রুথভিকা শিবাণী

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
গাদ্দে রুথভিকা শিবাণী
ধনুরাশি শিবাণী
ব্যক্তিগত তথ্য
জন্মের নামগাদ্দে রুথভিকা শিবাণী
জন্ম (1997-03-26) ২৬ মার্চ ১৯৯৭ (বয়স ২২)[১]
বিজয়ওয়াড়া, অন্ধ্র প্রদেশ, ভারত
বাসস্থানখামামম, তেলঙ্গানা, ভারত[২]
উচ্চতা১.৭৩ মি (৫ ফু ৮ ইঞ্চি)[৩]
ওজন৬০ কেজি (১৩২ এলবি)
দেশ ভারত
Handednessডান হাতি
মহিলাদের একক
সর্বোচ্চ স্থানাধিকারী৪৯ (১ ডিসেম্বর ২০১৬ [৪])
বর্তমান স্থান৫৫ (৫ এপ্রিল ২০১৮)
উপাধি
বিডব্লউএফ প্রোফাইল

রুথভিকা শিবাণী(ইংরেজি: Gadde Ruthvika Shivani), (জন্মঃ ২৬ মার্চ ১৯৯৭) হলেন একজন ভারতীয় ব্যাডমিন্টন খেলোয়াড় যিনি ​​মহিলাদের একক বিভাগেই আন্তর্জাতিক ব্যাডমিন্টন সার্কিটে ভারতের প্রতিনিধিত্ব করেন। তিনি গো স্পোর্টস ফাউন্ডেশন, বেঙ্গালুরু দ্বারা সমর্থিত, রাহুল দ্রাবিড় অ্যাথলেট মাষ্টার্স প্রোগ্রামের মাধ্যমে এবং বর্তমানে গোপীচাঁদ ব্যাডমিন্টন একাডেমি, হায়দ্রাবাদে প্রশিক্ষিত।[৫] ২০১৮ সালে, কমনওয়েলথ গেমসে, তিনি মিশ্র দলগত ইভেন্টে স্বর্ণ পদক জিতেছেন।

শৈশব এবং প্রাথমিক প্রশিক্ষণ[সম্পাদনা]

জি. ভবানী প্রসাদ [৬] এবং জি. প্রমীলা রানীর [৭] কন্যা গাদ্দে রুথভিকা শিবাণী, ২৬ মার্চ, ১৯৯৭ সালে একটি তেলুগু পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতা একজন ছোট ব্যবসায়ী এবং তার মা একজন গৃহকর্তী। তার বড় ভাই জি. এস চৈতন্য প্রসাদ। রুথভিকা পাঁচ বছর বয়স থেকে ব্যাডমিন্টন খেলতে শুরু করেন।

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

২০১০[সম্পাদনা]

২০১০ সালে, রুথভিকা আন্তর্জাতিক সার্কিটে তার প্রথম আন্তর্জাতিক সাব-জুনিয়র্সে আত্মপ্রকাশ করেছিলেন, তিনি জাপানের চিবাতে অনুষ্ঠিত ব্যাডমিন্টন এশিয়া যুব ইউ-১৭ ও ইউ-১৫ চ্যাম্পিয়নশিপের মহিলাদের ডাবলস বিভাগে ব্রোঞ্জ পদক পান, যা আন্তর্জাতিক স্তরে তার প্রথম পদক ছিল। একই বছর তিনি সিঙ্গাপুরে অনুষ্ঠিত লি-নিং সিঙ্গাপুর যুব ইন্টারন্যাশনালে মহিলাদের দ্বৈত বিভাগে রৌপ্য পদক জিতেছিলেন।

২০১১[সম্পাদনা]

