প্রাচীন রোমে কৃষিকাজ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
রিলিফ ভাস্কর্যে রোমান কৃষক

রোমের কৃষি বলতে হাজার বছর ধরে চলে আসা প্রাচীন রোমের কৃষিব্যবস্থাকে বোঝায়। প্রাগৈতিহাসিক যুগে, রোমান প্রজাতন্ত্র (খৃষ্টপূর্ব ৫০৯ থেকে খৃষ্টপূর্ব ২৭) ও রোমান সাম্রাজ্যে (খৃষ্টপূর্ব ২৭ থেকে খৃষ্টাব্দ ৪৭৬) তাদের সাম্রাজ্যের পরিধি বাড়তে থাকে যা ক্রমেই ইউরোপ, আফ্রিকার উত্তরাঞ্চল এবং মধ্যপ্রাচ্য পর্যন্ত ছড়িয়ে যায়। ফলে কৃষিক্ষেত্রে মিশ্র জলবায়ুর প্রভাব পড়ে যাদের মধ্যে ভূমধ্যসাগরীয় শুষ্ক, গ্রীষ্ম, শীত, বর্ষা ইত্যাদি আবহাওয়া বিশেষভাবে উল্লেখযোগ্য। তন্মধ্যে ভূমধ্যসাগরীয় অঞ্চলে তিনটি ফসল বিশেষভাবে উল্লেখযোগ্যঃ শস্যদানা, জলপাইজাতীয় ফল (যয়তুন) এবং আঙ্গুর।

রোমান সাম্রাজ্যের অধীনে বেশিরভাগ জনগোষ্ঠী কৃষিকাজে নিয়োজিত ছিলো। ছোট থেকে বড় ভূস্বামীগন সহ গ্রামীণ সমাজ ল্যাটিফান্ডিয়াম দ্বারা প্রভাবিত ছিল ও বড় এলাকাগুলো ধনীদের করায়ত্বে থাকত যেখানে অধিকাংশ সময় কৃতদাসদের খাটানো হত। রোমের ক্রমবর্ধমান জনসংখ্যার খাদ্যের চাহিদায় বাজারসমূহের উন্নতি ও খাদ্যশস্যের পরিবহনব্যবস্থার প্রয়োজনীয়তা দেখা যায়।

পটভূমি[সম্পাদনা]

গ্রিকো-রোমান কৃষিপ্রথা সংবলিত তথ্যাদি মূলতঃ কৃষিতত্ত্ববিদ মারকাস পোসিয়াস ক্যাটো তার De Agri Culturaতে, লুসিয়াস কলুমেলার De re Rustica তে এ, মারকাস ভাররো এবং পেলাডিয়াস এনেছেন। ম্যাগোর কৃষি গ্রন্থ Rusticatio হারিয়ে যায়, যা পিউনিক ভাষায় লিখিত ছিলো পরে গ্রীক ও ল্যাটিন ভাষায় অনূদিত হয়েছিলো। গবেষকরা গ্রন্থটিকে ধারণা করেন প্রাচ্য ও তৎকালীন বিশ্বের কৃষি পদ্ধতির পরিচায়ক হিসেবে। [১]

উৎকর্ষময় জীবন[সম্পাদনা]

প্রাচীন রোমে কৃষিকাজ শুধু প্রয়োজনীয়ই ছিলোনা বরং তা বিত্তশালীদের জীবনযাত্রার মানের পরিচায়কও বটে। Cicero কৃষিকে রোমের সর্বোত্তম পেশা হিসেবে আখ্যায়িত করেন। তার De officiis নামক গ্রন্থে উল্লেখ আছে, "...যে সকল পেশায় অর্জনের নিশ্চয়তা আছে তন্মধ্যে চাষাবাদের চেয়ে ভালো, লাভজনক, উৎকর্ষপূর্ন, স্বাধীন পেশা আর একটিও নেই"। একবার এক মক্কেল তাকে তার গ্রাম্যজীবন সম্পর্কে উপহাস করলে তিনি এর জবাবে গ্রাম্যজীবনকে "অর্থনীতির গুরু, কারখানাশিল্পের গুরু এবং ন্যায়ের শিক্ষক" হিসেবে উপস্থাপন করেন।[২] মারকাস পোসিয়াস ক্যাটো, লুসিয়াস কলুমেলা, মারকাস ভাররো এবং পেলাডিয়াস কৃষি বিষয়ক পুস্তিকা রচনা করেন। মারকাস পোসিয়াস ক্যাটো তার De Agri Culturaতে (খৃষ্টপূর্ব ২য় শতাব্দী) লিখেন, শ্রেষ্ঠ খামার হলো যাতে আঙ্গুর-খেতের সাথে সাথে সমন্বিত বাগান, উইলো গাছ, জলপাই বাগান,তৃণভূমি, শস্যক্ষেত, বন, আঙ্গুর-খেতের পরিচর্যা এবং কাষ্ঠল বৃক্ষ থাকে।[৩]

