নেতাজী সুভাষ ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
নেতাজী সুভাষ ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ
নেতাজী সুভাষ ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ, কলকাতার লোগো
নীতিবাক্য● प्रबोधोदय ● विवेकोदय ● उत्कृष्टत्व ● Rise to Knowledge, Rise to Excellence
ধরনস্বয়ং অর্থায়ন ; টিইকিউআইপি (I & II) (ভারত সরকার) এর অধীনেবিশ্ব ব্যাংক দ্বারা সহায়ক
স্থাপিত1998
বৃত্তিদানINR ৭৩০ মিলিয়ন (US$১০.১৬ মিলিয়ন)(২০১২)
অধ্যক্ষডঃ অমল কুমার ঘোষ
ডাইরেক্টরডাঃ হৃষিকেশ মন্ডল
শিক্ষায়তনিক কর্মকর্তা
১২৮
প্রশাসনিক কর্মকর্তা
১০০+
শিক্ষার্থী১০০০ (শিক্ষাবর্ষ প্রতি)
স্নাতক৮২০ (শিক্ষাবর্ষ প্রতি)
স্নাতকোত্তর১৮০ (শিক্ষাবর্ষ প্রতি)
--
অবস্থান, ,
শিক্ষাঙ্গনশহরতলি
অনুমোদনএআইসিটিই
ইউজিসি
উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর, পশ্চিমবঙ্গ সরকার
মানব সম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রণালয়, ভারত সরকার
ন্যাশনাল বোর্ড অব অ্যাক্রেডিটেশন
রঙসমূহরাজকীয় নীল এবং সাদা
         
সংক্ষিপ্ত নামএনএসইএস (pronunciation: énséc)
অধিভুক্তি● বি. টেক ও এম.টেক (পশ্চিমবঙ্গ প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়)
● বেসিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিজ্ঞান ও পিএইচডি (প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ইউনিভার্সিটি)
ওয়েবসাইটwww.nsec.ac.in
চিত্র:Netaji Subhash Engineering College (logo).jpg

নেতাজী সুভাষ ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ (NSEC) স্থাপন করা হয়  নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর ভারতীয় স্বাধীনতা আন্দোলনে অবদান ও আদর্শের কথা মনে রেখে।  নেতাজী বিশ্বাস করতেন যে প্রকৃত স্বাধীনতার ভিত্তিপ্রস্তর হল শিক্ষা ও প্রযুক্তি।  ১৯৯৮ সালে টেকনো ইন্ডিয়া গ্রুপ এবং ইনস্টিটিউট কম্পিউটার প্রকৌশলীর (ভারত) সহযোগিতায় কলেজটি স্থাপন করা হয়। কলেজটি  শুরু হয়, তিনটি ইঞ্জিনিয়ারিং কোর্স দিয়ে এবং বর্তমানে পশ্চিমবঙ্গের অন্যতম বৃহত্তম স্ব-নির্ভর প্রকৌশল কলেজ। কলেজটি শুরু থেকেই  কল্যাণী বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত ছিল। ২০০২ সালে কলেজটি  সদ্য নির্মিত পশ্চিমবঙ্গ প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্বন্ধযুক্ত হয়।

পরিচ্ছেদসমূহ

ক্যাম্পাস[সম্পাদনা]

প্রধান ভবন ও প্রশাসনিক ভবন

নেতাজী সুভাষ ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ, তার ক্যাম্পাসটি কলকাতার দক্ষিণ ভাগে টেকনো সিটি, গড়িয়া, কলকাতায় পরিচালনা করে। ইনস্টিটিউটটি রেলপথ ও রাস্তাঘাট উভয়ের  মাধ্যমে শহরের অন্য অংশের সাথে সংযুক্ত আছে। নিকটতম রেলওয়ে স্টেশন হল  কলকাতা শহরতলি রেলওয়ের  শিয়ালদহ-সোনারপুর বিভাগের গড়িয়া রেলওয়ে স্টেশন এবং সবচেয়ে কাছের বাস টার্মিনাস হয় গড়িয়া স্টেশন বাস স্ট্যান্ড। ধলুয়া প্রধান সড়কটি গড়িয়া রেলওয়ে স্টেশন থেকে ইনস্টিটিউটকে সংযোগ করে।  কবি সুভাষ মেট্রো স্টেশনটি কলেজকে কলকাতা মেট্রো রেলের মাধ্যমে  শহরের বিভিন্ন অংশে সংযোগ স্থাপন করতে সাহায্য করে।