২০১১ সালে, জাপানের চিবায় অনুষ্ঠিত ব্যাডমিনটন এশিয়া যুব ইউ-১৭ ও ইউ-১৫ চ্যাম্পিয়নশিপের মহিলাদের একক শ্রেণিতে রুথভিকা রৌপ্য পদক জেতেন। তিনি ডাররাম সিরনাস রিজিওয়েতে মহিলাদের দ্বৈত শ্রেণিতে রৌপ্য পদক জিতেছিলেন। ইন্দোনেশিয়ার সুরাবায়াতে অনুষ্ঠিত পারফরম্যান্স জেটিম ওপেনের উদ্বোধন করেন। তিনি তার প্রথম আন্তর্জাতিক জুনিয়র্সে আত্মপ্রকাশ করেন রামেনস্কো জুনিয়র ইন্টারন্যাশনালে। সেখানে তিনি রাশিয়ান খেলোয়াড় ইভিগানি কোসেটকায়াকে পরাজিত করেন এবং মহিলা এককের শিরোপা জয় করেন। তিনি মহিলা দ্বৈতে ব্রোঞ্জ পদকও পান। এশিয়ান জুনিয়র চ্যাম্পিয়নশিপে তিনি মিশ্র দলের ইভেন্টে ব্রোঞ্জ পদক জেতেন।

২০১২[সম্পাদনা]

২০১২ সালে, পুনে, মহারাষ্ট্রে অনুষ্ঠিত সুশান্ত চিপলকাতি মেমোরিয়াল ইন্ডিয়া জুনিয়র ইন্টারন্যাশনালে রুথভিকা সহজেই ঋতুপর্ণা দাসকে পরাজিত করে মহিলা এককের শিরোপা জিতে নেন এবং মহিলাদের দ্বৈত শিরোনামও লাভ করেন।

২০১৩[সম্পাদনা]

২০১৩ সালে ভারতীয় ব্যাডমিন্টন লীগে রুথভিকা আওয়াদে ওয়ারিয়র্সের দলের সদস্য ছিলেন। তার দল হায়দরাবাদ হটশটসের বিরুদ্ধে ফাইনালে হেরে যায় এবং দ্বিতীয় স্থান লাভ করে। পুণে মহারাষ্ট্রে অনুষ্ঠিত, সুশান্ত চিপলকটী মেমোরিয়াল ইন্ডিয়া জুনিয়র ইন্টারন্যাশনালে মহিলাদের একক বিভাগের শিরোপা জেতেন। তারপর, হায়দরাবাদ, তেলঙ্গানাতে অনুষ্ঠিত ভনকীনা আনজা দেবী মেমোরিয়াল অল ইন্ডিয়া সিনিয়র র্যাংকিং ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্ট মহিলাদের দ্বৈত বিভাগে জয় লাভ করেন।

২০১৪[সম্পাদনা]

২০১৪ সালে, মুম্বাই, মহারাষ্ট্রে অনুষ্ঠিত, টাটা ওপেন ইন্ডিয়া ইনটারন্যাশনালে মহিলাদের একক বিভাগে রুথভিকা শিরোপা জিতে নেন। ৭ ই সেপ্টেম্বর, তিনি পর পর তিন বার সুশান্ত চিপলকটী মেমোরিয়াল ইন্ডিয়া জুনিয়র ইন্টারন্যাশনালে মহিলাদের একক বিভাগের শিরোপা জেতেন। গুজরাটে গান্ধীধামে অনুষ্ঠিত অল ইন্ডিয়া সিনিয়র র্যাংকিং ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্টে মহিলাদের একক বিভাগে বিজয়ী হন।

২০১৫[সম্পাদনা]

২০১৫ সালে, ডিসেম্বরে ঢাকায় অনুষ্ঠিত, ইউনক্স-সানরাইজ বাংলাদেশ ওপেন ইন্টারন্যাশনাল টুর্নামেন্টে মহিলাদের একক বিভাগে রুথভিকা শিরোপা জিতেছেন। অক্টোবরে, সোফিয়া, বুলগেরিয়া, তিনি বালোলাত বুলগেরিয়ান আন্তর্জাতিক এ মহিলা এককের ব্রোঞ্জ পদক পান। সেপ্টেম্বর মাসে, তিনি পর পর চার বার সুশান্ত চিপলকটী মেমোরিয়াল ইন্ডিয়া জুনিয়র ইন্টারন্যাশনালে মহিলাদের একক বিভাগের শিরোপা জেতেন। রাধে শ্যাম গুপ্ত মেমোরিয়াল অল ইন্ডিয়া সিনিয়র র্যাংকিং ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্টে, মহিলাদের একক বিভাগে বিজয়ী হন।

