মহান ইউ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
Jump to navigation Jump to search
মহান ইউ
King Yu of Xia.jpg
মহান ইউ
চীনা 大禹

মহান ইউ (চীনা: 大禹; ফিনিন: Dà Yǔ, আনু. খ্রিষ্টপূর্ব ২২০০ অব্দ – খ্রিষ্টপূর্ব ২১০১ অব্দ)[১] ছিলেন প্রাচীন চীনের সিয়া সাম্রাজ্যের প্রতিষ্ঠাতা সম্রাট। তিনি সে সময়ে চীনের মহাপ্লাবন নিয়ন্ত্রনের জন্য সুপরিচিত ছিলেন।[২] ইউ চীনের অন্যতম একজন শাসক যার নামের পাশে 'দ্য গ্রেট' পদবী দিয়ে সম্মানিত করা হয়েছে।[৩]

ওরাকল হাড় থেকে প্রাপ্ত তথ্য থেকে অনুমান করা হয় ইউর রাজত্বকাল শাং সাম্রাজ্য সময়কালেরও পূর্বে ছিল।[৪] পরবর্তীকালে প্রাপ্ত ওরাকল হাড় থেকেও ইউর সময়কালের কোনো তথ্য পাওয়া যায় নি। তার সম্পর্কে কোনো লিখিত তথ্য না পাওয়ায় এ নিয়ে মতবিরোধ সৃষ্টি হয়েছে। একদল মনে করেন, তার রাজত্বকাল সম্পর্কে মুখে মুখে ছড়িয়ে গল্প ঝাও সাম্রাজ্য সময়কালে লিপিবদ্ধ করা হয়েছিল।[৫] আরেকদল মনে করে তিনি উপদেবতা হিসেবে সিয়া সাম্রাজ্য সময়কালে আবির্ভূত হয়েছিলেন, যাকে ঝাও সাম্রাজ্য সময়কাল থেকে মানুষ হিসেবে ধারণা করা হতে থাকে। তার সম্পর্কে অনেক কাহিনী সিমা কিয়ান রচিত ইতিহাসের আলেখ্য গ্রন্থে পাওয়া যায়। কনফুসিয়াস ও অন্যান্য প্রাচীন পন্ডিতেরা ইউ এবং তার পরবর্তী সময়কালের সম্রাটদের তাদের নৈতিক গুণাবলীর জন্য প্রশংসা করেছেন।[৬]

পূর্বপুরুষ ও প্রাথমিক জীবন[সম্পাদনা]

চীনের প্রাচীন গ্রন্থ থেকে পাওয়া যায় ইউ ছিলেন পাঁচ সম্রাটদের প্রথম সম্রাট হুয়াংডির ৮ম বংশধর, তার পিতা গুন ছিলেন সম্রাট ঝুয়াংক্সুর ৫ম বংশধর, ঝুয়াংক্সুর পিতা চাংয়ি ছিলেন হুয়াংডির দ্বিতীয় পুত্র।[৭] ইউ ওয়েব পর্বত (汶山), বর্তমান সিচুন প্রদেশের বেইচুনে,[৮] মতান্তরে শিফাং-এ জন্মগ্রহণ করেন.[৯] ইউর মা ছিলেন ইউক্সিন সম্প্রদায়ের, নাম নুজি (女志) বা নুসি (女嬉)।

যখন ইউ ছোট ছিল তার পিতা গুন তার লোকবল নিয়ে মধ্য চীনের সমতল ভূমিতে চলে আসেন। সম্রাট ইয়াও তাকে চং বা সং পর্বতের মধ্যবর্তী এলাকার প্রধান হিসেবে নিযুক্ত করেন। ধারণা করা হয়, ইউ হুয়াংহো নদীর দক্ষিণে সং পর্বতের পাশে শৈশব কাটিয়েছেন।[১০] তিনি তু পর্বত (চীনা: 塗山) এলাকার তুশান সি (塗山氏; "Lady Tushan") নামে একজনকে বিয়ে করেছিলেন।[১১] তু পর্বতের অবস্থান নিয়ে মতবিরোধ রয়েছে। দু'টি প্রধান মত হল আনহুই প্রদেশ বা চংকিং-এর দক্ষিণ পর্বত। তাদের এক পুত্র, নাম সিয়াকি[১১]

