মুকরিন বিন আবদুল আজিজ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
মুকরিন বিন আবদুল আজিজ
Prince Muqrin bin Abdulaziz Al Saud.jpg
সৌদি আরবের যুবরাজ
দপ্তরকাল২৩ জানুয়ারি ২০১৫ – ২৯ এপ্রিল ২০১৫
পূর্বসূরিসালমান বিন আবদুল আজিজ
উত্তরসূরিমুহাম্মদ বিন নায়েফ
বাদশাহসালমান বিন আবদুল আজিজ
সৌদি গোয়েন্দা সংস্থার মহাপরিচালক
দপ্তরকালঅক্টোবর ২০০৫ – ১৯ জুলাই ২০১২
পূর্বসূরিনাওয়াফ বিন আবদুল আজিজ
উত্তরসূরিবন্দর বিন সুলতান
বাদশাহআবদুল্লাহ বিন আবদুল আজিজ
মদিনা প্রদেশের গভর্নর
দপ্তরকাল১৯৯৯–২০০৫
পূর্বসূরিআবদুল মজিদ বিন আবদুল আজিজ
উত্তরসূরিআবদুল আজিজ বিন মজিদ
বাদশাহফাহাদ বিন আবদুল আজিজ
হাইল প্রদেশের গভর্নর
দপ্তরকাল১৯৮০-১৯৯৯
উত্তরসূরিসৌদ বিন আবদুল মুহসিন
বাদশাহখালিদ বিন আবদুল আজিজ
ফাহাদ বিন আবদুল আজিজ
দ্বিতীয় উপপ্রধানমন্ত্রী
দপ্তরকাল২০১৪ - ২৩ জানুয়ারি ২০১৫
পূর্বসূরিসালমান বিন আবদুল আজিজ
উত্তরসূরিমুহাম্মদ বিন নায়েফ
বাদশাহআবদুল্লাহ বিন আবদুল আজিজ
জন্ম (1945-09-15) ১৫ সেপ্টেম্বর ১৯৪৫ (বয়স ৭৩)
রিয়াদ, সৌদি আরব
দাম্পত্য সঙ্গীআবতা বিনতে হামুদ আল রশিদ
পূর্ণ নাম
মুকরিন বিন আবদুল আজিজ আল সৌদ
রাজবংশআল সৌদ
পিতাআবদুল আজিজ ইবনে সৌদ
মাতাবারাকা আল ইয়ামানিয়া
ধর্মইসলাম (সুন্নি)

মুকরিন বিন আবদুল আজিজ (আরবি: مقرن بن عبدالعزيز آل سعود‎‎; জন্মঃ ১৫ সেপ্টেম্বর ১৯৪৫) সৌদি আরবের সাবেক যুবরাজ ছিলেন। তিনি ২০০৫ সাল থেকে ২০১২ সাল পর্যন্ত সৌদি গোয়েন্দা সংস্থার মহাপরিচালক হিসেবে দায়িত্বপালন করেছেন। ২০১২ সালের জুলাই মাসে তিনি মন্ত্রীর মর্যাদায় বাদশাহ আবদুল্লাহর উপদেষ্টা ও বিশেষ দূত নিযুক্ত হয়েছিলেন। ২০১৩ সালের ১ ফেব্রুয়ারি বাদশাহ আবদুল্লাহ তাকে দ্বিতীয় উপপ্রধানমন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ দেন।[১] ২০১৪ সালের ২৭ মার্চ তিনি উপযুবরাজ হিসেবে নিয়োগ পান।[২] ২০১৫ সালের ২৩ জানুয়ারি বাদশাহ আবদুল্লাহর মৃত্যুর পর সালমান বাদশাহ এবং মুকরিন যুবরাজ[৩] ও প্রথম উপপ্রধানমন্ত্রী হন। ২০১৫ সালের ২৯ এপ্রিল সালমান তার পরিবর্তে মুহাম্মদ বিন নায়েফকে যুবরাজ নিযুক্ত করেন।[৪]

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

মুকরিন বিন আবদুল আজিজ ১৯৪৫ সালের ১৫ সেপ্টেম্বর রিয়াদে জন্মগ্রহণ করেন।[৫][৬] তার মা বারাকা আল ইয়ামানিয়া ছিলেন ইয়েমেনি বংশোদ্ভূত।[৫][৭][৮]

শিক্ষাজীবন[সম্পাদনা]

মুকরিন রিয়াদ মডেল ইনস্টিটিউটে লেখাপড়া করেছেন।[১] এরপর তিনি ব্রিটেনের রয়েল এয়ার ফোর্স কলেজ ক্রানওয়েলে যোগ দেন। ১৯৬৮ সালে তিনি ফ্লাইট লেফটেন্যান্ট হিসেবে স্নাতক হন।[১][৯] যুক্তরাষ্ট্রে জেনারেল স্টাফ কোর্সে তিনি অংশ নিয়েছেন এবং ১৯৭৪ সালে ডিপ্লোমা অর্জন করেন।[১]