বেসিক ইঞ্জিনিয়ারিং ও বিজ্ঞান ব্লক

ভর্তি[সম্পাদনা]

ওয়েস্ট বেঙ্গল জয়েন্ট এন্ট্রান্স পরীক্ষার (WBJEE) এবং JEE(প্রধান) এর উপর ভিত্তি করে বি.টেক এ ভর্তি নেওয়া হয়।

এম.টেক এ  ভর্তি নেওয়া হয় গেট পরীক্ষা এবং একটি ব্যক্তিগত সাক্ষাৎকারের  মাধ্যমে। এমসিএতে ভর্তি র জন্য প্রয়োজনীয় যোগ্যতা অর্জন করতে জে ই সি এ (জয়েন্ট এন্ট্রান্স ফর কম্পিউটার অ্যাপ্লিকেশন) নামক রাজ্য স্তরের প্রবেশিকা পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে হয়।

পিএইচডি তে,  টেকনো ইন্ডিয়া ইউনিভার্সিটির ব্যক্তিগত ইন্টারভিউ এর মাধ্যমে ভর্তি নেওয়া হয়।

নেতাজী সুভাষ ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজের সাংগঠনিক কাঠামো

প্রশাসন[সম্পাদনা]

  •   সকল অনুষদ সদস্য, রেজিস্ট্রার, গ্রন্থাগারিকদের নিয়ে একাডেমিক কাউন্সিল গঠিত।
  • দিন-প্রতিদিন কার্যক্রম পর্যবেক্ষণের জন্য সিনিয়র অনুষদ সদস্যদের  নিয়ে গঠিত  একাডেমিক কমিটি।
  •  ছাত্র প্রতিনিধির সঙ্গে নিয়মিত আলাপ আলোচনা হয়।
  •  বিভাগীয় প্রধানদের  সঙ্গে মতামত  বিনিময়ের জন্য নিয়মিতরূপে বৈঠক হয়।

শিক্ষাবিদ[সম্পাদনা]

 পশ্চিমবঙ্গ প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (WBUT) এবং টেকনো ইন্ডিয়া ইউনিভার্সিটিতে এই কলেজটি অধিভুক্ত। যে সমস্ত  কোর্সগুলি সঞ্চালন করা হয় সেগুলি ডাবলুবিইউটি র অধীনে, অল ইন্ডিয়া কাউন্সিল ফর টেকনিক্যাল এডুকেশন (AICTE) দ্বারা অনুমোদিত এবং ন্যাশনাল বোর্ড স্বীকৃতি(এন বি এ) দ্বারা স্বীকৃত।

পশ্চিমবঙ্গ প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়[সম্পাদনা]

পশ্চিমবঙ্গ প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় দ্বারা কলেজের যে বিভাগগুলি অধিভুক্ত সেগুলি হল:

ডিপার্টমেন্ট অব ইলেক্ট্রনিক্স এন্ড কমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিং[সম্পাদনা]

ডিপার্টমেন্ট অফ ইলেকট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং ১৯৯৮ সালে প্রতিষ্ঠিত হয় এবং ২০০৪ সালে এন বি এ দ্বারা স্বীকৃত।

কোর্স:

  • আন্ডার গ্রাজুয়েট: ইলেকট্রনিক্স ও কমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিং (বি. টেক)
  • স্নাতকোত্তর: কমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিং (এম. টেক)

ডিপার্টমেন্ট অফ ইলেকট্রনিক্স ও ইন্সট্রুমেন্টেসান ইঞ্জিনিয়ারিং[সম্পাদনা]

২০০৬ সালে ইলেকট্রনিক্স বিভাগের অধীনে ডিপার্টমেন্ট অফ ইলেকট্রনিক্স ও ইন্সট্রুমেন্টেসান ইঞ্জিনিয়ারিং গঠিত হয়েছিল। ২০০৯ সালে এটা একটি পূর্ণাঙ্গ আলাদা বিভাগ হয়।

কোর্স:

