পাকিস্তানের নদীর তালিকা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

এটি পশ্চিম থেকে পূর্ব পর্যন্ত নদী অববাহিকা দ্বারা ভৌগোলিকভাবে সংগঠিত পাকিস্তানের পুরো বা আংশিক নদীগুলোর একটি তালিকা। উপনদীগুলোকে তালিকাভুক্ত করা হয় মোহনা থেকে উৎস পর্যন্ত। পাকিস্তানের দীর্ঘতম ও বৃহত্তম নদী হল সিন্ধু নদী। প্রায় দুই-তৃতীয়াংশ পানি সেচের জন্য সরবরাহ করা হয় সিন্ধু ও এর সাথে যুক্ত নদীগুলো থেকে পানি ঘরে ঘরে আসে।[১]

আরব সাগরে প্রবাহিত[সম্পাদনা]

এর মধ্যে কয়েকটি নদী কেবল বর্ষাকালে প্রবাহিত হয়, তাই বছরের বেশিরভাগ অংশে পানি সমুদ্রের কাছে পৌঁছাতে পারে এবং নাও পারে।

সিন্ধু নদীর অববাহিকা[সম্পাদনা]

এন্ডোরিয়িক অববাহিকায় প্রবাহিত[সম্পাদনা]

হামুন-ই-মাশকেল[সম্পাদনা]

  • মাশকেল নদী
    • রক্ষণ নদী

সিস্তান অববাহিকা[সম্পাদনা]

  • হেলমান্দ নদী (ইরান / আফগানিস্তান)
    • আরঘান্ডাব নদী (আফগানিস্তান)
      • লোরা নদী বা ডোরি নদী

সিন্ধু সমভূমি[সম্পাদনা]

  • নারি নদী
    • মুলা নদী
    • বোলান নদী
    • বেজি নদী
      • আনম্বার নদী
        • লোরালাই নদী
    • লো মান্ডা নদী

থার মরুভূমি[সম্পাদনা]

তারিম বেসিন[সম্পাদনা]

  • তারিম নদী (চীন)
    • ইয়ারকান্দ নদী (চীন)
      • শাকসগাম নদী

প্রাচীন নদী[সম্পাদনা]

  • ঘাগড়-হাকড়া নদী : ভারত ও পাকিস্তানের একটি সবিরাম নদী যা কেবল বর্ষা মৌসুমে প্রবাহিত হয়। যদিও এটি প্রায়শই সরস্বতী নদীর সাথে চিহ্নিত হয়, [২] এটি সর্বসম্মত মত নয়।[৩] হাকড়া হল পাকিস্তানের একটি নদীর শুকনো চ্যানেল যা ভারতের ঘাগড় নদীর ধারাবাহিকতা। বেশ কয়েকবার, কিন্তু ধারাবাহিকভাবে নয়, ব্রোঞ্জ যুগের সময়কালে এটি সুতলজের পানি বহন করে [৪] সিন্ধু সভ্যতার অনেকগুলি বসতি ঘাগড় ও হাকড়া নদীর তীরে পাওয়া গেছে।
  • সরস্বতী নদী : সরস্বতী নদী নামেও পরিচিত। এই নদীটি প্রাচীন ভারতের অন্যতম প্রধান নদী ছিল যা এখন আর নেই।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Wildlife of Pakistan website
  2. Oldham, R. D. (১৮৯৩)। "The Saraswati and the Lost River of the Indian Desert": 49–76। 
  3. Agarwal, Vishal (২০০৩)। "A Reply to Michael ujhWitzel's 'Ein Fremdling im Rgveda'" (PDF): 107–185। 
  4. Mughal 1997[তথ্যসূত্র প্রয়োজন]