শিবাজী:দ্য বস

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
শিবাজী দ্য বস
শিবাজী দ্য বস.jpg
পরিচালকএস শংকর
প্রযোজকএম এস গুহান
এম। সারাভানান
রচয়িতাএস শংকর
শ্রেষ্ঠাংশেরজনীকান্ত
শ্রিয়া সরন
বিবেক
সুমন
সুরকারএ আর রহমান
চিত্রগ্রাহককে ভি আনন্দ
সম্পাদকঅ্যান্টনি গনসালভেস
প্রযোজনা
কোম্পানি
এভিএম প্রযোজনা
পরিবেশকএভিএম প্রযোজনা
মুক্তি
  • ১৪ জুন ২০০৭ (2007-06-14) (প্রারম্ভিক মুক্তি)
  • ১৫ জুন ২০০৭ (2007-06-15) (ভারত)
দৈর্ঘ্য১৮৫ মিনিট
দেশ ভারত

শিবাজী: দ্যা বস (তামিল: சிவாஜி: த பாஸ்) হল ২০০৭ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত একটি তামিল সহিংস-হাস্যরস-প্রণয়ধর্মী চলচ্চিত্র যার পরিচালক এস শংকর ও প্রযোজক এভিএম প্রযোজনা সংস্থা। প্রধান ভূমিকায় অভিনয় করেছেন রজনীকান্ত আর গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেছেন শ্রিয়া সরন, সুমন, বিবেক, মণিভন্নন এবং রঘুবরণএ আর রহমান সঙ্গীত পরিচালনা করেছিলেন, অন্যদিকে যথাক্রমে থোট্টা থারানী এবং কে ভি আনন্দ চলচ্চিত্রের শিল্প-পরিচালক ও চিত্রগ্রাহক ছিলেন। ১৫ জুন ২০০৭ সালে তামিল ভাষায় বিশ্বজুড়ে এবং একসাথে ঐ তারিখে তেলুগুতে অনুবাদ করা সংস্করণ হিসেবে চলচ্চিত্রটি মুক্তি পেয়েছিল। চলচ্চিত্রটি হিন্দিতেও অনুবাদ করা হয়েছিলো এবং ৮ জানুয়ারী, ২০১০ এ মুক্তি পেয়েছিল। চলচ্চিত্রটি সমালোচকদের চোখে ইতিবাচকভাবে গৃহীত হয়েছিল এবং বিশ্বব্যাপী বাণিজ্যিক সাফল্য পেয়েছিল। একটি জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার (ভারত), তিনটি ফিল্মফেয়ার পুরস্কার দক্ষিণ এবং দুটি বিজয় পুরস্কার জিতেছিল। চলচ্চিত্রটি ত্রিমাত্রিকতায় তৈরি হয়ে, ১২ ডিসেম্বর ২০১২ সালে, "শিবাজি থ্রি ডি" হিসেবে প্রকাশিত হয়েছিল। থ্রি ডি সংস্করণটি দৈর্ঘ্য ছিল ১৫৫ মিনিটের মূল চলচ্চিত্র থেকে চেয়ে কম ছিল। সমালোচকদের চোখে ইতিবাচকভাবে গৃহীত হয়েছিল এবং বিশ্বব্যাপী বাণিজ্যিক সাফল্যে পেয়েছিল। এটি ডলবি এটমস শব্দ প্রযুক্তি ব্যবহার করা প্রথম ভারতীয় চলচ্চিত্র [১]

সংক্ষিপ্ত কাহিনী[সম্পাদনা]

ছবিটিতে এক সুপ্রতিষ্ঠিত সফটওয়্যার সিস্টেম আর্কিটেক্ট, শিবাজী, যিনি যুক্তরাষ্ট্রে কাজ শেষ করে ভারতে দেশে ফিরেছেন, দেশে ফিরে আসার পরে, তিনি ঠিক করেন বিনামূল্যে চিকিত্সা এবং শিক্ষার ব্যবস্থা করবেন তাই তিনি বিশ্ববিদ্যালয় এবং মেডিকেল কলেজ বানাবার স্বপ্ন দেখেন। তবে তার পরিকল্পনাগুলি প্রভাবশালী ব্যবসায়ী আদিসেশনের দ্বারা বাধা বিপত্তির মুখোমুখি হন। তখন দুর্নীতির বিরুদ্ধে লড়াই করা ছাড়া শিবাজীর আর কোনও উপায় নেই।

অভিনয়[সম্পাদনা]

প্রধান ভূমিকায় অভিনয় করেছেন রজনীকান্ত আর গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেছেন রজনীকান্ত, শ্রিয়া সরণ, সুমন, বিবেক, মণিভান্নান এবং রঘুবরণ

সমালোচনা[সম্পাদনা]

রেডিফ ডটকমের, আর জি বিজয়সারথি, তার ছবিটিকে এক কথায় বলেছিলেন, "কোন যুক্তি নয়, কেবল রজনীর যাদু"। গল্পটি সম্পর্কে তিনি বলেছিলেন, "দুর্ভাগ্যক্রমে, ছবিটির বার্তা অযৌক্তিক গোলকধাধায় এবং কখনও কখনও অদ্ভুত ক্রমের ধাক্কায় হারিয়ে গেছে"। যদিও, রজনীকান্ত, শ্রিয়া, বিবেক এবং প্রযুক্তিগত দলের প্রশংসা করেছেন।[২] সিফি লিখেছেন: "এখানে কেবল একজন নায়ক রয়েছেন, [..] - রজনী নিজেই। ছবিটির প্রতিটি ফ্রেমে তাঁর সিনেমাটিক ক্যারিশমার অপ্রতিরোধ্য উপস্থিতি। ছবিটি ভালো হয়েছিল কারণ শঙ্কর ছবিটিকে অনেক বড় মাপের করেছিলেন বলে , [..] যা দুর্দান্ত কোরিওগ্রাফড অ্যাকশন দৃশ্যের সাথে একটি ভিজ্যুয়াল ট্রিট ছিল এটি সমস্তই শীর্ষস্থানীয় লাইন টেকনো ফিনেসের সাথে আসে, সম্ভবত তামিল সিনেমায় এটি সর্বকালের সেরা "এবং আরও লিখেছেন যে" প্রযুক্তিগতভাবে, [..] একটি উদ্ঘাটন [..] রয়েছে চমকপ্রদ ভিজ্যুয়াল, যেটিতে পয়সা উসুল। কে ভি আনন্দের সিনেমাটোগ্রাফি শীর্ষ শ্রেণির, আর্ট ডিরেক্টর, থোটা থারানীর রচনা প্রলুব্ধ করছে, বিশেষত গানের সেটগুলি।[৩]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Dolby to cross 100 screens this year also"https://www.outlookindia.com/  |কর্ম= এ বহিঃসংযোগ দেয়া (সাহায্য)
  2. Vijayasarathy, R. G. (১৫ জুন ২০০৭)। "No logic, only Rajni's magic"। Rediff। ২ জানুয়ারি ২০০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৯ জানুয়ারি ২০০৮ 
  3. "Movie Review : Sivaji"Sify। ৬ সেপ্টেম্বর ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৩ জানুয়ারি ২০১৫ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]