রিতা আর. কলওয়েল

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
রিতা আর. কলওয়েল
Rita Colwell.jpg
২০১১ সালে রিতা আর. কলওয়েল
জন্ম(১৯৩৪-১১-২৩)২৩ নভেম্বর ১৯৩৪
বেভার্লি, ম্যাসাচুসেটস
জাতীয়তামার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
কর্মক্ষেত্রঅণুজীব বিজ্ঞান
প্রতিষ্ঠানন্যাশনাল সাইন্স ফাউন্ডেশন, মেরিল্যান্ড কলেজ পার্ক বিশ্ববিদ্যালয়, জোন্স হপকিন্স ব্লুমবার্গ স্কুল অব পাবলিক হেলথ
প্রাক্তন ছাত্রওয়াশিংটন বিশ্ববিদ্যালয়

রিতা রসি কলওয়েল (জন্ম: ২৩ নভেম্বর, ১৯৩৪) ম্যাসাচুসেটসের বেভারলি এলাকায় জন্মগ্রহণকারী বিশিষ্ট প্রমিলা পরিবেশবাদী অণুজীব বিজ্ঞানী ও বৈজ্ঞানিক প্রশাসক। অণুজীব বিজ্ঞান, জিনতত্ত্ব, সমুদ্রবিজ্ঞানে স্নাতক ডিগ্রীধারী ও সংক্রামক রোগবিষয়ক গবেষক। বায়োইনফরম্যাটিক্স কোম্পানি কসমসআইডির প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান তিনি। ১৯৯৮ থেকে ২০০৪ মেয়াদকালে ন্যাশনাল সায়েন্স ফাউন্ডেশনের ১১শ পরিচালকের দায়িত্বে ছিলেন রিতা আর. কলওয়েল[১]

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

২৪ নভেম্বর, ১৯৩৪ তারিখে ম্যাসাচুসেটসের বেভার্লি এলাকায় জন্মগ্রহণ করেন রিতা। লুই এবং লুজি রোসি দম্পতির আট সন্তানের মধ্যে তার অবস্থান ছিল ৭ম। তার বাবা কিংবা মা কোন বৈজ্ঞানিক পরিবেশ থেকে আসেননি। ১৯৫৬ সালে পার্দু বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অণুজীব বিজ্ঞানে বি.এস. ডিগ্রী লাভ করেন। এছাড়াও পার্দু থেকেই জিনতত্ত্বে তিনি তার এম.এস ডিগ্রী লাভ করেন। ওয়াশিংটন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সমুদ্রবিজ্ঞানে পিএইচডি ডিগ্রী সম্পন্ন করেন। অটোয়ার কানাডা জাতীয় গবেষণা সংস্থা থেকে পোস্ট-ডক্টরাল ফেলোশীপে অংশ নেন।

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

পানিবাহিত বৈশ্বিক সংক্রমণ রোগ ও বিশ্বব্যাপী স্বাস্থ্যের উপর প্রভাব বিষয়ে তার গবেষণার জন্য পরিচিতি হয়ে আছেন।[২] এ গবেষণাপত্রে তিনি আন্তর্জাতিক অঙ্গনের সম্পৃক্ততা ঘটিয়েছেন যাতে পানীয় জল / স্নানের জলের মাধ্যমে নতুন সংক্রামক রোগের উদ্ভবের বিষয় তুলে ধরেন। এ সমস্যাটির অধিকাংশই উন্নয়নশীল দেশে ঘটছে।

প্রথমদিককার গবেষণাকলেরা বিষয়ে অধ্যয়নকালীন কলওয়েল আবিষ্কার করেন যে, কলেরা রোগ প্রতিকূল অবস্থায় সুপ্ত অবস্থায় থাকে। এরপর অনুকূল অবস্থা ফিরে আসলে এ রোগটি তার স্বাভাবিক কর্মপন্থায় ফিরে আসে।[১]আবিষ্কারের ফলে বিজ্ঞানীরা কলেরার বিস্তার রোধ সম্পর্কে জ্ঞানলাভ ও নির্মূলে কাজ করতে শুরু করেন।

ন্যাশনাল সাইন্স ফাউন্ডেশন[সম্পাদনা]

সংস্থার প্রথম মহিলা পরিচালক মনোনীত হন কলওয়েল। এ পদে ১৯৯৮ থেকে ২০০৪ সময়কালীন অধিষ্ঠিত ছিলেন।[৩] ২০০২ সালে সংস্থার সদস্যদেরকে চিত্র উপস্থাপনার মাধ্যমে তিনি সংস্থার ভবিষ্যৎ রূপরেখা তুলে ধরেন। তিনি আরও ব্যাখ্যা করেন যে, একটি শিক্ষিত সমাজব্যবস্থা শুধুমাত্র প্রযুক্তিগত উন্নয়নেই সমালোচিত হচ্ছে না; বরঞ্চ জনগণ ও সরকারের উন্নয়নে সহায়তাও এর জন্য দায়ী।

