বাংলাদেশে দুর্নীতি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

বাংলাদেশে দুর্নীতি হল দেশটির একটি চলমান সমস্যা, এছাড়াও দেশটি ২০০৫ সালে ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল কর্তৃক প্রকাশিত তালিকায় পৃথিবীর তৎকালীন সবচেয়ে দুর্নীতিগ্রস্ত দেশ হিসেবে স্থান লাভ করে।

২০১১[১] এবং ২০১২ সালে[২] দেশটি তালিকার অবস্থানে যথাক্রমে ১২০ এবং ১৪৪ তম স্থান লাভ করে, যেখানে কোন দেশ নম্বরের দিক থেকে যত উপরের দিকে যাবে ততই বেশি দুর্নীতিগ্রস্থ হিসেবে গণ্য হবে।

ভোগবাদী মানসিকতা এবং অনেক ক্ষেত্রে অভাব দুর্নীতির পেছনে দায়ী। তবে বাংলাদেশের বর্তমান প্রেক্ষাপট দেখলে বোঝা যায় ভোগবাদী মানসিকতাই দায়ী। বাংলাদেশে বর্তমানে সব শ্রেণির ব্যাক্তিরাই ঘুষ গ্রহণ করে থাকে। তবে উচ্চ পর্যায়ের কর্তারা মূলত তাদের জীবনযাত্রার মান উন্নয়ন করতে গিয়ে ঘুষ গ্রহণকে তাদের অভ্যাসে পরিণত করে। মধ্যবিত্তরা ও নিম্নবিত্তরাও তাদের জীবনযাত্রা মান উন্নয়নে ঘুষ গ্রহণ করে থাকে। দেখা যায় যে প্রতি ক্ষেত্রেই মানুষ ঘুষ খেয়ে থাকে।

ক্ষেত্র অনুযায়ী দুর্নীতি[সম্পাদনা]

দুর্নীতির পরিণতি[সম্পাদনা]

দুর্নীতি বিরোধী উদ্যোগ[সম্পাদনা]

দুর্নীতি দমন কমিশন[সম্পাদনা]

ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. * "Corruption Perceptions Index 2011"। Transparency International। সংগ্রহের তারিখ ৮ জানুয়ারি ২০১৩ 
  2. * "Corruption Perceptions Index 2012"। Transparency International। সংগ্রহের তারিখ ৮ জানুয়ারি ২০১৩