পাগলা দেওয়ান বধ্যভূমি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
পাগলা দেওয়ান বধ্যভূমি
অবস্থানচকবরকত ইউনিয়ন, জয়পুরহাট সদর উপজেলা, জয়পুরহাট জেলা, বাংলাদেশ
ধরনসম্পূর্ন
উপাদানইট, সিমেন্ট, বালি
উৎসর্গীকৃত১৯৭১ সালের শহীদ মুক্তিযোদ্ধা

পাগলা দেওয়ান বধ্যভূমি জয়পুরহাট সদর উপজেলার চকবরকত ইউনিয়নে সংঘটিত গনহত্যার অন্যতম নিদর্শন। ১৯৭১ সালে বাংলাদেশ পাকিস্তান মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন প্রায় দশ হাজার নিরিহ বাঙ্গালীকে নির্মমভাবে হত্যা করে গন কবর দেওয়া হয়েছে এই পাগলা দেওয়ান বধ্যভূমিতে। [১]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

১৯৭১ সালের ১৪ ডিসেম্বর তৎকালীন রাজাকার বাহিনী এর প্ররোচনায় কোনরকম উস্কানী ছাড়াই পাক সেনারা ১২২ জন নিরীহ গ্রামবাসীকে মধ্যযুগীয় কায়দায় নৃশংসভাবে হত্যা করেছিল। পাগলা দেওয়ানে ছিল পাকিস্তানী সেনাবাহিনী ক্রাম্প ও বাঙ্কার । স্থানীয়ভবে হত্যা ও নির্যাতন ছাড়াও মুক্তি যুদ্ধ চলাকালীন বগুড়া, জয়পুরহাট, নওগাঁ, নাটোর, পাবনা, সিরাজগঞ্জ ও বিভিন্ন এলাকার মানুষ যারা প্রানের ভয়ে পালিয়ে ভারতে আশ্রয়ের জন্য এই পথ দিয়ে যাচ্ছিলেন তাদেরকে ধরে লুটপাট করে নির্মমভাবে হত্য করা হয়েছিল এই বধ্যভুমিতে।[২]

স্বাধীনতার পর প্রায় দুই তিন মাস পর্যন্ত পচা লাশের গন্ধে এই এলাকার মানুষ বসবাস করতে পারেনি। চাষের জমিতে কোপ দিলেই বেড়িয়ে আসলো অর্ধ গলিত লাশের হাড় গোড়। ১৯৯২ সালে স্থানীয় সাংবাদিকদের প্রচেষ্টায় এই বধ্যভূমিটি সম্পর্কে দেশবাসী জানতে পারে। উক্ত স্থানে গণপূর্ত বিভাগের তত্তবাবধানে একটি স্মৃতিশৌধ নির্মাণ করা হয়েছে।[২]

স্মৃতিসৌধ[সম্পাদনা]

পাগলা দেওয়ান বধ্যভূমি স্মৃতিশৌধ এর সর্বোচ্চ স্তম্ভটি কালো টাইলস বা টালি নির্মিত। স্তম্ভের বেদিটি লাল ইটের তৈরি। ইটের তৈরি একটি দেয়াল সম্পূর্ন স্তম্ভের সবচাইতে বড় অংশটি দখল করে আছে। দেয়ালটির দুদিক ভাঙা। এ ভগ্ন দেয়াল ঘটনার দুঃখ ও শোকের গভীরতা নির্দেশ করছে। দেয়ালের দক্ষিণ-পশ্চিম পার্শ্বে একটি জানালা আছে। এ জানালা দিয়ে পেছনের আকাশ দেখা যায়। জানালাটি দেয়ালের বিশালতাকে কমিয়ে আনে।

অবস্থান[সম্পাদনা]

জয়পুরহাট শহর থেকে ১৭ কিলোমিটার পশ্চিমে সদর উপজেলার ধলাহার ইউনিয়ন ও নাওগাঁ জেলার ধামুরহাট উপজেলার জাহানপুর ইউনিয়নের সমান্তবর্তী পাগলা দেওয়ান বধ্যভূমি অবস্থিত।[৩]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "জয়পুরহাট সদর উপজেলার পাগলা দেওয়ান বধ্যভূমি"। মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ, এটুআই, বিসিসি ও বেসিস। ২০১৬-১২-২৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-০৫-০৩ 
  2. কুমার খাঁ, তপন (শনিবার, ১৫ মার্চ ২০১৪)। "বর্বরতার সাক্ষী জয়পুরহাটের বধ্যভূমি"দৈনিক জনকন্ঠ। ঢাকা, বাংলাদেশ। সংগ্রহের তারিখ 2016-05-03  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |তারিখ= (সাহায্য)
  3. "পাগলা দেওয়ান বধ্যভূমি"। বাংলাদেশ জাতীয় তথ্য বাতায়ন। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-০৫-০৩ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]