ব্যাংক অব মালদ্বীপ পিএলসি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
ব্যাংক অব মালদ্বীপ পিএলসি
ধরনপাবলিক কোম্পানি
শিল্পআর্থিক সেবা
প্রতিষ্ঠাকালমালে, মালদ্বীপ (১৯৮২)
সদরদপ্তরমালে,
মালদ্বীপ
প্রধান ব্যক্তি
এ্যান্ড্রু হ্যালি (সিইও এবং ব্যবস্থাপনা পরিচালক)
পণ্যসমূহআর্থিক সেবা
আয়বৃদ্ধি MVR ১.৭ বিলিয়ন (২০১৫)
বৃদ্ধি MVR ৯৩২ মিলিয়ন (২০১৫)
বৃদ্ধি MVR ৬৬২ মিলিয়ন (২০১৫)
মোট সম্পদবৃদ্ধি MVR ১৮ বিলিয়ন (২০১৫)
মোট ইকুইটিবৃদ্ধি MVR ২.৯১ বিলিয়ন (২০১৫)
কর্মীসংখ্যা
৮৫০ (২০১৫)
অধীনস্থ প্রতিষ্ঠানবি.এম.এল. ইনভেস্টমেন্টস প্রা. লি.
বি.এম.এল. প্রোপার্টিজ প্রা. লি.
ওয়েবসাইটhttps://www.bankofmaldives.com.mv/

ব্যাংক অব মালদ্বীপ পিএলসি (সংক্ষেপেঃ বিএমএল) হলো মালদ্বীপের জাতীয় ব্যাংক। এই ব্যাংকটি ১৯৮২ সালের ১১ নভেম্বর তারিখে প্রতিষ্ঠিত হয়। ব্যাংকটির প্রধান সেবা কার্যক্রম হল কনজ্যুমার ব্যাংকিং; এর পাশাপাশি এটি অতিরিক্ত কার্যক্রম হিসাবে সকল অ্যাটোলে উন্নয়ন ব্যাংকিং কার্যও পরিচালনা করে থাকে। এর সেবা খাতগুলোর মধ্যে রয়েছে ইলেকট্রনিক ব্যাংকিং, ঋণ সুবিধা, ক্রেডিট কার্ড এবং ডেবিট কার্ড প্রদান।

ব্যাংক অব মালদ্বীপের মোট ২৯টি শাখা রয়েছে, এর মধ্যে রাজধানী মালেতে রয়েছে চারটি, ইব্রাহিম নাসির আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর (হুলহুলে দ্বীপ)-এ একটি এবং ভিলিংলি ওয়ার্ড ও হুলহুমালে এই উভয় স্থানেই একটি করে শাখা রয়েছে।[১]

২০১১ সালে ব্যাংক অব মালদ্বীপ জেপি মর্গান কর্তৃক প্রদত্ত অভিজাত মানের স্বীকৃতি সূচক সম্মাননা অর্জন করেছে।[২]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

ব্যাংক অব মালদ্বীপের উদ্বোধন করা হয় ১৯৮২ সালের ১১ নভেম্বর তারিখে[৩][৪][৫] এবং ব্যাংকটি একটি যৌথ উদ্যোগে স্থাপিত ব্যাংক হিসেবে তার বাণিজ্যিক কার্যক্রম শুরু করে, যেখানে মালদ্বীপের সরকার (তার বিভিন্ন সংস্থা ও মালদ্বীপের কোম্পানিগুলির সহ) ছিলো ৬০ শতাংশ শেয়ারের মালিক এবং অবশিষ্ট ৪০ শতাংশ শেয়ারের মালিকানা ছিলো বাংলাদেশের ঢাকায় অবস্থিত প্রতিষ্ঠান ইন্টারন্যাশনাল ফিন্যান্স ইনভেস্টমেন্ট কোম্পানি লিমিটেড (পরবর্তীতে আইএফআইসি ব্যাংক লিমিটেড)-এর নিকট।[৫]