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

সৌদি বিমানবাহিনীতে কর্মরত থাকাকালীন মুকরিন বিন আবদুল আজিজ

মুকরিন বিমানবাহিনীর একজন পাইলট ছিলেন।[১০] ১৯৬৫ সালে তিনি সৌদি রাজকীয় বিমানবাহিনীতে যোগ দেন।[১১] ১৯৭০ সালে তিনি বিমানবাহিনীর ২য় এয়ার স্কোয়াড্রনের কমান্ডার হন। ১৯৭৩ সাল থেকে ১৯৭৭ সাল পর্যন্ত তিনি সৌদি বিমানবাহিনির বিভিন্ন পদে দায়িত্বপালন করেছেন। এরপর তিনি এয়ার অপারেশন্সের পরিচালকের এডজুটেন্ট হন।[১] পরবর্তীতে তিনি বিমানবাহিনির অপারেশন ও পরিকল্পনার প্রেসিডেন্ট হিসেবে পদন্নোতি পান।[১২] ১৯৮০ সালে তিনি বিমানবাহিনী ত্যাগ করেন।[১১]

গভর্নর[সম্পাদনা]

১৯৮০ ১৮ মার্চ বাদশাহ খালিদ বিন আবদুল আজিজ তাকে হাইল প্রদেশের গভর্নর নিয়োগ দেন। ১৯৯৯ সাল পর্যন্ত তিনি এই প্রদেশের গভর্নর ছিলেন।[১৩] ১৯৯৯ সালের ২৪ নভেম্বর তিনি মদিনা প্রদেশের গভর্নর। ইতিপূর্বে তার ভাই আবদুল মজিদ বিন আবদুল আজিজ মদিনার গভর্নর ছিলেন।[১৩] বাদশাহ ফাহাদ তাকে মদিনা শহরের আধুনিকায়নের নির্দেশ দিয়েছিলেন।[১২] মুকরিন প্রত্যন্ত এলাকায় শিক্ষা ও স্বাস্থ্য সেবার ব্যবস্থা গড়ে তুলেছেন।[১৪] গভর্নরের দায়িত্বপালনকালীন সময়ে তিনি ঐতিহ্যবাহী মূল্যবোধের পৃষ্ঠপোষকতা করেছেন।[১২] ২০০৫ সাল পর্যন্ত তিনি দায়িত্বপালন করেছেন।[১৫] আবদুল আজিজ বিন মজিদ এরপর মদিনার গভর্নর হন।[১৬]

গোয়েন্দা সংস্থার মহাপরিচালক[সম্পাদনা]

২০০৫ সালের ২২ অক্টোবর বাদশাহ আবদুল্লাহ তাকে গোয়েন্দা সংস্থা আল মুখাবারাত আল আমাহর মহাপরিচালক নিযুক্ত করেন।[১৩][১৫][১৭][১৮]

তিনি জানান যে আলকায়েদার সাথে লড়াইয়ের জন্য সংস্থাকে পুনর্গঠন করা হবে।[১৯] ২০১২ সালের ১৯ জুলাই তার স্থলে বন্দর বিন সুলতানকে নিযুক্ত করা হয়।[২০] একইসাথে তাকে মন্ত্রী মর্যাদার উপদেষ্টা ও বিশেষ দূত নিযুক্ত করার ঘোষণাও দেয়া হয়।[২০][২১] দক্ষিণপূর্ব এশিয়া বিষয়ে তাকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছিল।[২২]

কর্মকাণ্ড[সম্পাদনা]

গোয়েন্দা সংস্থার প্রধান থাকাকালে তিনি পাকিস্তানের রাজনীতিতে সক্রিয় ভূমিকা রেখেছেন।[১৭] বেনজির ভুট্টো তাড়াতাড়ি দেশে ফিরে আসায় এবং ২০০৮ সালের আসন্ন নির্বাচনের কারণে নওয়াজ শরিফ ২০০৭ সালে মুকরিনের না ফেরার পরামর্শ সত্ত্বেও দেশে ফেরেন।[২৩][২৪] তবে তাকে এরপর দ্রুত পাকিস্তান থেকে বের করে দেয়া হয়। মুকরিন জেদ্দা বিমানবন্দরে তাকে অভ্যর্থনা জানান।[২৫] মুকরিন পাকিস্তানের রাজনৈতিক সমঝোতার সাথে জড়িত ছিলেন।[২৬][২৭]

