বিশাখা হরি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
বিশাখা হরি
Visakha Hari.jpg
প্রাথমিক তথ্য
জন্ম১৯৮১
ভারত
উদ্ভবভারত
ধরনভারতীয় ক্লাসিকাল সংগীত

বিশাখা হরি একজন কর্ণাটকের গায়ক।

প্রান্তিক জীবন[সম্পাদনা]

বিশাখ হরি কিংবদন্তি কার্ন্যাটিক বেহালাবিদ পদ্ম বিভূষণ শ্রী লালগুদি জয়রামনের অধীনে কর্ণাটিক সংগীত শিখেছিলেন। তাঁর আধ্যাত্মিক গুরু এবং শ্বশুর হলেন শ্রী শ্রী কৃষ্ণ প্রিমি স্বামীগাল (শ্রী শ্রী আন্না)। [১][২] তিনি তার স্বামী, শ্রী হরিজি। যিনি তামিল, ইংরেজি এবং হিন্দি ভাষায় বক্তৃতা দেওয়ার জন্য একজন অভিজ্ঞ হরিকাঠার কাছ থেকে হরিকাঠার শিল্প শিখেছিলেন।

বাদ্যযন্ত্র[সম্পাদনা]

২০০৬ সাল থেকে চেন্নাই সংগীত মরসুমে বিশাখা হরি বেশ কয়েকটি সভায় অবদান রেখেছেন।

বিশাখা হরি মাঝে মাঝে তাঁর স্বামী শ্রী হরি (পরানুর মহাত্মা কৃষ্ণ প্রিয়া আন্নার পুত্র) এর সাথে কাজ করেন, যিনি তাঁর ইংরেজি সাহিত্যের পটভূমিগুলো ব্যবহার করেন[তথ্যসূত্র প্রয়োজন] তাঁর ভাই, সােকেথারমন, শ্রী লালগুদি জয়রামনের শিষ্য, তিনি ভারতের অন্যতম শীর্ষ নরনারী সংগীতশিল্পী। তিনি অল ইন্ডিয়া রেডিওর এক শিল্পী, তিনি বিদেশে বক্তৃতা এবং কনসার্ট দিয়েছেন। বিশাখ হরি একজন বিশিষ্ট নৃত্যশিল্পী, অধ্যাপক সুধারানী ভরতনাট্যম কাছ থেকে ভরতনাট্যম শিখেছিলেন। [২] শ্রীমতী বিষাদ শ্রীমাদ রামায়ণম, শ্রীমাদ ভাগবতম এবং স্কন্দ পুরাণমের উপর ভিত্তি করে বিভিন্ন বিষয়ে হরিকাঠ করেন। তিনি শ্রীশ্রিয়ানার রচনা যেমন: শ্রী বৈষ্ণব সংহিতা থেকেও অবদান রাখেন; শ্রী বৃন্দাবন মাহাত্ম্যম; দিব্যা দেশ বৈভব; হরিকাঠ অমৃত লাহারী; শ্রীভক্তপুরীশ স্তবম; সতী বিজয়াম, শতকামস এবং কের্তনাস।

পুরষ্কার এবং স্বীকৃতি[সম্পাদনা]

হরিকাঠ এবং কর্ণাটিক সংগীত ক্ষেত্রে তাঁর অবদানের জন্য তিনি অনেক পুরষ্কার এবং পুরষ্কার পেয়েছেন। [কার মতে?]

  • তাঁর সংগীত গুরু শ্রী লালগুদি জয়রামণ এবং তায়রাজার হাত ধরে এটিই ছিল 'মহিলা সমান শ্রেষ্ঠত্ব' পুরষ্কার। তাঁর আধ্যাত্মিক গুরু এবং শ্বশুর শ্রীশ্রী কৃষ্ণ প্রেমী স্বামীগালের কাছ থেকে প্রতিধ্বনি বা 'থায়াগরাজ স্বামী প্রতিধ্বনি' শিখেছেন। [৩]
  • শ্রীমতি বিশাখা হরিকে ১৩ ই মুম্বাইয়ের শ্রী শামুখানন্দ চারুকলা ও সংগীত সভাতে একটি অনুষ্ঠানে ড. এমএস সুবুলক্ষ্মী শতবর্ষী পুরষ্কার প্রদান করা হয়েছিল। সেপ্টেম্বর ২০১৬ সালে তিনি ভারতের সাতজন সম্মানিত মহিলা শিল্পীদের মধ্যে একজন ছিলেন। [৪]
  • ২০ শে নভেম্বর ২০১৬, ভারতী বিদ্যা ভবন, চেন্নাই শ্রীমতি বিশাখা হরিকে 'লাইফটাইম অ্যাচিভমেন্ট' পুরস্কার দিয়ে সজ্জিত করেছিলেন অতিথি ইনফোসিস।

চেয়ারম্যান, আর.শিশাসয়ী। [৫]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "The raconteur's raga"। ২৩ মে ২০০৮। সংগ্রহের তারিখ ২৯ জুলাই ২০১৮ – www.thehindu.com-এর মাধ্যমে। 
  2. "From commerce to katha"The Hindu (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-০৩-৩০ 
  3. "Soulful Tunes - Indian Express"। Archive.indianexpress.com। ২০১৩-০১-২৪। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০১-১৭ 
  4. "7 women get M.S. Subbulakshmi Awards"The Hindu। ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ১৬ মে ২০১৮ 
  5. "Bhavan's cul-fest opens to a full house"। Kutcheribuzz.com। ২০১৬-১১-২১। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৭-২৯