১৯৯২ সালে আইএফআইসি কর্তৃপক্ষ তাদের অংশ ছেড়ে দেয়ায় সরকার ব্যাংক অব মালদ্বীপের বেশিরভাগ অংশীদারত্ব নিয়ে নেয় এবং ১৯৯২ সালের ডিসেম্বরে মালদ্বীপ সরকার সাধারণ জনগণের নিকটে এটির শেয়ার বিক্রি করে দেয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে। এই সিদ্ধান্তের ফলশ্রুতিতে ১৯৯৩ সালের ১ জানুয়ারি থেকে ব্যাংক অব মালদ্বীপ একটি পাবলিক লিমিটেড কোম্পানী হিসাবে পরিগণিত হয়।[৩] বর্তমানে ব্যাংকটি মালদ্বীপ স্টক এক্সচেঞ্জের তালিকাভুক্ত একটি প্রতিষ্ঠান যার মালিকানা যৌথভাবে সরকার (৬২.২%), রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন সংস্থা (৪.১%) এবং জনসাধারণের (৩৩.৭%)।

ইসলামী ব্যাংকিং[সম্পাদনা]

২০১৫ সালের ২২ জানুয়ারি তারিখে ব্যাংক অব মালদ্বীপ তাদের ইসলামী ব্যাংকিং পরিষেবার সূচনা করে যেটির নাম দেয়া হয় "বিএমএল ইসলামিক"।[৬][৭][৮] বিএমএল ইসলামি ব্যাংকিং-এর মাধ্যমে ব্যাংকের ব্যক্তিগত ধরনের গ্রাহকদের জন্য ওয়াদি'আহ সঞ্চয়ী হিসাব সেবা প্রদান করা হয়েছে এবং ব্যবসায়িক ধরনের গ্রাহকদের জন্য এই পরিষেবা চালু করার বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।[৭][৮]

প্রাতিষ্ঠানিক সামাজিক দায়বদ্ধতা[সম্পাদনা]

ব্যাংক অব মালদ্বীপ জনসেবায় অবদান রাখাকে গুরুত্বপূর্ণ হিসাবে বিশ্বাস করে এবং এই কারণে এর কর্মীদেরকে স্বেচ্ছাসেবী কাজে উৎসাহ দেয়ার পাশাপাশি তাদেরকে অসংখ্য সামাজিক দায়বদ্ধতামূলক কার্যক্রমে অংশগ্রহণ করতে সহায়তা করে। অন্যতম উল্লেখযোগ্য ঘটনা হলো, ব্যাংকটি গাঁজাবাসীর সাহায্যের জন্য একটি ফান্ড তৈরি করেছিলো।[৯][১০][১১]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "REGISTER OF BANKS" (PDF)। ২ এপ্রিল ২০১৫ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৪ মার্চ ২০১৫ 
  2. "Bank of Maldives wins JPMorgan Elite Award"। JP Morgan। ১১ অক্টোবর ২০১২। সংগ্রহের তারিখ ২৪ মার্চ ২০১৫ 
  3. "List of Banks in Asia"। World Wide Banking। সংগ্রহের তারিখ ২৪ মার্চ ২০১৫ 
  4. "Annual Report and Financial Statements" (PDF)। Maldives Monetary Authority। ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৪ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৪ মার্চ ২০১৫ 
  5. "Annual Report 2005" (PDF)। Bank of Maldives PLC। সংগ্রহের তারিখ ২৪ মার্চ ২০১৫ 
  6. "BML's commencement of Islamic financial services is a great news for many Maldivians- Dr. Shaheem"। Miadhu। ২২ জানুয়ারি ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ২৪ মার্চ ২০১৫ 
  7. "BML introduces Islamic Banking Services"। V News। ২২ জানুয়ারি ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ২৪ মার্চ ২০১৫ 
  8. "Bank of Maldives starts to roll out Islamic Banking Services with launch of Wadi'ah Deposit Product"। MyNewsDesk। ২২ জানুয়ারি ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ২৪ মার্চ ২০১৫ 
  9. "Maldives to donate US$1.4million for Gaza war victims"। ReliefWeb। ১০ আগস্ট ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ ২৪ মার্চ ২০১৫ 
  10. "Help Gaza Telethon at full swing; MVR 12 million and ongoing"। Haveeru Online। ৯ আগস্ট ২০১৪। ২ এপ্রিল ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৪ মার্চ ২০১৫ 
  11. "Help Gaza Telethon gains momentum"। SunOnline। ৯ আগস্ট ২০১৪। ২ এপ্রিল ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৪ মার্চ ২০১৫ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]