[৪]

শস্যাদি[সম্পাদনা]

শস্যদানা[সম্পাদনা]

মটরশুটি/কলাই[সম্পাদনা]

জলপাই/যয়তুন[সম্পাদনা]

আঙ্গুর[সম্পাদনা]

তৃণ[সম্পাদনা]

অন্যান্য শস্য[সম্পাদনা]

সংরক্ষন[সম্পাদনা]

ভূমি[সম্পাদনা]

কৃষি[সম্পাদনা]

বাণিজ্য[সম্পাদনা]

অর্থনীতি[সম্পাদনা]

যান্ত্রিকীকরণ[সম্পাদনা]

খামার[সম্পাদনা]

আভিজাত্যতায় ভূমি[সম্পাদনা]

Cato the Elder, author of a book on Roman agriculture

রোমে খামার[সম্পাদনা]

কৃষকদের সমস্যা[সম্পাদনা]

রোমান কৃষকেরা অনেক সমস্যার সম্মুখীন হয়েছিলো যা তাদের ঐতিহাসিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছিলো তন্মধ্যে আবহাওয়া, বৃষ্টি বা কীটপতঙ্গের পূর্বাভাস নিরূপনে ব্যর্থ হওয়া অন্যতম। তৎকালীন যুদ্ধ-বিগ্রহ ও ভূমিদস্যুতার কারনে কৃষকদের বন্দর বা শহরের দূরবর্তী জমি ক্রয়ে খুবই সতর্ক থাকতে হত। ঐ সময়টায় রোমের বিশাল সাম্রাজ্যের কারনে রোমের বিরুদ্ধে অনেক প্রতিপক্ষ সৃষ্টি হয় বিশেষতঃ যাদের জমি দখল করা হয়েছে। প্রায়শঃই প্রতিপক্ষের যোদ্ধারা কৃষকদের জমি ও খামারগুলো দখল করে নিত ও নিজেরা চাষাবাদ করত।[৪]

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

Hopkins (1978). Conquerors and Slaves. New York: Cambridge University Press. pp. 1–9. ISBN 978-0521219457.
  1. Zadoks, Jan C.। Crop Protection in Medieval Agriculture: Studies in Pre-modern Organic Agriculture 
  2. Pro Roscio Amerino 75.
  3. Cato the Censor, Columbia University Records of Civilization: On Farming, translated by Ernest Brehaut (Columbia University Press)
  4. Hopkins (১৯৭৮)। Conquerors and Slavesসীমিত পরীক্ষা সাপেক্ষে বিনামূল্যে প্রবেশাধিকার, সাধারণত সদস্যতা প্রয়োজন। New York: Cambridge University Press। পৃষ্ঠা 1–9। আইএসবিএন 978-0521219457 

আধুনিক উৎস[সম্পাদনা]

  • Buck, Robert J. Agriculture and Agricultural Practice In Roman Law. Wiesbaden: F. Steiner, 1983.
  • Erdkamp, Paul. The Grain Market In the Roman Empire: A Social, Political and Economic Study. Cambridge, UK: Cambridge University Press, 2005.
  • Hollander, D. B., "Farmers and Agriculture in the Roman Economy", Routledge, 2019,
  • Horden, P., and N. Purcell. The corrupting sea: A study of Mediterranean history. Oxford: Blackwell, 2000.
  • Kehoe, D. P. Investment, profit, and tenancy: The jurists and the Roman agrarian economy. Ann Arbor: Univ. of Michigan Press, 1997.
  • Reynolds, P. Hispania and the Roman Mediterranean AD 100–700: Ceramics and trade. London: Duckworth, 2010.
  • Spurr, M. S. "Arable cultivation in Roman Italy: c. 200 B.C.–c. A.D. 100." Journal of Roman Studies Monographs 3. London: Society for the Promotion of Roman Studies, 1986.
  • White, K. D. Roman Farming. Ithaca, NY: Cornell University Press, 1970.
  • --. Farm Equipment of the Roman World. Cambridge, UK: Cambridge University Press, 1975.

প্রাথমিক উৎস[সম্পাদনা]

  • Cato, Marcus Porcius. Cato, the Censor, On Farming. Translated by Ernest Brehaut. New York: Columbia University Press, 1933.
  • Columella, Lucius Junius Moderatus. On Agriculture. Translated by Harrison Boyd Ash. Cambridge, MA: Harvard University Press, 1941.

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]