মহাপ্লাবন নিয়ন্ত্রন[সম্পাদনা]

হান সাম্রাজ্য সময়কালে অঙ্কিত ইউর ছবি

সম্রাট ইয়াও-এর রাজত্বকালে মহাপ্লাবনের কারনে চীনের অর্থনৈতিক ও সামাজিক ব্যবস্থা ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছিল।[১২] ইউর পিতা গুনকে বন্যা নিয়ন্ত্রনের দায়িত্ব দেওয়া হয়। তিনি হুয়াংহো নদীর তীরে বাঁধ নির্মাণ করেন কিন্তু নয় বছরেও বন্যা নিয়ন্ত্রন সম্ভব হয় নি। ইউ প্রাপ্ত বয়স্ক হলে তিনি নদীর গতিপথ পর্যবেক্ষণ করেন এবং অনুসন্ধান করেন কেন তার পিতার প্রচেষ্টা ব্যর্থ হয়েছে।[১৩]

ইউ পৌরাণিক কৃষিবিদ হৌজিকে নিয়ে প্লাবন নিয়ন্ত্রনের একটি কৌশল আবিস্কার করেন, যা তখনকার সময়ের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ ছিল। সরাসরি স্রোতের পথে বাঁধ না তৈরি করে তিনি খাল খনন করে কৃষি জমিতে জলসেচের ব্যবস্থা করেন এবং নদী খনন করেন। কথিত আছে, ইউ সাধারণ মানুষদের সাথে খেতেন ও ঘুমাতেন এবং তেরো বছর তাদের সাথে নিজেও খনন কাজে অংশগ্রহণ করেছেন। তার এই জলসেচ ও নদী খনন সফল হয়েছিল এবং এর মাধ্যমে হুয়াংহো নদী, ওয়ে নদী, এবং মধ্য চীনের অন্যান্য জলাশয়কে ঘিরে প্রাচীন চীনের সংস্কৃতি সমৃদ্ধ হয়েছিল। ইউ তার এই কাজের মাধ্যমে চীনের ইতিহাসে সুপরিচিত এবং চীনের ইতিহাসে তা গ্রেট ইউর মহাপ্লাবন নিয়ন্ত্রণ (চীনা: 大禹治水; ফিনিন: Dà Yǔ Zhì Shuǐ) নামে লিখিত রয়েছে। লংম্যান পর্বত ও হুয়াংহো নদীর মধ্য দিয়ে একটি অপ্রশস্ত বদ্ধ জলাশয় ছিল যা পূর্বে সমুদ্রের দিকে পানির প্রবাহকে বাধাগ্রস্ত করত। কথিত আছে, ইউ তার জনবল নিয়ে জলাশয়টিকে খনন করে, যা পরবর্তীকালে ইউর পরিখা (চীনা: 禹門口) নামে পরিচিতি লাভ করে।[১৪]

পৌরাণিক গল্প[সম্পাদনা]

চতুর্থ শতাব্দীতে ওয়াং জিয়া রচিত শি য়ি জি গ্রন্থ থেকে প্রাপ্ত পৌরাণিক গল্প থেকে পাওয়া যায় যে, ইউ বন্যা নিয়ন্ত্রনে হলুদ ড্রাগন ও কালো কচ্ছপের সাহায্য লাভ করেছিল।[১৫] অন্য আরেকটি স্থানীয় পৌরাণিক গল্পে বর্ণিত আছে যে বন্যা নিয়ন্ত্রনে ইউ স্বর্গীয় যুদ্ধ-কুঠার দিয়ে উঁচু পাহাড় কেটে সানমেক্সিয়া জর্জ লংম্যান ও ইয়ানজি নদীতে পানির পথ তৈরি করেছিল। ইউ গং গং-এর মন্ত্রী নয় মাথাওয়ালা দানবীয় সাপ জিয়ানলিউকে হত্যা করেছিল বলে কথিত আছে।[১৬] ব্যাম্বু অ্যানালস-এ বর্ণিত আছে যে, ইউ ক্যু চাই পর্বতে সকল উপদেবতাদের সভা ডাকলে, ফেংফেং পরে এসে তাকে অপমান করে। অন্য বর্ণনায় আছে, ফেংফেং বিভিন্ন সম্প্রদায়ের লোকদের ভীত সন্ত্রস্ত করত। ফেংফেং ছিল নয় মাথাওয়ালা বিরাটাকার সরীসৃপ, যার বমি থেকে বিষাক্ত উপাদান বের হত। ইউ তখন ড্রাগনের রূপ ধারন করে ফেংফেংয়ের মাথা ঘাড় থেকে আলাদা করে ফেলেন।[১৭]

