ভেলেন্সিনেসের একঠোঁটা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

ভেলেন্সিনেসের একঠোঁটা
Congaturi Halfbeak
Hemiramphus limbatus Mintern 119.jpg
বৈজ্ঞানিক শ্রেণীবিন্যাস
জগৎ: Animalia
পর্ব: Chordata
শ্রেণী: Actinopterygii
বর্গ: Beloniformes
পরিবার: Hemiramphidae
গণ: Hyporhamphus
প্রজাতি: H. limbatus
দ্বিপদী নাম
Hyporhamphus limbatus
(Valenciennes, 1847)
প্রতিশব্দ
  • Hemiramphus limbatus Valenciennes, 1847
  • Hemirhamphus limbatus Valenciennes, 1847
  • Hemiramphus tridentifer Cantor, 1849
  • Hemirhamphus sinensis Günther, 1866
  • Hyporhamphus sinensis (Günther, 1866)
  • Hemiramphus gorakhpurensis Srivastava, 1967
  • Hyporhamphus unifasciatus (non Ranzani, 1842) misapplied
  • Hemiramphus gaimardi (non Valenciennes, 1847) misapplied
  • Hemiramphus melanurus (non Valenciennes, 1847) misapplied

ভেলেন্সিনেসের একঠোঁটা (বৈজ্ঞানিক নাম: Hyporhamphus limbatus) (ইংরেজি: Valenciennes halfbeak) হচ্ছে Hemiramphidae পরিবারের Hyporhamphus গণের একটি স্বাদুপানির মাছ

বর্ণনা[সম্পাদনা]

দেহ লম্বা, সরু, সামান্য চাপা। নিচের ঠোঁট অনেকটা বর্ধিত। উভয় চোয়ালের অনেক সারি ভিলি আকৃতির দাঁত আছে। পুরুষের পায়ুপাখনা পরিবর্তিত। দেহের রং রূপালী বা হলুদাভ-সাদা বর্ণেরসহ উজ্জ্বল রূপালী বর্ণের পার্শ্বডোরা আছে যার পিছনের দিক অধিক প্রশস্ত। দেহের উপরের অংশ ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র কালো দাগযুক্ত আঁইশ আছে। পুচ্ছ, পৃষ্ট পায়ুপাখনা কিনারা কালো।[২]

স্বভাব এবং আবাসস্থল[সম্পাদনা]

এরা ডিম পাড়ে; পানির উপরিতলে বাস করে, আবার এদের অভিপ্রায়ন স্বাদুপানির অভ্যন্তরে ঘটে। এরা ঝাঁক বেধে উপরিতলে সাঁতার কাটে, আবার অধিকাংশ সময় বড় বড় নদীর স্রোতযুক্ত স্থানে যায়। নভেম্বর, আগস্ট এবং ফেব্রুয়ারি মাসে এরা ডিম দেয়। ৮ দিনের মধ্যে ডিম থেকে বাচ্চা ফুটে বের হয়। এ মাছ ভেসাল ও কোচাল জাল দিয়ে ধরা হয়।[২]

বিস্তৃতি[সম্পাদনা]

এই মাছ বাংলাদেশ, ভারত, মায়ানমার, থাইল্যান্ড, পাকিস্তান, কম্বোডিয়া, চীন, হংকং, মালয়েশিয়া, শ্রীলংকা, তাইওয়ান, ভিয়েতনাম অঞ্চলে পাওয়া যায়।[২]

অর্থনৈতিক গুরুত্ব[সম্পাদনা]

এ মাছ বাণিজ্যিকভাবে কম গুরুত্বপূর্ণ। বাজারে এ মাছ টাটকা এবং শুটকি হিসাবে বিক্রি হয়।[২]

বাস্তুতান্ত্রিক ভুমিকা[সম্পাদনা]

এরা প্রাণী প্লাঙ্কটন এবং জলজ পোকামাকড় খেয়ে স্বাদুপানির বাস্তুতন্ত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা রাখে।[২]

বাংলাদেশে বর্তমান অবস্থা এবং সংরক্ষণ[সম্পাদনা]

আইইউসিএন বাংলাদেশ (২০০০) এর লাল তালিকা অনুযায়ী এই প্রজাতিটি বাংলাদেশে এখনও হুমকির সম্মুখীন নয়।[২]

মন্তব্য[সম্পাদনা]

এ মাছ নদীতে প্রচুর পাওয়া যায়, বিশেষকরে দক্ষিণের জেলাগুলোতে। বাংলাদেশে ১৫.৩ সেমি দৈর্ঘ্যের এই মাছ পাওয়া গিয়েছে।[২]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Hyporhamphus limbatus"বিপদগ্রস্ত প্রজাতির আইইউসিএন লাল তালিকা। সংস্করণ 2011.1প্রকৃতি সংরক্ষণের জন্য আন্তর্জাতিক ইউনিয়ন। 2011-03-17। সংগ্রহের তারিখ 29/03/2017  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |সংগ্রহের-তারিখ= (সাহায্য)
  2. এ কে আতাউর রহমান, মহিত মোরশেদ (অক্টোবর ২০০৯)। "স্বাদুপানির মাছ"। আহমেদ, জিয়া উদ্দিন; আবু তৈয়ব, আবু আহমদ; হুমায়ুন কবির, সৈয়দ মোহাম্মদ; আহমাদ, মোনাওয়ার। বাংলাদেশ উদ্ভিদ ও প্রাণী জ্ঞানকোষ২৩ (১ সংস্করণ)। ঢাকা: বাংলাদেশ এশিয়াটিক সোসাইটি। পৃষ্ঠা ৩০০–৩০১। আইএসবিএন 984-30000-0286-0 |আইএসবিএন= এর মান পরীক্ষা করুন: invalid prefix (সাহায্য)