বিমলপ্রতিভা দেবী

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
বিমলপ্রতিভা দেবী
জন্মডিসেম্বর ১৯০১
মৃত্যুআগস্ট ১৯৭৮
(বর্তমান ভারত ভারত)
জাতীয়তাভারতীয়
নাগরিকত্ব ব্রিটিশ ভারত (১৯৪৭ সাল পর্যন্ত)
 ভারত
পেশারাজনীতিবিদ
কর্মজীবন১৯২১ সাল অসহযোগ আন্দোলন
১৯৩০ সাল লবণ আইন অমান্য আন্দোলন
১৯৪৫ সাল শ্রমিক আন্দোলন
প্রতিষ্ঠান'নারী সত্যাগ্রহ সমিতি'-র যুগ্ম-সম্পাদিক
পরিচিতির কারণব্রিটিশ বিরোধী স্বাধীনতা আন্দোলনের অগ্নিকন্যা
রাজনৈতিক দলভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস
আন্দোলনব্রিটিশ বিরোধী স্বাধীনতা আন্দোলন
পিতা-মাতা
  • সুরেন্দ্রনাথ মুখার্জী (পিতা)
  • ইন্দুমতী দেবী (মাতা)

বিমলপ্রতিভা দেবী (ডিসেম্বর ১৯০১ - আগস্ট ১৯৭৮) ছিলেন ভারতীয় উপমহাদেশের ব্রিটিশ বিরোধী স্বাধীনতা আন্দোলনের একজন ব্যক্তিত্ব ও অগ্নিকন্যা।

জন্ম ও পরিবার[সম্পাদনা]

বিমলপ্রতিভা দেবী ১৯০১ সালে ভারতের ওড়িশা রাজ্যে কটকে জন্মগ্রহণ করেন। কিন্তু পিতৃভূমি ছিল নদীয়ায়। তার পিতার নাম সুরেন্দ্রনাথ মুখার্জী ও মাতার নাম ইন্দুমতী দেবী। পিতার আদর্শে প্রভাবিত হয়ে রাজনীতিতে যোগ দেন[১]

রাজনৈতিক জীবন[সম্পাদনা]

১৯১৮ সালে তিনি রাজনিতিতে যুক্ত হন। ১৯২১ সালে অসহযোগ আন্দোলনে যোগ দেন। ১৯২৮ সালে প্রকাশও কংগ্রেসে যোগ দেন। ১৯৩০ সালে লবণ আইন অমান্য আন্দোলনে যুক্ত হন। সে সময় 'নারী সত্যাগ্রহ সমিতি'-র যুগ্ম-সম্পাদিকা ছিলেন। ১৯৩০ সালে তার ছয় মাসের কারাদণ্ড হয়। ১৯৩১ সালে মানিক্তলার ডাকাতি সম্পর্কে তিনি সহ অনেকে গ্রেপ্তার হন এবং ১৯৩৮ সালে মুক্তি পান। এই সালেই ত্রিপুরা যুব সম্মেলনে তিনি যোগদান করেন। ১৯৪১ সালের ২৭ জানুয়ারি রাষ্ট্রদ্রোহমূলক ইস্তেহার রাখার কারণে দুই বছর কারাদণ্ড হয়। ১৯৪৫ সালে শ্রমিক আন্দোলনের সাথে যুক্ত হন।

মৃত্যু[সম্পাদনা]

বিমলপ্রতিভা দেবী আগস্ট ১৯৭৮ সালে মৃত্যুবরণ করেন।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. কমলা দাশগুপ্ত (জানুয়ারি ২০১৫)। স্বাধীনতা সংগ্রামে বাংলার নারী, অগ্নিযুগ গ্রন্থমালা ৯কলকাতা: র‍্যাডিক্যাল ইম্প্রেশন। পৃষ্ঠা ৮৬-৮৭। আইএসবিএন 978-81-85459-82-0