পুরাণে বর্ণিত আছে ইউ বন্যা নিয়ন্ত্রনের জন্য অনেক ত্যাগ স্বীকার করেছিলেন। তার হাত পা উভয়ই অসাড় হয়ে গিয়েছিল। বলা হয়ে থাকে যে, তার বিয়ের চতুর্থ দিনে তাকে মহাপ্লাবন নিয়ন্ত্রনের দায়িত্ব দেয়া হয়েছিল। বন্যার প্রকোপ চলাকালীন তিনি তেরো বার তার বাড়ির সামনে দিয়ে গেলেও তিনি বাড়িতে প্রবেশ করেননি। প্রথমবার যখন তিনি তার বাড়ির পথ দিয়ে যাচ্ছিলেন তখন তিনি শুনেছিলেন তার স্ত্রীর প্রসব বেদনা হচ্ছিল। দ্বিতীয়বার যখন গিয়েছিলেন তখন তার ছেলে বাবা ডাকা শুরু করেছিল। তার পরিবারের সদস্যরা তাকে বাড়িতে আসতে বললে তখনো বন্যার প্রকোপ কমেনি বলে তিনি যাননি। তৃতীয়বার তার ছেলের বয়স দশের বেশি হয়েছিল। মহাপ্লাবনে অসংখ্য মানুষ বাড়িঘর হারাচ্ছে এই কারনে প্রত্যেকবার তিনি বাড়ি যেতে মানা করেন।[১৮]

নয় প্রদেশ[সম্পাদনা]

সম্রাট ইয়াওয়ের পর সম্রাট সুন সিংহাসনে আরোহণ করেন। সম্রাট সুন ইউর কাজে মুগ্ধ হন এবং তার পুত্রের পরিবর্তে তাকে সিংহাসনের উত্তরাধিকারী করেন।[১৯] ইউ প্রথমে অসম্মতি জানালেও পরে স্থানীয় সম্প্রদায়ের নেতাদের পীড়াপীড়িতে ৫৩ বছর বয়সে সম্রাট হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন। তিনি আনয়িতে (চীনা: 安邑) তার নতুন রাজধানী স্থাপন করেন, যার ধ্বংসাবশেষ বর্তমানে শানসি প্রদেশে অবস্থিত।[২০]

মহাপ্লাবন নিয়ন্ত্রনের ফলে ইউ তৎকালীন হান সাম্রাজ্যভুক্ত সকল অঞ্চলে সুপরিচিত হয়ে ওঠেন। ইউ গং বুক অব ডকুমেন্ট পুস্তক অনুসারে, ইউ চীনকে নয়টি ঝাও বা প্রদেশে বিভক্ত করেন। সেগুলো ছিল জিঝাও (冀州), ইয়ানঝাও (兗州), কিংঝাও (青州), সুঝাও (徐州), ইয়াংঝাও (揚州), জিংঝাও (荊州), য়ুঝাও (豫州), লিয়ানঝাও (梁州) এবং ইয়ংঝাও (雍州)। রায়টস অব ঝাও অনুসারে, সে সময়ে সুঝাও ও লিয়াংঝাও নামে কোনো প্রদেশ ছিল না, বরং তা ইউঝাও (幽州) এবং বিংঝাও (并州) নামে পরিচিত ছিল। ইর‍্যা অনুসারে, কিংঝাও ও লিয়াংঝাও নামে প্রদেশ ছিল না, তা ইউঝাও (幽州) এবং ইংঝাও (營州) নামে পরিচিত ছিল।[২১]

