রোল ওভার বিঠোফেন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
"রোল ওভার বিঠোফেন"
রোল ওভার বিঠোফোন.jpg
১৯৬৩ সালের নেদারল্যান্ডে প্রকাশিত এককের জন্যে চিত্রকর্ম
চাক বেরি ইজ অন টপ অ্যালবাম থেকে
চাক বেরি কর্তৃক একক
বি-সাইড"ড্রিফটিং হার্ট"
মুক্তিপ্রাপ্তমে ১৯৫৬ (1956-05)
বিন্যাস৭" ৪৫-আরপিএম এবং ১০" ৭৮-আরপিএম রেকর্ড
রেকর্ডকৃত১৬ এপ্রিল, ১৯৫৬[১]
ধারারক এ্যান্ড রোল
দৈর্ঘ্য:২৩
লেবেলচেস রেকর্ড #১৬২৬
গান লেখকচাক বেরি
প্রযোজকলিওনার্ড চেস, ফিল চেস
চাক বেরি কালক্রম কালক্রম
"নো মানি ডাউন"
(১৯৫৫)
"রোল ওভার বিঠোফেন"
(১৯৫৬)
"টু মাচ মানকি বিজনেস"
(১৯৫৬)

"রোল ওভার বিঠোফেন" (ইংরেজি: Roll Over Beethoven) মার্কিন রক এ্যান্ড রোল শিল্পী চাক বেরি কর্তৃক প্রকাশিত একটি একক গান। এটি চেস রেকর্ড থেকে প্রকাশিত হয় ১৯৫৬ সালের মে মাসে। এককটির বি-সাইড ছিল "ড্রিফটিং হার্ট"। গানটির গীতির মূল বিষয় রক এ্যান্ড রোল। তাছাড়া ক্ল্যাসিক্যাল সঙ্গীত এর স্থান দখলের জন্যে রিদম এ্যান্ড ব্লুজ সঙ্গীত করার যে ইচ্ছা বেরির মনে ছিল সেই বিষয়টাও গানটিতে তুলে ধরা হয়েছে। গানটিতে লুডভিগ ফান বেটোফেন কে তার সঙ্গীত নিয়ে তার কবরে চলে যেতে বলা হয়েছে, যেন বেরি রক এ্যান্ড রোল সঙ্গীতকে তার মতো করে জনপ্রিয় করতে পারে। গানটি দ্য বিটলস এবং ইলেকট্রিক লাইট অর্কেস্ট্রা'র মতো শিল্পীরা কভার করেছেন। রোলিং স্টোন ম্যাগাজিনের "সর্বকালের ৫০০ সেরা গান" তালিকায় গানটিকে ৯৭ নম্বরে স্থান দেওয়া হয়েছে[২]

অনুপ্রেরণা এবং গীতি[সম্পাদনা]

রোলিং স্টোন[৩] পত্রিকা এবং অল মিউজিক এর সমালোচক কাব কোডা[৪] লিখেছিল যে: বেরি এই গানটি লিখেছিল তার বোন এর কাজের জবাব হিসেবে। তার বোন ঘরে সারাদিন পিয়ানো'তে বিটোফেনের গান তুলতো যা বেরি করতে চাইতো না। বেরি চাইতো রক এ্যান্ড রোল সঙ্গীতকে তার নিজের মতো করে সৃষ্টি করতে। তার আত্মজীবনী লেখক ব্রুস পেগ বলেছিল যে, "এই গানটির কিছু অংশ লেখা হয়েছিল বেরির সাথে তার বোন লুসির সঙ্গীতের দন্দ্ব নিয়ে"। গানের একটি পঙ্ক্তি "রোল ওভার বিঠোফেন এ্যান্ড টেল চাইকভস্কি দ্য নিউজ" দ্বারা বোঝানো হয়েছে যে, ক্ল্যাসিক্যাল সুরকারেরা রক এ্যান্ড রোল সঙ্গীত শোনার পর তাদের সঙ্গীত নিয়ে তাদের কবরে চলে যাবে।

গানটিতে ক্ল্যাসিক্যাল সুরকার লুডভিগ ফান বেটোফেন এবং পিওতর ইলিচ চাইকভ্‌স্কি ছাড়াও বেশ কয়েকজন জনপ্রিয় ধারার সঙ্গীতশিল্পীর নামও উল্লেখ করা হয়েছিল: "আর্লি ইন দ্য মর্নিং" লুই জর্ডানের একটি গানের নাম; "ব্লু সুয়েড শুজ" কার্ল পারকিনসের গানের নাম। যদিও গানটিতে "রকিং" এবং "রোলিং" এর কথা বলা হয়েছে, যে সঙ্গীতের জন্যে ক্ল্যাসিক্যাল সুরকারদের তাদের সঙ্গীত নিয়ে কবরে যেতে বলা হয়েছে তা হলো রিদম এ্যান্ড ব্লুজ। "এ শট অব রিদম এ্যান্ড ব্লুজ" পঙ্ক্তিটি শিল্পী আর্থার আলেক্সান্ডারের গানের শিরোনাম।

