রত্নগিরি জেলা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
রত্নগিরি জেলা
মহারাষ্ট্রের জেলাসমূহর তালিকা
মহারাষ্ট্রের মধ্যে রত্নগিরি জেলার অবস্থান
মহারাষ্ট্রের মধ্যে রত্নগিরি জেলার অবস্থান
দেশভারত
রাজ্যমহারাষ্ট্র
বিভাগকোঙ্কণ বিভাগ
Headquartersরত্নগিরি
তালুকা১. মন্ডনগড়,
২. দাপোলি,
৩. খেড়,
৪. চিপলুন,
৫. গুহাগার,
৬. সঙ্গমেশ্বর,
৭. রত্নগিরি,
৮. লাঞ্জা,
৯. রাজাপুর
সরকার
 • লোকসভা কেন্দ্র১. [[রত্নগিরি-সিন্ধুদূর্গ লোকসভা কেন্দ্র| রত্নগিরি-সিন্ধুদুর্গ (সিন্ধুদুর্গ জেলাতে কিছু অংশ রয়েছে)]]),
২. রায়গড় লোকসভা কেন্দ্র (রায়গড় জেলাতে কিছু অংশ রয়েছ) (Election Commission website ওয়েবসাইটের উপর ভিত্তি করে)
আয়তন
 • মোট৮,২০৮ বর্গকিমি (৩,১৬৯ বর্গমাইল)
জনসংখ্যা (২০১১)
 • মোট১৬,১৫,০৬৯
 • জনঘনত্ব২০০/বর্গকিমি (৫১০/বর্গমাইল)
জনমিতি
 • সাক্ষরতা82.18%
সময় অঞ্চলভারতীয় স্থানীয় সময় (ইউটিসি+05:30)
জাতীয় সড়কজাতীয় সড়ক ৬৬ (ভারত), জাতীয় সড়ক ২০৪ (ভারত)
ওয়েবসাইটratnagiri.nic.in
১৮৯৬ সালে রত্নগিরি জেলা

রত্নগিরি জেলা ভারতের মহারাষ্ট্র রাজ্যের ৩৬টি প্রশাসনিক জেলার মধ্যে অন্যতম। জেলার সদর শহর রত্নগিরি তবে জেলার অর্থনৈতিক রাজধানী বলা যায় চিপলুন কে।২০১১ সালের জনগণনা অনুসারে রত্নগিরি জেলার জনসংখ্যা হল ১,৬১৫,০৬৯ জন যার মধ্যে ১১.৩৩% জনগণ শহরবাসী। জেলাটি পশ্চিমে আরব সাগর, দক্ষিণে সিন্ধুদুর্গ জেলা জেলা, উত্তরে রায়গড় জেলা এবং পূর্বে সাতারা, সাঙ্গলি ও কোলহাপুর জেলা দ্বারা সীমাবদ্ধ। এই জেলাটি কোঙ্কন বিভাগের অন্তর্গত।

প্রশাসনিক বিভাগ[সম্পাদনা]

রত্নগিরি জেলায় নয়টি তালুক বা সাবডিভিশন রয়েছে, সেগুলি হল রত্নগিরি, রাজাপুর, লঞ্জা, সঙ্গমেশ্বর, চিপলুন, গুহাগার, খেড়, দাপোলি এবং মন্ডনগড়। জেলাটিতে দুটি লোকসভা কেন্দ্র এবং ৫টি বিধানসভা কেন্দ্র রয়েছে। লোকসভা কেন্দ্র দুটি হল রত্নগিরি-সিন্ধুদূর্গ লোকসভা কেন্দ্র (কিছু অংশ সিন্ধুদুর্গ জেলাতে) এবং রায়গড় লোকসভা কেন্দ্র (কিছু অংশ রায়গড় জেলাতে)। বিধানসভা কেন্দ্রগুলি হলঃ রাজাপুর, রত্নগিরি, গুহাগার, চিপলুন এবং দাপোলি।

জনমিতি[সম্পাদনা]

২০১১ সালের জনগণনা অনুসারে রত্নগিরি জেলার জনসংখ্যা ১,৬১৫,০৬৯ জন[১] যা, গিনি-বিসাউ [২] রাষ্ট্র বা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রেআইডাহো রাজ্যে[৩] জনসংখ্যার সমান। জনসংখ্যার বিচারে ভারতের ৬৪০টি জেলার মধ্যে রত্নগিরির অবস্থান ৩১১তম।জেলাটির জনসংখ্যার ঘনত্ব প্রতি বর্গকিলোমিটারে ১৯৬ জন (৫১০ জন/ বর্গমাইল)। ২০০১-২০১১ এর দশকে এর জনসংখ্যা হ্রাসের হার ছিল ৪.৯৬%। রত্নগিরি জেলার লিঙ্গানুপাত প্রতি ১০০০ জন পুরুষ পিছু ১১৩৩ জন মহিলা এবং সাক্ষরতার হার ৮২.৪৩%।

২০১১ সালের জনগণনা অনুযায়ী জেলার বাসিন্দাদের ৮৮.১৮% জনগণ মারাঠি, ৭.৩৬% উর্দু, ১.৮৭% হিন্দি, ০.৯৭% কোঙ্কানি এবং ০.৫৭% কন্নড তাদের প্রথম ভাষা হিসেবে ব্যবহার করেন।[৪]

ঐতিহাসিক জনসংখ্যা
বছরজন.±%
১৯০১৮,৭১,৮৬৬—    
১৯১১৮,৯৩,৯৪৪+২.৫%
১৯২১৮,৫৬,০৩২−৪.২%
১৯৩১৯,৬৪,৫৫৮+১২.৭%
১৯৪১১০,২২,৮১৬+৬%
১৯৫১১০,৭৬,০৮০+৫.২%
১৯৬১১১,৪৬,২৪৩+৬.৫%
১৯৭১১২,৭৮,৭৪২+১১.৬%
১৯৮১১৩,৭৯,৬৫৫+৭.৯%
১৯৯১১৫,৪৪,০৫৭+১১.৯%
২০০১১৬,৯৬,৭৭৭+৯.৯%
২০১১১৬,১৫,০৬৯−৪.৮%

রত্নগিরি জেলার কিছু বিখ্যাত মানুষ[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "District Census 2011"। Census2011.co.in। ২০১১। সংগ্রহের তারিখ ২০১১-০৯-৩০ 
  2. US Directorate of Intelligence। "Country Comparison:Population"। সংগ্রহের তারিখ ২০১১-১০-০১Guinea-Bissau 1,596,677 July 2011 est. 
  3. "2010 Resident Population Data"। U. S. Census Bureau। সংগ্রহের তারিখ ২০১১-০৯-৩০Idaho 1,567,582 
  4. 2011 Census of India, Population By Mother Tongue
  5. Joglekar, Jaywant (২০০৬)। Veer Savarkar Father of Hindu Nationalism। পৃষ্ঠা 106। আইএসবিএন 978-1-84728-380-1। সংগ্রহের তারিখ ১৩ অক্টোবর ২০১৪