যেই পুস্তকেই বিবেচনা করা হোক না কেন, সব কয়টি পুস্তকে নয়টি প্রদেশের উল্লেখ রয়েছে। ইউ নয়টি প্রদেশ থেকে ব্রোঞ্জ সংগ্রহ করে ডিং নির্মাণ করেন।[২২] ইউ পরে ডেংফেং-এ তার রাজধানী স্থাপন করেন।[২৩]

শাওসিনে ইউর স্মৃতিস্তম্ভ

মৃত্যু[সম্পাদনা]

ইউর স্মৃতিস্তম্ভের মন্দির

ব্যাম্বু অ্যানালস অনুসারে, ইউ সিয়া সাম্রাজ্যকে ৪৫ বছর শাসন করেন। ইউয়ে জুয়েশু (越絕書) অনুসারে, ইউ অসুস্থতার কারণে মৃত্যুবরণ করেন। কথিত আছে, তিনি শিকারে গিয়ে খুয়াইজি পর্বতে মারা যান, যা বর্তমান শাওসিনের দক্ষিণে অবস্থিত। তাকে সেখানেই সমাহিত করা হয়। খ্রিষ্টীয় ষষ্ঠ শতাব্দীতে তার সম্মানে প্রথম তার স্মৃতিস্তম্ভ (大禹陵) নির্মিত হয়।[২৪] স্তম্ভটি শাওসিন শহরের চার কিলোমিটার দক্ষিণে অবস্থিত।[২৪] পরবর্তীকালে আরও কিছু অংশ নির্মিত হয়। স্মৃতিস্তম্ভের প্রধান তিনটি অংশ হল ইউর কবর (禹陵), স্মৃতিমন্দির (禹廟) ও স্মৃতিচিহ্ন (禹祠)।[২৫] তার অনেক মূর্তিতে তাকে প্রাচীন নিড়ানি (耒耜) হাতে দেখা যায়। পরবর্তীকালের অনেক সম্রাটেরা তার সম্মানার্থে আনুষ্ঠানিকতা পালন করতে খুয়াইজি পর্বতে যান।[২৬]

ঐতিহাসিক সত্যতা[সম্পাদনা]

ইউর অস্তিত্ব সম্পর্কে কোন লিখিত কিছু না পাওয়া যাওয়ায় তার ঐতিহাসিক সত্যতা নিয়ে দ্বিমত রয়েছে। তার কথিত সময়কালের কোনো প্রত্নতাত্বিক বস্তু থেকেও তার সম্পর্কে কোনো তথ্য পাওয়া যায় নি, এমনকি তার পরবর্তী সময়কালের ওরাকল হাড় থেকেও না। ইউ সম্পর্কিত প্রথম প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শন পাওয়া যায় আরও হাজার বছর পরে পশ্চিম ঝাও সাম্রাজ্যের সময়কালে প্রাপ্ত মৃৎপাত্র থেকে। বিংশ শতাব্দীর প্রথমদিকে ইতিহাসবেত্তাদের তত্ত্ব অনুসারে, ইউ মানুষ নয় বরং কোনো দেবতা বা পৌরাণিক প্রাণী ছিলেন। এই তত্ত্বে বলা হয়, তিনি ব্রোঞ্জের তৈরি সমরাস্ত্র পরিধান করতেন। ঝাও সাম্রাজ্য সময়কালে প্রথম তার মনুষ্য রূপ অঙ্কিত হয়। চীনা পুরাণ অনুসারে, ইউ ছিলেন একজন উপদেবতা। তিনি ড্রাগনের রূপ ধারন করতে পারতেন।[১৭]

প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শন থেকে পাওয়া যায় যে, হুয়াংহো নদীতে যে প্লাবন সৃষ্টি হয়েছিল তা খ্রিষ্টপূর্ব ১৯২০ অব্দের দিকে হতে পারে। এই বন্যা খুব সম্ভব ২০ বছর স্থায়ী হয়েছিল। এ থেকে ধারণা করা হয়, ইউ দ্য গ্রেট একজন ঐতিহাসিক ব্যক্তি ছিলেন।[২৭]