রেকর্ডিং[সম্পাদনা]

১৯৫৬ সালের এপ্রিলের ১৬ তারিখে শিকাগো'তে গানটি রেকর্ড করা হয়েছিল।

গানটিতে অংশ নেয়া শিল্পীরা হলো:

  • চাক বেরি – কন্ঠ, গিটার
  • জনি জনসন – পিয়ানো
  • উইলি ডিক্সন – বেজ গিটার
  • ফ্রেড বিলো – ড্রামস

গানটির প্রযোজক ছিলেন লিওনার্ড এবং ফিল চেস। এটি মুক্তি পেয়েছিল চেস রেকর্ড কোম্পানি'র একক ১৬২৬ হিসেবে[৫]

মুক্তি[সম্পাদনা]

বেরির সংস্করণটি মুক্তি পেয়েছিল ১৯৫৬ সালের মে মাসে, চেস রেকর্ডস এর একক হিসেবে। "ড্রিফটিং হার্ট" ছিল এককটির বি-সাইড[৬]বিলবোর্ড আর এ্যান্ড বি চার্টে এটি ২ নম্বরে এবং পপ চার্টে ২৯ নম্বরে স্থান পেয়েছিল। "রোল ওভার বিঠোফেন" সহ বেরির আরো চারটি গান রক, রক, রক নামের একটি অ্যালবামে এবং একই নামের চলচ্চিত্রে অন্তর্ভুক্ত হয়েছিল। ১২টি গানের মধ্যে চারটি গান চলচ্চিত্রে ব্যবহৃিত হয়েছিল। বহুবার এই গানটি বেরির বেশ কয়েকটি সংকলিত অ্যালবামে স্থান পেয়েছিল।

প্রাপ্তি[সম্পাদনা]

বেরির এই এককটি, ২০০৩ সালে কংগ্রেস লাইব্রেরী কর্তৃক নির্বাচিত হয়েছিল, জাতীয় রেকর্ডিং নিবন্ধনে অন্তর্ভুক্ত করার জন্যে। ২০০৪ সালে, রোলিং স্টোন ম্যাগাজিনের "সর্বকালের ৫০০ সেরা গান" এর তালিকায় এই গানটিকে ৯৭ নম্বরে স্থান দেওয়া হয়েছিল। পর্যালোচনা করে বলা হয়েছিল যে, "এটি ছিল রক এ্যান্ড রোল সঙ্গীতের যুগ শুরু করার প্রকাশক"[৭]

শুরুর দিকে যে গিটার সলো দেওয়া হয় তা শুনতে অনেকটা বেরির সবচেয়ে জনপ্রিয় গান "জনি বি. গুড" এর মতো। উভয় গানের জন্যে তৈরিকৃত শিটও দেখতে অনেকটা একই। কাব কোডা বলেছিল যে, "এটি এমন একটি শিল্পকর্ম, যা রক এ্যান্ড রোলকে সঠিকভাবে অর্থ দেয়"[৪]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. ২০ শতকের মাস্টার – মিলেনিয়াম সংগ্রহ: চাক বেরির শ্রেষ্ঠ গান (সিডি)। চাক বেরি। এমসিএ রেকর্ডস। ১৯৯৯। MCAD-11944। 
  2. "Archived copy"। ৩ জুলাই ২০১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩ জুলাই ২০১৯ 
  3. "রোল ওভার বিঠোফেন • রোলিং স্টোনের পর্যালোচনা"রোলিং স্টোন। সংগ্রহের তারিখ ৪ জুলাই ২০১৯ 
  4. "রোল ওভার বিঠোফেনের পর্যালোচনা – অল মিউজিক"। অল মিউজিক। সংগ্রহের তারিখ ৪ জুলাই ২০১৯ 
  5. বেরি, চাক, চাক বেরি: তার সংগ্রহ, সিডি, 088 1120304-2, এমসিএ, চেস, ২০০০, liner notes
  6. রুডলফ, ডিয়েটমার। "চাক বেরির সঙ্গীত: চেস রেকর্ডসের যুগ (১৯৫৫-১৯৬৬)"। সংগ্রহের তারিখ ৫ জুলাই ২০১৯ 
  7. "সর্বকালের ৫০০ সেরা গান — রোলিং স্টোনস"। নিউ ইয়র্ক: রোলিং স্টোন। ৪ ডিসেম্বর ২০০৪। ২০০৮-০৬-২২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৫ জুলাই ২০১৯ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]