২০১৬[সম্পাদনা]

২০১৬ সালে, গুয়াহাটি ও শিলং এ অনুষ্ঠিত দক্ষিণ এশীয় গেমসে রুথভিকা দুটি স্বর্ণ পদক জেতেন। মহিলাদের একক বিভাগে এবং মহিলাদের দ্বৈত বিভাগে। তিনি পি. ভি. সিন্ধুকে পরাজিত করেন এবং মহিলাদের এককের শিরোপা লাভ করেন। সেই বছরে উবার কাপে ভারতের জাতীয় দলের একজন মহিলা দলের সদস্য হিসাবে মহিলাদের দলগত বিভাগে ব্রোঞ্জ পদক পান। প্রিমিয়ার ব্যাডমিন্টন লীগে তিনি মুম্বাই রকেটের দলের সদস্য ছিলেন এবং দলটি দ্বিতীয় স্থান লাভ করে। ৯ সেপ্টেম্বর, তিনি রাশিয়ান ওপেন মহিলা এককের শিরোপা জিতে নেন। এটি তার প্রথম গ্র্যান্ড প্রিক্স শিরোনাম। হায়দরাবাদ, তেলঙ্গানাতে অনুষ্ঠিত স্যাটস-ইউনেক্স সানরাইজ ভারত আন্তর্জাতিক সিরিজে তিনি রৌপ্য পদক পান। পুনে, মহারাষ্ট্রে অনুষ্ঠিত ভি ভি নাটু মেমোরিয়াল অল ইন্ডিয়া সিনিয়র র্যাঙ্কিং ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্টে মহিলা এককে বিজয়ী হন।

২০১৮[সম্পাদনা]

২০১৮ সালে, গোল্ড কোস্টে অনুষ্ঠিত কমনওয়েলথ গেমসে, ভারতের জাতীয় দলের একজন মিশ্র দলের সদস্য হিসাবে মিশ্র দল বিভাগে রুথভিকা স্বর্ণ পদক জেতেন।[৮]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Full Profile"। bwf.tournamentsoftware.com। সংগ্রহের তারিখ অক্টোবর ১৩, ২০১৬ 
  2. "The 19-year-old champion of the Russian Grand Prix is also from the Gopichand Academy"। thefield.scroll.in। সংগ্রহের তারিখ ১২ অক্টোবর ২০১৬ 
  3. "Saina Nehwal, PV Sindhu…now Ruthvika Shivani Gadde for India"। indianexpress.com। ১১ অক্টোবর ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ১১ অক্টোবর ২০১৬ 
  4. "GADDE Ruthvika Shivani"Badminton World Federation। সংগ্রহের তারিখ ১ ডিসেম্বর ২০১৬ 
  5. "Gopichand Academy trainees Ruthvika, Vrushali emerge champions"। zeenews.india.com। সংগ্রহের তারিখ জুন ২৩, ২০১৫ 
  6. "Ruthvika: 'I dream of an Olympic medal'"। sportstarlive.com। ১৭ অক্টোবর ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ২৩ নভেম্বর ২০১৬ 
  7. "Shivani means business"। sportstaronnet.com। ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ ২৩ নভেম্বর ২০১৬ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  8. "CWG 2018: Kidambi Srikanth, Saina Nehwal give India winning start in Mixed Team badminton at Commonwealth Games"। www.financialexpress.com। ফেব্রুয়ারি ৫, ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ মে ২৭, ২০১৮