দ্বিতীয় উপপ্রধানমন্ত্রী ও উপযুবরাজ[সম্পাদনা]

২০১৩ সালের ১ ফেব্রুয়ারি বাদশাহ আবদুল্লাহ কর্তৃক মুকরিন দ্বিতীয় উপপ্রধানমন্ত্রী পদে নিযুক্ত হন।[২৮] ইতিপূর্বে ২০১১ সালের অক্টোবর থেকে এই পদ খালি ছিল।[২৮][২৯] একই সাথে তিনি তার পূর্বোক্ত উপদেষ্টা ও বিশেষ দূতের পদেও বহাল থাকেন।[৩০]

২০১৪ সালের ২৭ মার্চ জারিকৃত ফরমানে মুকরিনকে উপযুবরাজের পদ প্রদান করা হয়।

যুবরাজ[সম্পাদনা]

মুকরিন ২০১৫ সালের ২৩ জানুয়ারি যুবরাজ ও প্রথম উপপ্রধানমন্ত্রী হিসেবে নিযুক্ত হন।[৩] প্রায় তিনমাস পর ২৯ এপ্রিল মুহাম্মদ বিন নায়েফ যুবরাজ হন।[৪]

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

মুকরিনের স্ত্রী আবতা বিনতে হামুদ আল রশিদ।[৩১] মুকরিন মদিনার গভর্নর থাকাকালীন সময়ে তিনি মহিলা কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট ছিলেন।[৩১] মুকরিনের চৌদ্দ সন্তান রয়েছে।[৩২]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Profile: Prince Muqrin bin Abdulaziz"Asharq Alawsat। ২ ফেব্রুয়ারি ২০১৩। ৩০ জানুয়ারি ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৩ 
  2. "Saudi Prince Muqrin named second-in-line to succeed king"Reuters। ২৭ মার্চ ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ ২৭ মার্চ ২০১৪ 
  3. Saudi Arabia's King Abdullah bin Abdulaziz dies BBC. 23 January 2015. Retrieved 20 March 2015.
  4. "Saudi King Salman appoints Prince Mohammed bin Nayef as new crown prince-state TV"Reuters। ২৯ এপ্রিল ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ২৮ এপ্রিল ২০১৫ 
  5. Iqbal Latif (১৬ জুন ২০১২)। "Two Down and One to Go — Prince Salman will be the last of Sudairi Seven!"Newsvine। ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৫ জুন ২০১২ 
  6. "With Prince Muqrin's Appointment, Saudi Succession Crisis Looms"The Daily Beast। ৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৩ 
  7. "The Al Saud dynasty"Islam Daily। ৬ জুলাই ২০০৬। ২ নভেম্বর ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৬ মে ২০১২ 
  8. Simon Henderson (আগস্ট ২০০৯)। "After King Abdullah" (Policy Paper)Washington Institute। সংগ্রহের তারিখ ২৮ জুলাই ২০১২ 
  9. "Saudi king appoints his advisor as prime minister's second deputy"Al Arabiya। ১ ফেব্রুয়ারি ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ ১ ফেব্রুয়ারি ২০১৩ 
  10. Simon Henderson (১৯৯৪)। "After King Fahd" (Policy Paper)Washington Institute। সংগ্রহের তারিখ ২ ফেব্রুয়ারি ২০১৩ 
  11. "Crown Prince Muqrin bin Abdulaziz"Royal Embassy। ২৭ জানুয়ারি ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৫ জানুয়ারি ২০১৫ 
  12. "Prince Muqrin bin Abdulaziz Al Saud"C. Ayoub World News। ২৮ অক্টোবর ২০১১। ৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৪ মে ২০১২ 
  13. "General President"General Intelligence Presidency। ৮ নভেম্বর ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৪ মে ২০১২ 
  14. Abdulateef Al Mulhim (৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৩)। "Prince Muqrin: A pilot, an astronomer and a politician"Arab News। সংগ্রহের তারিখ ৬ এপ্রিল ২০১৩ 
  15. P.K. Abdul Ghafour (২৩ অক্টোবর ২০০৫)। "Prince Muqrin New Intelligence Chief"Arab News। সংগ্রহের তারিখ ২৪ মে ২০১২ 
  16. "Prince Miqrin Appointed President Of General Intelligence"SAMIRAD। ২২ অক্টোবর ২০০৫। সংগ্রহের তারিখ ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১৩ 
  17. Devenny, Patrick (২০ জুলাই ২০০৯)। "The List: The Middle East's Most Powerful Spooks"Foreign Policy। ১৫ অক্টোবর ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৪ মে ২০১২ 
  18. "Saudis Appoint a New Chief of Intelligence"The New York Times। Reuters। ২৩ অক্টোবর ২০০৫। সংগ্রহের তারিখ ৫ আগস্ট ২০১২ 
  19. Cordesman, Anthony H. (২০০৯)। Saudi Arabia: National Security in a Troubled Region। Santa Barbara: ABC-CLIO। 
  20. Ellen Knickmeyer (২০ জুলাই ২০১২)। "Saudi Appointment Suggests Bigger Regional Ambitions"The Wall Street Journal। সংগ্রহের তারিখ ২০ জুলাই ২০১২ 
  21. "Saudi king names ex-U.S. envoy as intelligence chief"CNN। ১৯ জুলাই ২০১২। সংগ্রহের তারিখ ২০ জুলাই ২০১২ 
  22. Talal Kapoor (৮ আগস্ট ২০১২)। "The Return of Bandar bin Sultan" (Commentary)Datarabia। সংগ্রহের তারিখ ৯ আগস্ট ২০১২ 
  23. "Musharraf allows rival to return to Pakistan"The Guardian। ২৪ নভেম্বর ২০০৭। সংগ্রহের তারিখ ৬ এপ্রিল ২০১৩ 
  24. "Former Pakistan Leader Sharif Desires Return"NPR। ৭ জুন ২০০৭। সংগ্রহের তারিখ ৬ এপ্রিল ২০১৩ 
  25. "Ex-PM Sharif returns to Pakistan"BBC। ২৫ নভেম্বর ২০০৭। সংগ্রহের তারিখ ৬ এপ্রিল ২০১৩ 
  26. "Saudi spy chief meets Musharraf, Nawaz Sharif"Daily Times। ১৬ আগস্ট ২০০৮। সংগ্রহের তারিখ ২৪ মে ২০১২ 
  27. "Saudi Arabia's Ailing Gerontocracy"David Ottoway। ১ ডিসেম্বর ২০১০। ২০ এপ্রিল ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২১ জুলাই ২০১৩ 
  28. "Saudi Arabia appoints Prince Muqrin as second deputy PM"Reuters। ১ ফেব্রুয়ারি ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ ১ ফেব্রুয়ারি ২০১৩ 
  29. "Saudi king 'names brother deputy premier'"France 24। ১ ফেব্রুয়ারি ২০১৩। ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১ ফেব্রুয়ারি ২০১৩ 
  30. "Custodian of the Two Holy Mosques Arrives in Riyadh coming from Rawdhat Khuraim"Arab News। ২২ এপ্রিল ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ ২২ এপ্রিল ২০১৩ 
  31. Raphaeli Nimrod (সেপ্টেম্বর ২০০৩)। "Saudi Arabia: A brief guide to its politics and problems"MERIA7 (3)। সংগ্রহের তারিখ ৬ এপ্রিল ২০১৩ 
  32. "Family Tree of Muqrin bin Abdulaziz Al Saud"Datarabia। সংগ্রহের তারিখ ৫ আগস্ট ২০১২ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

