ভৌত আলোকবিজ্ঞান

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
ভৌত আলোকবিজ্ঞান যেমন বিচ্ছুরণের মতো প্রভাবসমূহ ব্যাখ্যা করতে ব্যবহৃত হয়

পদার্থবিজ্ঞানের ভাষায় ভৌত আলোকবিজ্ঞান, বা তরঙ্গ আলোকবিজ্ঞান, হল আলোকবিজ্ঞানের একটি শাখা । এখানে তরঙ্গ ব্যতিচার, বিচ্ছুরণ, পোলারাইজেশন, এবং অন্যান্য ঘটনাসমূহ নিয়ে অধ্যয়ন করা হয় যা জ্যামিতিক আলোকবিজ্ঞানে সম্ভব নয়। এই ব্যবহারটি আলোকীয় যোগাযোগের ক্ষেত্রে কোয়ান্টাম শোরগোল এর মতো প্রভাবসমূহ অন্তর্ভুক্ত করে না, যা সংহতি তত্ত্বের উপ-শাখায় অধ্যয়ন করা হয়।

মূলনীতি[সম্পাদনা]

ভৌত আলোকবিজ্ঞান , বৈদ্যুতিক প্রকৌশল এবং প্রয়োগকৃত পদার্থবিজ্ঞানে সাধারণত ব্যবহৃত হয় এমন একটি সন্নিবেশের নামেরও অন্তর্ভুক্ত। এই প্রসঙ্গে, এটি জ্যামিতিক আলোকবিজ্ঞানসমূহের মধ্যে একটি মধ্যবর্তী পদ্ধতি, যা তরঙ্গ প্রভাব এবং সম্পূর্ণ তরঙ্গ তড়িৎচুম্বকত্বকে উপেক্ষা করে, যা একটি সুনির্দিষ্ট তত্ত্ব । "ভৌত" শব্দের দ্বারা এটিই বোঝানো হয়েছে যে জ্যামিতিক বা রশ্মি আলোকবিজ্ঞানের তুলনায় এটি অপেক্ষাকৃত ভৌত কিন্তু এটি কোনও সঠিক ভৌতিক তত্ত্বও নয়। [১] :১১–১৩

এই অনুমানে কোনও পৃষ্ঠের ক্ষেত্র আন্দাজ করার জন্য রশ্মি আলোকবিজ্ঞান ব্যবহার করা হয় এবং তারপরে স্থানটি সংক্রমণিত বা বিক্ষিপ্ত ক্ষেত্র গণনা করার জন্য পৃষ্ঠের উপরে সংহত করা হয়। এটি উৎপত্তি অনুমানের সাথে সাদৃশ্যপূর্ণ হয়ে থাকে , যাতে সমস্যার বিবরণটিকে বিচলন হিসাবে বিবেচনা করা সম্ভবপর হয়।

আলোকবিজ্ঞানে, এটি বিচ্ছিন্নতার প্রভাবসমূহ অনুমানের একটি আদর্শ উপায়। রেডিওতে, এই অনুমানটি আলোকীয় প্রভাবসমূহের সাথে সাদৃশ্যযুক্ত কিছু প্রভাব অনুমান করতে ব্যবহৃত হয়। এটি বেশ কয়েকটি ব্যতিচার, বিচ্ছিন্নতা এবং মেরুকরণের প্রভাবসমূহের আদর্শীকরণ করে । তবে মেরুকরণের উপর বিচ্ছিন্নতার নির্ভরতাকে এটি আদর্শীকরণ করে না। যেহেতু এটি একটি উচ্চ-কম্পাঙ্ক অনুমান, তাই প্রায়শই এটি রেডিওর চেয়ে আলোকবিজ্ঞানে আরও সঠিক বিবেচিত হয়।

আলোকবিজ্ঞানে, এটি সাধারণত সঞ্চারিত বা বিক্ষিপ্ত ক্ষেত্র গণনা করার জন্য লেন্স, আয়না বা আলোক প্রবেশী ছিদ্রের উপরে রশ্মিক-অনুমানযুক্ত ক্ষেত্রকে সংযোজন করে।

রাডার বিক্ষেপণে এটি সাধারণত এই অর্থ বহন করে যে একটি প্রবাহকে গ্রহণ করা যেটি একটি স্পর্শক সমতলে পাওয়া যেতে পারে এবং যার প্রতিটি বিন্দু প্রবাহের গাঠনিক উপাদানের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ । ছায়াযুক্ত অংশসমূহে প্রাবাহ শূন্য হিসাবে গ্রহণ করা হয়। আর এরপরেই আনুমানিক বিক্ষিপ্ত ক্ষেত্রসমূহ এই আনুমানিক প্রবাহের উপর একটি সামগ্রিক অংশকে গ্রহণ করার মাধ্যমে প্রাপ্ত হয়। এটি বৃহৎ মসৃণ উত্তল আকারসমূহের বস্তুসমূহের জন্য এবং ক্ষতিকারক (কম প্রতিবিম্বিত) পৃষ্ঠগুলির জন্য প্রয়োজনীয়।

রশ্মি-আলোকবিজ্ঞানের ক্ষেত্র বা প্রবাহ সাধারণত প্রান্তসমূহের কিংবা ছায়ার সীমার নিকটে সঠিক হয় না, যদি না তা বিচ্ছুরণ এবং প্রলম্বিত তরঙ্গ গণনার দ্বারা পরিপূরক হয়।

ভৌত আলোকবিজ্ঞানের আদর্শ তত্ত্বের বিক্ষিপ্ত ক্ষেত্রসমূহের মূল্যায়নে কিছু ত্রুটিও রয়েছে। যার ফলে নির্দিষ্ট দিক থেকে দূরে বিদ্যমান নির্ভুলতা হ্রাস পেতে পারে। [২] [৩] ২০০৪ সালে প্রবর্তিত একটি উন্নত তত্ত্বের মাধ্যেম তরঙ্গের বিচ্ছুরণ পরিচালনা করানো হয় আর এটি থেকেই তরঙ্গ বিচ্ছিন্নতা জড়িত সমস্যার সঠিক সমাধান পাওয়া যায়।

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Pyotr Ya. Ufimtsev (৯ ফেব্রুয়ারি ২০০৭)। Fundamentals of the Physical Theory of Diffraction। John Wiley & Sons। আইএসবিএন 978-0-470-10900-7 
  2. Umul, Y. Z. (অক্টোবর ২০০৪)। "Modified theory of physical optics": 4959–4972। ডিওআই:10.1364/OPEX.12.004959পিএমআইডি 19484050 
  3. Shijo, T.; Rodriguez, L. (ডিসে ২০০৮)। "The modified surface-normal vectors in the physical optics": 3714–3722। ডিওআই:10.1109/TAP.2008.2007276 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]