শ্রীলঙ্কা সেনাবাহিনী নারী শাখা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
শ্রীলঙ্কা সেনাবাহিনী নারী শাখা
শ্রীলঙ্কা সেনাবাহিনীর নারী সদস্যদের কুচকাওয়াজ.jpg
সক্রিয়১ সেপ্টেম্বর ১৯৭৯ – বর্তমান
দেশশ্রীলঙ্কা
শাখাশ্রীলঙ্কা সেনাবাহিনী
ভূমিকাযুদ্ধ সেবা/যুদ্ধ সাহায্য
আকার৭টি ইউনিট
গ্যারিসন/সদরদপ্তরকলম্বো
বার্ষিকীসমূহ১ সেপ্টেম্বর, ১৭ নভেম্বর
যুদ্ধসমূহশ্রীলংকার গৃহযুদ্ধ
কমান্ডার
রেজিমেন্ট কেন্দ্রের অধিনায়কব্রিগেডিয়ার পি এ কালুয়ারাচ্চি
কর্নেল সেনানায়কব্রিগেডিয়ার ডি. টি. এন. মুনাসিংহ (২০১৬)
উল্লেখযোগ্য
কমান্ডার
লেফটেন্যান্ট কর্নেল কুমুদিনী উইরাছেকারা

শ্রীলঙ্কা সেনাবাহিনী নারী শাখা (শ্রীলঙ্কা আর্মি ওমেন্স কোর বা সংক্ষেপে এসএলএডব্লিউসি) শ্রীলঙ্কা সেনাবাহিনীর একটি কোর (শাখা) যেটি নারীদের দ্বারা গঠিত, এ কোরের সদস্যদের কাজ যুদ্ধক্ষেত্রে সাহায্য করা অর্থাৎ পরোক্ষভাবে যুদ্ধে জড়ানো, প্রত্যক্ষভাবে নয়।[১][২][৩][৪][৫]

১৯৭৯ সালের ১ সেপ্টেম্বর সেনাপ্রধান জেনারেল জে. ই. ডি. পেরেরার স্বপ্নের প্রতিফলন হিসেবে 'শ্রীলঙ্কা সেনাবাহিনী নারী শাখা' কোরটি গড়ে ওঠে। এই কোরে দুইটি নিয়মিত ব্যাটেলিয়ন ও পাঁচটি সংরক্ষিত ব্যাটেলিয়ন রয়েছে। এই কোর বানানোর উদ্দেশ্য হচ্ছে পুরুষদেরকে টেলিফোন অপারেটর, কম্পিউটার অপারেটর, নার্স-করণিক দায়িত্ব থেকে দূরে রাখা অর্থাৎ পুরুষদেরকে সম্মুখ সমরের ক্ষেত্রে রেখে নারীদেরকে অসমর-কাজে নিয়োজিত রাখাই হচ্ছে এ শাখার উদ্দেশ্য। লেফটেন্যান্ট কর্নেল এ. ডব্লিউ. থাম্বিরাজা ছিলেন ১ম নিয়মিত ব্যাটেলিয়নের প্রথম অধিনায়ক।

যুদ্ধ ক্ষেত্রের চাহিদা মিটানোর লক্ষ্যে ১৯৯৬ সালের ১ জানুয়ারী অনুরাধাপুরের রণসেবাপুরে ২য় সংরক্ষিত ব্যাটেলিয়ন তৈরি করা হয়। নিয়মিত সামরিক বাহিনীর কিছু কর্মকর্তাকে এই ইউনিটে আনা হয়েছিল নেতৃত্ব কাঠামো গঠন করার জন্য। লেফটেন্যান্ট কর্নেল এইচ. এল. উইরাতুঙ্গা এই ইউনিটের প্রথম অধিনায়ক ছিলেন। এই ইউনিটের সদস্যরা উগ্রপন্থী সংগঠন এলটিটিইর সাথে যুদ্ধ চলাকালীন সময় সম্মুখ সমরে অংশগ্রহণ না-করলেও নিরাপত্তা বেষ্টনী তৈরী করা, সাধারণ মানুষের তল্লাশী ও লাঠিচার্জ করা, যুদ্ধের রুট ক্লিয়ারিং করা, ক্যাম্প নিরাপত্তার কাজ ও অন্যান্য অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তার কাজ করেছে।

উত্তর এবং পূর্ব প্রদেশের নিরাপত্তা ব্যবস্থার দ্রুত অবনতি ঘটার ফলে ১৯৯৭ সালের ১৫ নভেম্বর ৩য় সংরক্ষিত ব্যাটেলিয়ন গঠন করা হয়। এর দুই দিন পর বোরেল্লাতে কোরটির রেজিমেন্টাল কেন্দ্র (সেন্টার) বানানো হয়। ১৭ নভেম্বর ১৯৯৭ এই কোরের রেজিমেন্টাল কেন্দ্র (সেন্টার) বানানোর কারণে প্রতি বছর ১৭ নভেম্বর 'আর্মি ওমেন্স কোর এ্যানিভার্সারী ডে' (সেনা নারী শাখা প্রতিষ্ঠা দিবস) দিবস পালিত হয়। রেজিমেন্টের কেন্দ্রের ভূমিকা হচ্ছে শাখাটির সেনাদের প্রশাসন ও সমন্বয় করা। মেজর জেনারেল ডব্লিউএএ ডি সিলভা ছিলেন রেজিমেন্টের প্রথম 'কর্নেল কমান্ড্যান্ট' (কর্নেল সেনানায়ক) এবং লেঃ কর্নেল এমএইচপিএস পেরেরা ছিলেন প্রথম 'কেন্দ্র অধিনায়ক'।