  • আন্ডার গ্রাজুয়েট: ইলেকট্রনিক্স ও, যন্ত্রানুষঙ্গের ইঞ্জিনিয়ারিং (বি. টেক)

ডিপার্টমেন্ট অফ বায়ো-মেডিকেল ইঞ্জিনিয়ারিং[সম্পাদনা]

২০০২ সালে ইলেকট্রনিক্স বিভাগের অধীনে বায়ো-মেডিকেল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ গঠিত হয়েছিল। ২০০৯ সালে এটা একটি পূর্ণাঙ্গ আলাদা বিভাগ হয় যারা  বি. টেক প্রোগ্রাম বায়ো মেড ইঞ্জিনিয়ারিং এ বি. টেক প্রোগ্রাম পরিচালনা করেন।

কোর্স:

  • আন্ডার গ্রাজুয়েট: বায়ো-মেডিকেল ইঞ্জিনিয়ারিং(বি. টেক)

কম্পিউটার বিজ্ঞান বিভাগ[সম্পাদনা]

 ১৯৯৮ সালে কম্পিউটার বিজ্ঞান বিভাগ প্রতিষ্ঠিত হয় এবং ২০০৪ সালে, এন বি এ দ্বারা স্বীকৃত হয়।

কোর্স:

  • আন্ডার গ্রাজুয়েট: কম্পিউটার সায়েন্স ইঞ্জিনিয়ারিং (বি. টেক)
  • পোস্ট গ্রাজুয়েট: কম্পিউটার সায়েন্স ইঞ্জিনিয়ারিং (এম. টেক)

তথ্য প্রযুক্তি বিভাগ[সম্পাদনা]

 ১৯৯৮ সালে বিভাগটি প্রতিষ্ঠিত হয় এবং ২০০৭ সালে এন বি এ দ্বারা স্বীকৃত হয়।

কোর্স:

  • আন্ডার গ্রাজুয়েট: তথ্য প্রযুক্তি (বি. টেক)

বৈদ্যুতিক প্রযুক্তি বিভাগ[সম্পাদনা]

১৯৯৮ সালে বিভাগের শুরু,  ২০০৪ সালে এন বি এ,  দ্বারা স্বীকৃত।

কোর্স:

  • আন্ডার গ্রাজুয়েট: ইলেক্ট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং (বি. টেক)
  • পোস্ট গ্রাজুয়েট: নিয়ন্ত্রণ এবং যন্ত্রানুষঙ্গের ইঞ্জিনিয়ারিং (এম. টেক)
  • পোস্ট গ্রাজুয়েট: পাওয়ার সিস্টেম ইঞ্জিনিয়ারিং (এম. টেক)

ডিপার্টমেন্ট অব সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং[সম্পাদনা]

ডিপার্টমেন্ট অফ সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং গঠন করা হয় ২০১২ সালে।

কোর্স:

  • আন্ডার গ্রাজুয়েট: সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং (বি. টেক)

ডিপার্টমেন্ট অফ মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং[সম্পাদনা]

মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ গঠিত হয় ২০১২ সালে।

কোর্স:

  • আন্ডার গ্রাজুয়েট: মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং (বি. টেক)

ডিপার্টমেন্ট অফ কম্পিউটার অ্যাপ্লিকেশন এবং ব্যবস্থাপনা[সম্পাদনা]

ডিপার্টমেন্ট অফ কম্পিউটার অ্যাপ্লিকেশন ২০০১ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়।

কোর্স:

  • আন্ডার গ্রাজুয়েট: বিসিএ, বিবিএ
  • পোস্ট গ্রাজুয়েট: এমসিএ, এমবিএ

টেকনো ইন্ডিয়া বিশ্ববিদ্যালয়[সম্পাদনা]

এই টেকনো ইন্ডিয়া ইউনিভার্সিটিবিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ভারত) দ্বারা স্বীকৃত।[১] টেকনো ইন্ডিয়া ইউনিভার্সিটি অধিভুক্ত কলেজের বিভাগগুলি হল:

  • সেলুলার অটোমাটাতে ডক্টরেট প্রোগ্রাম (পিএইচডি) , ওয়েব বুদ্ধিমত্তা, ডিস্ট্রিবিউটেড কম্পিউটিং, নিউরাল নেটওয়ার্ক, কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা, মাল্টিমিডিয়া সিস্টেম এবং কম্পাইলার নকশা.[২]

