রেড চিলিজ এন্টারটেইনমেন্ট

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
(রেড চিলিস এন্টারটেনমেন্ট থেকে পুনর্নির্দেশিত)
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
রেড চিলিজ এন্টারটেইনমেন্ট
বেসরকারী লিমিটেড কোম্পানি
শিল্পচলচ্চিত্র
প্রতিষ্ঠাকাল২০০২
সদরদপ্তরমুম্বাই, মহারাষ্ট্র, ভারত
প্রধান ব্যক্তি
শাহরুখ খান (সিইও)
গৌরী খান
ব্লেসন অম্মেন (সিএফও)[১]
পণ্যসমূহচলচ্চিত্র নির্মাণ
চলচ্চিত্র বিতরণ
ভিসুয়াল ইফেক্ট
বিশেষ ইফেক্ট
ওয়েবসাইটরেড চিলিস এন্টারটেনমেন্ট

রেড চিলিজ এন্টারটেইনমেন্ট (ইংরেজি: Red Chillies Entertainment), এটি একটি ভারতীয় মুম্বাই ভিত্তিক চলচ্চিত্র নির্মাণ ও বিতরণকারী প্রতিষ্ঠান। এই প্রতিষ্ঠানটি ২০০২ সালে বলিউড অভিনেতা শাহরুখ খান ও তাঁর স্ত্রী গৌরী খান প্রতিষ্ঠিত করেন। এটি ড্রিমস আনলিমিটেড নামে প্রথমে প্রতিষ্ঠিত ছিল ২০০১ সালে অভিনেত্রী জুহি চাওলা এবং পরিচালক আজিজ মির্জা সাথে। কিন্তু, পরে এই প্রতিষ্ঠানের পুন-নামকরণ করা হয়।

চলচ্চিত্র নির্মাণ ছাড়াও, প্রতিষ্ঠানটির অধীনে রয়েছে যেমন- ভিজ্যুয়াল ইফেক্ট স্টুডিও রেড চিলিস ভিএফএক্স পাশাপাশি টিভি স্টুডিও টিভি শো/সিরিয়ালের জন্য রেড চিলিস টিভিসি হিসেবে পরিচিত এবং রেড চিলিস ইডিয়ট বক্স হিসাবে পরিচিত বিজ্ঞাপণ নির্মাণের জন্য স্টুডিও করেছে। সংস্থাটি ৫০% এর একটু বেশি ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগ-এর ক্রিকেট দল কলকাতা নাইট রাইডার্স এর মধ্যে পণ হয়েছে।

সঞ্জীব চাওলা রেড চিলিজ এন্টারটেইনমেন্ট এর নির্বাহী প্রযোজক। গৌরী খান প্রযোজক হিসাবে দায়িত্ব পালন করছেন।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

খানের সাথে সাবেক KKR-এর অধিনায়ক সৌরভ গাঙ্গুলীগৌরী খান

২০০৪ সালে নৃত্য পরিচালক ফাহার খান, শাহরুখের একজন ঘনিষ্ঠ বন্ধু যিনি তাঁর সাথে সরাসরি একটি চলচ্চিত্র পরিচালনা করতে আগ্রহ দেখায়। শাহরুখ তখন জুহি চাওলা এবং পরিচালক আজিজ মির্জা প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান ড্রিমজ আনলিমিটেড এর সকল দায়িত্য গ্রহণ করেন এবং প্রতিষ্ঠানের নাম নতুন করে করেন রেড চিলিস এন্টারটেনমেন্ট এতে তাঁর সাথে থকেন স্ত্রী গৌরী খান। এবং এই নাম পরিবর্তনের প্রতিষ্ঠানের ব্যানারে নির্মিত প্রথম পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ম্যায় হুঁ না ছবিতে শাহরুখ প্রধান চরিত্রে অভিনয় করে। ছবিটি বাণিজ্যিক ভাবে দারুন সাফল্য লাভ করে। খান এই প্রতিষ্ঠানের ব্যানারে নির্মিত দ্বিতীয় চলচ্চিত্র পহেলি-তে অভিনয় করেছেন এটি ছিল ২০০৫ সালের চলচ্চিত্র। একই বছর সোহাম শাহ এর কাল ছবিটি ধর্ম প্রডাকশনস এর সাথে যৌথ প্রযোজনা করে এই প্রতিষ্ঠান।

