জারণ সংখ্যা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান

জারণ বিজারণ[সম্পাদনা]

রাসায়নিক বিক্রিয়ায় যদি কোনো রাসায়নিক সত্তা (অণু, পরমাণু বা আয়নের) ইলেকট্রন আদান-প্রদান ঘটে তাহলে সেই বিক্রিয়াকে বলা হয় জারণ বিজারণ বিক্রিয়া। ।

জারণ সংখ্যা[সম্পাদনা]

যৌগ গঠনের সময় কোনো মৌল যত সংখ্যক ইলেকট্রন বর্জন করে ধনাত্মক আয়ন উৎপন্ন করে বা যত সংখ্যক ইলেকট্রন গ্রহণ করে ঋণাত্বক আয়ন উৎপন্ন করে তাকে মৌলের জারণ সংখ্যা বলে। নিরপেক্ষ বা মুক্ত বা পরমাণু অবস্থায় মৌলের জারণ সংখ্যা শূন্য(০) ধরা হয়। ইলেকট্রন গ্রহণ করে ঋণাত্মক আয়নে মৌলের জারণ সংখ্যাকে ঋণাত্মক জারণ সংখ্যা এবং ইলেকট্রন গ্রহণ করে বর্জন করেধনাত্মক আয়নে পরিণত হলে একে ধনাত্মক জারণ সংখ্যা বলে।
ধাতু সমুহের জারণ সংখা ধনাত্বক এবং অধাতু সমু্হের জারণ সংখা ঋণাত্বক এবং যৌগ মূলক সমুহের জারণ সংখ্যা তাদের আধান অনুসারে হয়। যৌগ ভেদে অর্থাৎ বিভিন্ন যৌগে একই মৌলের জারণ সংখ্যা ভিন্ন ভিন্ন হতে পারে। যেমন: HCl অণুতে H-এর জারণ সংখ্যা +1 আবার H2 অণুতে এর জারণ সংখ্যা ০। একই ভাবে,HCl অণুতে Cl-এর জারণ সংখ্যা -1 এবং Cl2 অণুতে জারণ সংখ্যা ০। [১]

জারণ সংখ্যা নির্ণয়[সম্পাদনা]

মৌলের জারণ সংখ্যা মূলত তার ইলেকট্রন বিন্যাসের সাথে সম্পর্কিত। একটি যৌগে কোনো মৌলের জারণ সংখ্যা, যৌগে বিদ্যমান অন্যান্য মৌলের জারণ সংখ্যার উপর নির্ভরশীল। কোনো যৌগে একটি মৌলের জারণ সংখ্যা নির্নয় করতে হলে যৌগে বিদ্যমান অন্যান্য মৌলের জারণ সংখ্যা জানতে হয়।ক্ষার ধাতু সমূহের জারণ সংখ্যা ১।

কতিপয় মৌল, আয়ন এবং যৌগের প্রমাণ জারণ সংখ্যা[২][সম্পাদনা]

জারণ সংখ্যার নিয়ম যৌগের সংকেত মৌল ও জারণ সংখ্যা
ধাতু সমুহের জারণ সংখা ধনাত্বক এবং অধাতু সমু্হের জারণ সংখা ঋণাত্বক NaCl Na= +1
Cl=-1
নিরপেক্ষ বা মুক্ত বা পরমাণু অবস্থায় মৌলের জারণ সংখ্যা শূন্য(০) ধরা হয় Fe, H2 Fe= 0
H=0
মোট=0
নিরপেক্ষ যৌগে পরমাণুর মোট জারণ সংখ্যা শূন্য হয় H2O H=+1, O=-1
আধান বিশিষ্ট আয়নে পরমাণুর মোট জারণ সংখ্যা তায আধান সংখ্যার সমান হয় SO2-4 SO2-4=-2
ক্ষার ধাতু সমুহের জারণ সংখ্যা হয় KCl,K2 CO3 K=+1
মৃৎক্ষার ধাতু সমুহের জারণ সংখ্যা হয় CaO, MgSo4 Ca=+2
Mg=+2
ধাতব হ্যালাইডে হ্যালোজেনের জারণ সংখ্যা হয় MgCl2, LiCl Cl=-1
অধিকাংশ যৌগে হাইড্রোজেনের জারণ সংখ্যা ১ কিন্তু ধাতব হাইড্রাইডে হাইড্রোজেনের জারণ সংখ্যা -১। NH3
LiAlH4
H=+1
H=-1
অধিকাংশ যৌগে অক্সিজেনের জারণ সংখ্যা -2 ,
কিন্তু পার অক্সাইডে অক্সিজেনের জারণ সংখ্যা -1 এবং
সুপার অক্সাইডে অক্সিজেনের জারণ সংখ্যা -½
K2O, CaO
K2O2,H2O2
NaO2, KO2
O=-2
O=-1
O=-½

তথ্যসূত্র:

  1. মাধ্যমিক রসায়ন; পৃষ্ঠা -৯০। জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড, ঢাকা কর্তৃক প্রকাশিত। সংগ্রহের তারিখ: ২৬ অক্টোবর ২০১৫।
  2. IUPAC Gold Book আই.ইউ.পি.এসি জারণ সংখ্যা