ময়েন উদ্দিন সরকার

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
ময়েন উদ্দিন সরকার
ময়েন উদ্দীন.jpg
রংপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য
কাজের মেয়াদ
১৯৮৬ – ১৯৯১
পূর্বসূরীশফিকুল গনি স্বপন
উত্তরসূরীহুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্ম১৯২৯
বেতগাড়ি, গংগাচড়া, রংপুর জেলা
মৃত্যু১৯৯৮
বেতগাড়ি, গংগাচড়া
নাগরিকত্ববাংলাদেশী
রাজনৈতিক দলজাতীয় পার্টি
দাম্পত্য সঙ্গী২ জন

ময়েন উদ্দিন সরকার (১৯২৯-১৯৯৮) বাংলাদেশের রংপুর জেলার একজন রাজনীতিবিদ যিনি রংপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য ছিলেন।[১][২]

জন্ম[সম্পাদনা]

ময়েন উদ্দিন সরকারের বাবা কছিম উদ্দিন সরকার ও মা তাহেরুন নেসা। তিনি বেতগাড়ির কিসমত সেরপুর মৌজার মিয়া পাড়ার অধিবাসী ছিলেন।[৩]

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

তিনি পাকিস্তান আমলে রংপুর পৌর সভার কমিশনার ছিলেন। স্বাধীনতার পর বেতগাড়ি ইউ.পি.-এর চেয়ারম্যান (১৯৭৩-৭৭) নির্বাচিত হয়েছিলেন। তাঁর রাজনৈতিক জীবন শুরু হয় মুসলিম লীগ দিয়ে। পাকিস্তান আমলে মুসলিম লীগ, রংপুর শাখার বিভিন্ন পদে দায়িত্ব পালন করেন। এরপর জিয়াউর রহমানের আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে বি.এন.পি.-তে যোগদান করেন। তিনি গংগাচড়া উপজেলার বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ছিলেন। জিয়ার পর হুসাইন মুহম্মদ এরশাদ জাতীয় পার্টি প্রতিষ্ঠা করলে তিনি জাতীয় পার্টিতে যোগদান করেন এবং রংপুর-১ আসন থেকে ১৯৮৬ ও ১৯৮৮ সালে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।[১][২]

অবদান[সম্পাদনা]

তাঁর উদ্যোগে বেতগাড়ি দ্বি-মুখি উচ্চ বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠিত হয়।[৩]

পরিবার[সম্পাদনা]

তাঁর দু’স্ত্রী ও ৯ সন্তানের মধ্যে ১ম ছেলে মো. মনিরুজ্জামান সরকার বেতগাড়ি ইউ.পি.-এর চেয়ারম্যান ছিলেন।[৩]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "৩য় জাতীয় সংসদে নির্বাচিত মাননীয় সংসদ-সদস্যদের নামের তালিকা" (PDF)জাতীয় সংসদবাংলাদেশ সরকার। ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। টীকা: এই তালিকায় তার নাম ভুলক্রমে “ময়েজউদ্দিন সরকার” লিখিত রয়েছে। 
  2. "৪র্থ জাতীয় সংসদে নির্বাচিত মাননীয় সংসদ-সদস্যদের নামের তালিকা" (PDF)জাতীয় সংসদবাংলাদেশ সরকার। ৮ জুলাই ২০১৯ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। 
  3. গংগাচড়া উপজেলার ইতিহাস ও ঐতিহ্য, মো. মাহমুদুল আলম, লেখক সংসদ, রংপুর, ২০১৩, পৃ. ২০১।