ব্যবসায় প্রশাসনে স্নাতক

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

ব্যবসায় প্রশাসনে স্নাতক হল বাণিজ্য বিভাগ এবং ব্যবসায় অনুষদে প্রদত্ত স্নাতক উপাধি। ইংরেজি ভাষাতে একে ব্যাচেলর অফ বিজনেস অ্যাডমিনিস্ট্রেশন বা সংক্ষেপে বি.বি.এ. বলা হয়। অধিকাংশ বিশ্ববিদ্যালয়ে এই উপাধি তখনই দেওয়া হয়, যখন কোনও শিক্ষার্থী চার বছর যাবৎ ব্যবসায়ের সাথে জড়িত এক বা একাধিক বিষয়ে পূর্ণকালীন অধ্যয়ন সম্পন্ন করে। ব্যবসায় প্রশাসনে স্নাতক শিক্ষাক্রম সাধারণত সাধারণ ব্যবসায় পাঠক্রম ও বিশেষ ব্যবসায় পাঠক্রম (একাডেমিক মেজর) এই দুইটি পাঠক্রম দ্বারা গঠিত।

শিক্ষাক্রমের উপাদান[সম্পাদনা]

এই উপাধি কোনও কোম্পানির কাজের দিক এবং তাদের মধ্যবর্তী যোগাযোগ সম্পর্কে বিস্তারিত জ্ঞান দেওয়ার উদ্দেশ্য নিয়ে তৈরি করা হয়েছে। যেখানে আবার একটি বিশেষ বাছাইকৃত বিষয়ে অভিজ্ঞও করে তোলা হয়। ব্যবসায় প্রশাসনে স্নাতক শিক্ষাক্রমে শিক্ষার্থীদেরকে বিভিন্ন ধরনের ভিত্তিমূলক বিষয় শেখানো হয় এবং একই সাথে একটি বাছাইকৃত উচ্চশিক্ষায়তনিক বিষয়ে বিশেষজ্ঞ করে তোলা হয়। এই উপাধি শিক্ষার্থীদের ব্যবস্থাপনা দক্ষতা, যোগাযোগ দক্ষতা এবং ব্যবসায় সিদ্ধান্ত গ্রহণের দক্ষতাকেও উন্নত করে। এমন অনেক পাঠক্রমও আছে যা দ্বারা প্রাতিষ্ঠানিক প্রশিক্ষণ এবং বাস্তবিক অভিজ্ঞতা দেওয়া হয় পরিস্থিতি অধ্যয়ন (কেইস স্টাডি), উপস্থাপনা, শিক্ষানবিসী, শিল্পক্ষেত্র পরিভ্রমণ এবং শিল্পক্ষেত্রের বিশেষজ্ঞদের সাথে আলোচনা দ্বারা।

এই প্রোগ্রামের আসল উপাদানগুলো বা কোর্সগুলো হল:

এই প্রোগ্রামে বিশেষজ্ঞ করা হয় নিম্নোক্ত বিষয়সমূহে:

বিবিএ[সম্পাদনা]

সাধারণ শিক্ষা যোগ্যতা হিসেবে মানববিদ্যা এবং সমাজবিজ্ঞান (ইতিহাস, অর্থনীতি এবং সাহিত্য)-এর উপর জোর দেওয়া হয়। গণিতশাস্ত্রে দক্ষতার-ও প্রয়োজন রয়েছে। কেননা বিবিএ-তে গণিতপ্রধান অনেক কোর্স রয়েছে যা শিক্ষার্থীদেরকে করতে হবে। যেমনঃ হিসাববিজ্ঞান, পরিসংখ্যান, ব্যাবসায় গণিত, ফাইন্যান্স ইত্যাদি।

বিবিএ এর বিভাগসমূহঃ[১]

  1. হিসাববিজ্ঞান বিভাগ
  2. ব্যবস্থাপনা বিভাগ
  3. বিপণন বিভাগ
  4. ফাইন্যান্স বিভাগ
  5. ব্যাংকিং ও বীমা বিভাগ
  6. আন্তর্জাতিক বাণিজ্য বিভাগ
  7. পর্যটন ও আতিথেয়তা ব্যবস্থাপনা বিভাগ

স্বীকৃতি[সম্পাদনা]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

  • ব্যবসায় প্রশাসনে স্নাতকোত্তর (মাস্টার অব বিজনেস এডমিনিস্ট্রেশন)

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "University of Dhaka || the highest echelon of academic excellence"du.ac.bd। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-২১ 

বহি:সংযোগ[সম্পাদনা]