Saudi Arabian royalty
পূর্বসূরী
সালমান বিন আবদুল আজিজ
সৌদি আরবের যুবরাজ
২৩ জানুয়ারি ২০১৫ – ২৯ এপ্রিল ২০১৫
উত্তরসূরী
মুহাম্মদ বিন নায়েফ
রাজনৈতিক দপ্তর
পূর্বসূরী
নাসের বিন আবদুল্লাহ আল আশ-শাইখ
হাইল প্রদেশের গভর্নর
১৯৮০–১৯৯৯
উত্তরসূরী
সৌদ বিন আবদুল মুহসিন
পূর্বসূরী
আবদুল মজিদ বিন আবদুল আজিজ আল সৌদ
মদিনা প্রদেশের গভর্নর
১৯৯৯–২০০৫
উত্তরসূরী
আবদুল আজিজ বিন মজিদ
পূর্বসূরী
নাওয়াফ বিন আবদুল আজিজ
President of Al Mukhabarat Al A'amah
২০০৫–২০১২
উত্তরসূরী
বন্দর বিন সুলতান
পূর্বসূরী
নতুন দপ্তর
সৌদি আরবের বিশেষ দূত
২০১২–২০১৫
উত্তরসূরী
সৌদ বিন ফয়সাল বিন আবদুল আজিজ আল সৌদ
পূর্বসূরী
নায়েফ বিন আবদুল আজিজ
দ্বিতীয় উপপ্রধানমন্ত্রী
২০১৩–২০১৫
উত্তরসূরী
মুহাম্মদ বিন নায়েফ
পূর্বসূরী
সালমান বিন আবদুল আজিজ
প্রথম উপপ্রধানমন্ত্রী
জানুয়ারি-এপ্রিল ২০১৫
উত্তরসূরী
মুহাম্মদ বিন নায়েফ