এ কোরের সদস্যরা কন্ট্রোল টাওয়ার অপারেটর, ইলেক্ট্রনিক ওয়ারফেয়ার টেকনিশিয়ান, রেডিও ম্যাটেরিয়াল টেলিটাইপিস্ট, অটোমোটিভ মেকানিক, এ্যাভিয়েশন সাপ্লাই পার্সোনেল, ক্রিপ্টোগ্রাফার, চিকিৎসক-সেবিকা, আইনজীবী, প্রকৌশলী এবং ফটোগ্রাফার হিসেবে কাজ করে থাকে।[৪]

ইউনিট সমূহ[সম্পাদনা]

  • নিয়মিত ব্যাটেলিয়নঃ
  1. ১ম শ্রীলঙ্কা সেনাবাহিনী নারী শাখা ব্যাটেলিয়ন (ফার্স্ট ব্যাটেলিয়ন, শ্রীলঙ্কা আর্মি ওমেন্স কোর অথবা ফার্স্ট শ্রীলঙ্কা আর্মি ওমেন্স কোর কিংবা সংক্ষেপে ওয়ান এসএলএডব্লিউসি, 1 SLAWC, ১ম/১ এসএলডব্লিউসি)
  2. ৭ম শ্রীলঙ্কা সেনাবাহিনী নারী শাখা ব্যাটেলিয়ন (7 SLAWC, ৭ এসএলএডব্লিউসি)
  • সংরক্ষিত (Volunteers) ব্যাটেলিয়নঃ
  1. ২য় (সংরক্ষিত) শ্রীলঙ্কা সেনাবাহিনী নারী শাখা ব্যাটেলিয়ন, 2 (V) SLAWC, ২য় (স) এসএলএডব্লিউসি
  2. ৩য় (সংরক্ষিত) শ্রীলঙ্কা সেনাবাহিনী নারী শাখা ব্যাটেলিয়ন, 3 (V) SLAWC
  3. ৪র্থ (সংরক্ষিত) শ্রীলঙ্কা সেনাবাহিনী নারী শাখা ব্যাটেলিয়ন, 4 (V) SLAWC
  4. ৫ম (সংরক্ষিত) শ্রীলঙ্কা সেনাবাহিনী নারী শাখা ব্যাটেলিয়ন, 5 (V) SLAWC
  5. ৬ষ্ঠ (সংরক্ষিত) শ্রীলঙ্কা সেনাবাহিনী নারী শাখা ব্যাটেলিয়ন, 6 (V) SLAWC

কিছু যুদ্ধবীরাঙ্গনাগণ[সম্পাদনা]

এলটিটিই এর সঙ্গে যুদ্ধ করে বহু নারী সৈনিক মারা যান। নিম্নে ১০জন সৈনিকের নাম লেখা হল।

  1. ল্যান্স কর্পোর‍্যাল রুপবতী এইচএম, ২য় (স) এসএলএডব্লিউসি, মৃত্যুঃ ৯ আগস্ট ১৯৯৬
  2. ল্যান্স কর্পোর‍্যাল কুমুদিনী ইউপিডি, ২য় (স) এসএলএডব্লিউসি, মৃত্যুঃ ২ জুলাই ১৯৯৭
  3. ল্যান্স কর্পোর‍্যাল স্বর্ণলতা আরসি, ২য় (স) এসএলএডব্লিউসি, মৃত্যুঃ ২ জুলাই ১৯৯৭
  4. কর্পোর‍্যাল সিলভা আইএন, ১ম এসএলএডব্লিউসি, মৃত্যুঃ ২ জুলাই ১৯৯৭
  5. ল্যান্স কর্পোর‍্যাল দামায়ান্থী এইচবিডব্লিউ, ৫ম (স) এসএলএডব্লিউসি, মৃত্যুঃ ২৪ মে ২০০০
  6. ল্যান্স কর্পোর‍্যাল কালুউইল্লা আরাচ্চি এনএ, ২য় (স) এসএলএডব্লিউসি, মৃত্যুঃ ২ ডিসেম্বর ১৯৯৭
  7. ল্যান্স কর্পোর‍্যাল বিজয়াওয়ার্দানা পিভিডি, ৪র্থ (স) এসএলএডব্লিউসি, মৃত্যুঃ ২৩ অক্টোবর ১৯৯৯
  8. ল্যান্স কর্পোর‍্যাল নিলাঙ্কা কুমারী আরএম, ৩য় (স) এসএলএডব্লিউসি, মৃত্যুঃ ৯ ফেব্রুয়ারী ২০০৯
  9. কর্পোর‍্যাল পদ্মা কুমারী আইএমবি, ৪র্থ (স) এসএলএডব্লিউসি, মৃত্যুঃ ২ এপ্রিল ১৯৯৭
  10. সার্জেন্ট পুষ্পমালা পিবিএস, ৫ম (স) এসএলএডব্লিউসি, মৃত্যুঃ ২৪ মে ২০০০

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Sri Lanka Army Women's Corps Empowers 95 Women Ex-combatants"। thesundayleader.lk। এপ্রিল ৪, ২০১৩। মে ২৮, ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  2. http://www.asiantribune.com/node/71980
  3. "Sri Lankan Army Women's Corps"About, Inc। সংগ্রহের তারিখ ২০০৭-০২-০৪ 
  4. "An officer and a lady: You've come a long way, lass."Sunday Observer। ২০০৬-১০-১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০০৬-১০-০৮ 
  5. "Sri Lanka Army Women's Corps, Sri Lanka Army"Sri Lanka Army। ২০০৭-০১-২৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০০৭-০২-০৪ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]