২ ২.৫
O2 ডাইঅক্সিজেন ১.২১
O
2
সুপারঅক্সাইড ১.২৮ ১.৫[৬]
O2−
2
পারঅক্সাইড ১.৪৯

যৌগসমূহ[সম্পাদনা]

জীববিজ্ঞান[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Hayyan M., Hashim M.A., AlNashef I.M., Superoxide Ion: Generation and Chemical Implications, Chem. Rev., 2016, 116 (5), pp 3029–3085. DOI: 10.1021/acs.chemrev.5b00407
  2. [১] Garry R. Buettner & Freya Q. Schafer, Free Radical Nomenclature, The University of Iowa
  3. কেমিস্ট্রি ডাটাবেজ, পাবকেম
  4. Sawyer, D. T. Superoxide Chemistry, McGraw-Hill, ডিওআই:10.1036/1097-8542.669650
  5. Valko, M., Leibfritz, D., Moncol, J., Cronin, M. T. D., Mazur, M., Telser, J. (আগস্ট ২০০৭)। "Free radicals and antioxidants in normal physiological functions and human disease"। International Journal of Biochemistry & Cell Biology39 (1): 44–84। doi:10.1016/j.biocel.2006.07.001PMID 16978905 
  6. Abrahams, S. C.; Kalnajs, J. (১৯৫৫)। "The Crystal Structure of α-Potassium Superoxide"। Acta Crystallographica8: 503–506। doi:10.1107/S0365110X55001540