এই প্রতিষ্ঠানের ব্যানারে নির্মিত তৃতীয় চলচ্চিত্র ওম শান্তি ওম এবং এটি ছিল ফারাহ খান পরিচালিত দ্বিতীয় চলচ্চিত্র এইটিতেও খান অভিনয় করেছেন সাথে ছিল দীপিকা পাড়ুকোন। এটি মুক্তি দেয়া হয় ২০০৭ সালের নভেম্বরে। ২০০৯ সালে নির্মাণ করা হয় বিল্লু চলচ্চিত্রটি এবং এটিতে খান ছিলেন একটি বর্ধিত বিশেষ উপস্থিতির মধ্যে, এখানে নাম ভূমিকায় অভিনয় করেছেন ইরফান খান ও লারা দত্ত, ছবিটি বাণিজ্যিক ভাবে ব্যর্থ হয়। করণ জহরের পরিচালনায় ২০১০ সালে ধর্ম প্রডাকশনস এবং ফক্স সার্চলাইট পিকচার্স এর যৌথ প্রযোজনায় নির্মাণ করা হয় মাই নেম ইজ খান চলচ্চিত্রটি, এখানে খান মান ভূমিকায় অভিনয় করেছেন, তাঁর বিপরীতে ছিলেন কাজল দেবগন

পণ্য বিভাগ[সম্পাদনা]

রেড চিলিজ এন্টারটেইনমেন্ট এর কয়েকটি কর্মক্ষেত্র বিভাগ সমূহ;

  • চলচ্চিত্র নির্মাণ
  • ভিসুয়াল ইফেক্ট
  • টিভি বিজ্ঞাপন
  • টেলিভিসন প্রোগ্রাম / সিরিয়াল
  • উপকরণ লিজিং

উৎপাদিত চলচ্চিত্র[সম্পাদনা]

বছর চলচ্চিত্র পরিচালক নোটস
২০০১ ফির ভি দিল হ্যায় হিন্দুস্তানি আজিজ মির্জা এই প্রতিষ্ঠানের প্রথম নির্মিত চলচ্চিত্র ড্রিমস আনলিমিটেড নাম থাকা কালে নির্মাণ করা হয়
অশোকা সন্তোষ সিভান
২০০৩ চলতে চলতে আজিজ মির্জা
২০০৪ ম্যায় হুঁ না ফারাহ খান এটি রেড চিলিস এন্টারটেনমেন্ট নাম করনের পর প্রথম নির্মিত চলচ্চিত্র
২০০৫ কাল সোহাম শাহ যৌথ প্রযোজনা ধর্ম প্রডাকশনস এর সাথে
পহেলি আমল পালেকার
২০০৭ ওম শান্তি ওম ফারাহ খান
২০০৯ বিল্লু প্রিয়াদার্শন এটি একটি মালয়ালম ভাষার চলচ্চিত্রের পুনর্নির্মাণ কাধা পরাযুম্বল
২০১০ মাই নেম ইজ খান করণ জহর যৌথ প্রযোজনা ধর্ম প্রডাকশনস এবং ফক্স সার্চলাইট পিকচার্স
২০১১ অলওয়েজ কাভি কাভি রোশন আব্বাস
রা.ওয়ান অনুভব সিনহা
২০১২ স্টুডেন্ট অফ দ্য ইয়ার করণ জহর যৌথ প্রযোজনা ধর্ম প্রডাকশনস এর সাথে
২০১৩ চেন্নাই এক্সপ্রেস রোহিত শেত্তি

টেলিভিশন[সম্পাদনা]

টিভি বিজ্ঞাপন[সম্পাদনা]

ভিজ্যুয়াল ইফেক্ট[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]