আধুনিক সময়[সম্পাদনা]

চীনের গনতান্ত্রিক শাসনামলে সান ইয়াত সেন ইউর মত ইয়ানজি নদীর বন্যা নিয়ন্ত্রনের ব্যবস্থা গ্রহণ করেছিলেন। কিন্তু ক্যুমিংতান জাপানচীনের কমিউনিস্ট পার্টির সাথে যুদ্ধে জড়িয়ে পরলে তার এই উদ্যোগ বাস্তবায়িত হয় নি।[২৮] সিচুয়ান প্রদেশের বেইচুয়ান, ওয়েনচুয়ান ও ডুজিয়াংগান শহরে ইউ দ্য গ্রেটের 'শিফাং' রয়েছে।[২৯]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Wang Quangen 王泉根, (1993). Huaxia Quming Yishu 華夏取名藝術. (Taipei: Zhishu-fang Chuban Jituan 知書房出版集團), 42.
  2. "সিয়া রাজবংশ-- ইতিহাসে চীনের প্রথম রাজবংশ"ক্রাই অনলাইন। সংগ্রহের তারিখ ৫ নভেম্বর ২০১৬ 
  3. মুনগেলো, ডেভিড ই. (২০০৯)। The Great Encounter of China and the West, 1500–1800 (৩য় সংস্করণ)। Rowman & Littlefield। পৃষ্ঠা ৯৭। আইএসবিএন 9780742557987 
  4. আন্ডারহিল, অ্যানি পি., সম্পাদক (২০১৩)। A Companion to Chinese Archaeology। উইলি-ব্ল্যাকওয়েল। পৃষ্ঠা ৩১৭। আইএসবিএন 978-1-4443-3529-3 
  5. অ্যালান, সারাহ (১৯৯১)। The Shape of the Turtle: Myth, Art, and Cosmos in Early China। স্টেট ইউনিভার্সিটি অব নিউইয়র্ক প্রেস। পৃষ্ঠা ২১। আইএসবিএন 978-0-7914-9449-3 
  6. 戴逸, 龔書鐸. [2002] (2003) 中國通史. 史前 夏 商 西周. Intelligence press. আইএসবিএন ৯৬২-৮৭৯২-৮০-৬. p 36.
  7. Zynews.com. "Zynews.com." Xia dynasty brief history. Retrieved on 2010-09-18.
  8. "Jiangsu.gov.cn." 四川省汶川縣情及人文地理. (Chinese) Retrieved on 2010-09-18.
  9. Scta.gov.cn. "Scta.gov.cn." (Chinese) Retrieved on 2010-09-18.
  10. Hubeiwater.gov.cn. Hubeiwater.gov.cn 大禹三过家门而不入与洪湖抗洪十字歌的精神浅谈. (Chinese). Retrieved on 2010-09-18.
  11. Wang Hengwei 王恆偉. (2006) Zhongguo Lishi Jiangtang 中國歷史講堂 #1 Yuan Gu Zhi Chunqiu 遠古至春秋. Zhonghua Shuju 中華書局. আইএসবিএন ৯৬২-৮৮৮৫-২৪-৩. p 18.
  12. Lu, Xing. Rhetoric in ancient China, fifth to third century, B.C.E.: a comparison with classical Greek rhetoric. [1998] (1998). Univ of South Carolina Press publishing. আইএসবিএন ১-৫৭০০৩-২১৬-৫, আইএসবিএন ৯৭৮-১-৫৭০০৩-২১৬-৫. p 46–47.
  13. "Gun-Yu and the Chinese Flood Myth"এনশিয়েন্ট অরিজিন। সংগ্রহের তারিখ ৫ নভেম্বর ২০১৬ 
  14. স্টোরি, পল ডি. (২০০৬)। Yu the Great: Conquering the Flood, a Chinese Legend (Graphic Myths And Legends)। গ্রাফিক ইউনিভার্স। আইএসবিএন 9780822565628 