কলওয়েল কে-১২ বিজ্ঞান ও গাণিতিক শিক্ষাব্যবস্থা প্রসারে আগ্রহী। বিজ্ঞান ও প্রকৌশলে মহিলা ও সংখ্যালঘুদের অংশগ্রহণ বৃদ্ধির প্রবক্তা তিনি।[৪] এনএসএফ উদ্যোগ অ্যাডভান্সের তহবিল দ্বিগুণকরণে তিনি জড়িত ছিলেন। এ প্রকল্পটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে বিজ্ঞান ও প্রকৌশলে জীবিকানির্বাহে মহিলাদের অগ্রগতিতে সহায়তা করছে। এছাড়াও কলওয়েল গাণিতিক ও পরিসংখ্যান বিজ্ঞানের নতুন অগ্রাধিকার এলাকায় জোরপূর্বক $৬০ মিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ করেন।[৫]

কসমসআইডি[সম্পাদনা]

২০০৮ সালে কসমসআইডি প্রতিষ্ঠান গঠন করেন। বর্তমানে তিনি এর সভাপতি।[৩] বায়োইনফরম্যাটিক্স সংস্থা হিসেবে কসমসআইডি বিশ্বকে স্বাস্থ্যসম্মত ও নিরাপদ রাখতে বাস্তুতন্ত্রের ভিন্নতার কার্যকলাপ চিহ্নিত করতে বিভিন্ন সরঞ্জামের উন্নয়ন ঘটাতে সচেষ্ট। এর অংশ হিসেবে কসমসআইডি জনস্বাস্থ্যের ঝুঁকি প্রতিরোধকল্পে উদ্যোগ, সঠিকমানের জবাবদিহিতা, উপযোগী চিকিৎসা থেরাপি ও সঠিক পদক্ষেপ নিচ্ছে।[৬]

সম্মাননা[সম্পাদনা]

রিতা কলওয়েল লেখক ও সহ-লেখক হিসেবে ৭৫০-এর অধিক বৈজ্ঞানিক প্রতিবেদন তৈরি করেছেন ও ১৭টি গ্রন্থ প্রকাশ করছেন।[৭]

কলওয়েল এ পর্যন্ত ৬১টি সম্মানসূচক ডিগ্রী লাভ করেছেন। তন্মধ্যে, ২০১৬ সালে নটরডেম বিশ্ববিদ্যালয়সেন্ট অ্যাণ্ড্রুজ বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্মানসূচক ডক্টরেট ডিগ্রী অন্যতম।[৩]

ব্যক্তিগত জীব ন[সম্পাদনা]

পার্দুতে ভৌত রসায়ন বিষয়ে স্নাতক শ্রেণীতে অধ্যয়নকালীন জ্যাক কলওয়েলের সাথে পরিচিত হন ও পরবর্তীতে পরিণয়সূত্রে আবদ্ধ হন।[১] এ দম্পতির দুই কন্যা রয়েছে। তারা পিতা-মাতার পদাঙ্ক অনুসরণ করে নিজেদেরকে বিজ্ঞানের কর্মক্ষেত্রে আবদ্ধ করে রেখেছে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Rita Rossi Colwell , MSA SC 3520-11592"msa.maryland.gov। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-০৯-২৩ 
  2. "RitaColwell - Cell Biology & Molecular Genetics"cbmg.umd.edu। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-০৯-১৩ 
  3. "US NSF - News - Rita R. Colwell, Biography"www.nsf.gov। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-১০-২০ 
  4. "Rita Colwell | UMIACS"www.umiacs.umd.edu। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-০৯-১৩ 
  5. "Director Rita R. Colwell's Remarks to The Engineering Deans Council Public Policy Colloquium, National Academy of Engineering, February 12, 2002"www.nsf.gov। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-১০-২৬ 
  6. "CosmosID Founder Rita Colwell"CosmosID - Exploring the Universe of Microbes। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-১০-২০ 
  7. Ayala, Christine (২০১৬)। "Rita R. Colwell"National Science and Technology Medals Foundation। সংগ্রহের তারিখ ২৯ অক্টোবর ২০১৬ 
পূর্বসূরী
ফ্রান্সিস্কো জে. আয়ালা
আমেরিকান এডভান্সমেন্ট সায়েন্স অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি
১৯৯৬
উত্তরসূরী
জেন লাবচেঙ্কো
পূর্বসূরী
নিল লেন
ন্যাশনাল সাইন্স ফাউন্ডেশনের পরিচালক
১৯৯৮-২০০৪
উত্তরসূরী
আর্ডেন এল. বেমেন্ট জুনিয়র