  15. লুইস, মার্ক এডওয়ার্ড (২০০৬), The flood myths of early China, SUNY series in Chinese philosophy and culture, স্টেট ইউনিভার্সিটি অব নিউইয়র্ক প্রেস, পৃষ্ঠা ১০৪–১০৫, ১৯১–১৯২, আইএসবিএন 0-7914-6663-9  (especially, notes 90 and 97). The relevant text is in শি য়ি জি: "黃龍曳尾於前,玄龜負青泥於後", etc.
  16. Destguides.com. "Destguides.com." Sanmenxia. Retrieved on 2010-09-26.
  17. "Dragons of Fame - Yu"ব্ল্যাকড্রাগো। সংগ্রহের তারিখ ৫ নভেম্বর ২০১৬ 
  18. "Yu and Gun"ক্রাই অনলাইন। সংগ্রহের তারিখ ৫ নভেম্বর ২০১৬ 
  19. "ইয়াও ও সুনের যোগ্য উত্তাধিকারী নির্বাচণের কাহিনী"ক্রাই অনলাইন। সংগ্রহের তারিখ ৫ নভেম্বর ২০১৬ 
  20. 王恆偉. (2005) (2006) 中國歷史講堂 #1 遠古至春秋. 中華書局. আইএসবিএন ৯৬২-৮৮৮৫-২৪-৩. p 21.
  21. Ng Saam-sing 吾三省. (2008). Zong-guok Man-faa Bui-ging Bat-cin Ci 中國文化背景八千詞. Hong Kong: Seong Mou Jan Syu Gwun 商務印書館(香港). আইএসবিএন ৯৬২-০৭-১৮৪৬-১, আইএসবিএন ৯৭৮-৯৬২-০৭-১৮৪৬-৫. p 37.
  22. Bjaaland Welch, Patricia. (2008). Chinese art: a guide to motifs and visual imagery. Tuttle Publishing. আইএসবিএন ০-৮০৪৮-৩৮৬৪-X, 9780804838641. p 262.
  23. 李玉潔. [2003] (2003). 中國早期國家性質. 知書房出版集團. আইএসবিএন ৯৮৬-৭৯৩৮-১৭-৮, আইএসবিএন ৯৭৮-৯৮৬-৭৯৩৮-১৭-৬.
  24. China.org.cn. "China.org.cn." Yu Mausoleum. Retrieved on 2010-09-26.
  25. lvyou.eco.gov.cn. "lvyou.eco.gov.cn." 治水英雄大禹的葬地:大禹陵. Retrieved on 2010-09-26.
  26. Chinaculture.org. "Chinaculture.org." 大禹祭典. Retrieved on 2010-09-26.
  27. Qinglong Wu, Zhijun Zhao, Li Liu, Darryl E. Granger, Hui Wang, David J. Cohen, Xiaohong Wu, Maolin Ye, Ofer Bar-Yosef, Bin Lu, Jin Zhang, Peizhen Zhang, Daoyang Yuan, Wuyun Qi, Linhai Cai & Shibiao Bai (৫ আগস্ট ২০১৬), Outburst flood at 1920 BCE supports historicity of China’s Great Flood and the Xia dynasty, ৩৫৩ (৬২৯৯), Science, পৃষ্ঠা ৫৭৯-৫৮২, সংগ্রহের তারিখ ৫ নভেম্বর ২০১৬ 
  28. ইয়ান, হং-সেন। Reconstruction designs of lost ancient Chinese machinery Volume 3 of History of mechanism and machine science। পৃষ্ঠা ৪৮। আইএসবিএন 978-1-4020-6459-3 
  29. Sichuan.scol.com.cn. "Scol.com.cn." 发现西羌古道有关遗迹大禹故乡迷雾更浓 . Retrieved on 2010-09-26.

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

মহান ইউ
রাজত্বকাল শিরোনাম
পূর্বসূরী
সম্রাট সুন
চীনের সম্রাট
আনু. খ্রিষ্টপূর্ব ২২০৫ অব্দ – খ্রিষ্টপূর্ব ২১৪৭ অব্দ
উত্তরসূরী
সিয়াকি

টেমপ্লেট:সিয়া সম্রাট