ডিপার্টমেন্ট অব ইলেকট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং[সম্পাদনা]

  •   বৈদ্যুতিক শক্তি সিস্টেমে ডক্টরেট প্রোগ্রাম (পিএইচডি),, বৈদ্যুতিক মেশিন এবং নিয়ন্ত্রণ প্রকৌশল।[৩]

ডিপার্টমেন্ট মৌলিক প্রকৌশল বিজ্ঞান[সম্পাদনা]

  • ৩-বছরের স্নাতক প্রোগ্রাম যাতে বিজ্ঞানের সব শাখার বিষয়ে পড়ান হয় যা প্রকৌশল ক্ষেত্রে  প্রয়োজন হয়।[৪]

স্বীকৃতি[সম্পাদনা]

NSEC নিম্নলিখিত শিক্ষা সংস্থা দ্বারা  অনুমোদিত :[৫]

ফিনিক্স সরকারী কারিগরি ক্লাব[সম্পাদনা]

ফিনিক্স লোগো

 ফিনিক্সের  বিভিন্ন কার্যকরী স্তম্ভ: জনসংযোগ দল, সৃজনশীল দল, ডাটাবেস  দল, ওয়েব দল, সি দল, ফটোগ্রাফি দল ইত্যাদি। এছাড়া সাংগঠনিক তিনটি বড় ঘটনা (Avenir – বার্ষিক টেক উল্লাসের, Brainstormer – আন্তঃ কলেজ কুইজ প্রতিযোগিতা এবং কুরুক্ষেত্র – ইন্ট্রা কলেজ বিতর্ক প্রতিযোগিতা) ছাড়া বর্তমানে ফিনিক্সে যে  ফোরামগুলি আছে সেগুলি হল : সি ফোরাম, এবং রোবনিক্স ফোরাম, এবং এসএসপিডি ফোরাম এবং ওয়েব ডিজাইনিং ফোরাম. ক্লাবের নীতিবাক্য "আসুন, উন্নত হওয়া যাক"।  [৬]

উইকি একাডেমী[সম্পাদনা]

এই কলেজে উইকিমিডিয়া ফাউন্ডেশন, ভারতের সহযোগিতায় কলকাতায় প্রথম উইকি একাডেমি গঠিত হয়। অনুষ্ঠানটিতে  কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহু শিক্ষার্থী  অংশগ্রহণ করে।

সিএসই প্রাক্তন ছাত্র সংগঠন[সম্পাদনা]

সিএসই প্রাক্তন ছাত্র সংগঠনটি,  সিএসই বিভাগের প্রাক্তনী, ছাত্র এবং অনুষদের  সাথে সংযোগ করার ও যোগাযোগ করার জন্য একটি প্ল্যাটফর্ম। এটি গঠিত হয়েছিল  কলেজের কর্মসূচিগুলি সমর্থন  এবং  সেগুলিকে শ্রেষ্ঠত্বে উন্নীত করার কাজে  সিএসই বিভাগকে, সেইসাথে তার গ্লোবাল সম্প্রদায়কে নিয়োজিত করার জন্য ।  সমিতি  সারা বছরব্যাপী সেমিনার/আলোচনার মত প্রাক্তনীদের উপযুক্ত  বিভিন্ন কার্যকলাপ আয়োজন করে।[৭] সমিতি এছাড়াও আয়োজন, তার বার্ষিক পুনর্মিলন "Melange" অক্টোবর মাসে, প্রতি বছর.[৮]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. University ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ১ এপ্রিল ২০১৫ তারিখে. Ugc.ac.in (2012-08-16). Retrieved on 2013-10-05.
  2. Netaji Subhash Engineering College. Nsecollege.org. Retrieved on 2013-10-05.
  3. Netaji Subhash Engineering College. Nsecollege.org. Retrieved on 2013-10-05.
  4. Netaji Subhash Engineering College. Nsecollege.org. Retrieved on 2013-10-05.
  5. Netaji Subhash Engineering College. Nsecollege.org. Retrieved on 2013-10-05.
  6. Phoenix ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ১৩ অক্টোবর ২০১৩ তারিখে. Phoenixnsec.org. Retrieved on 2013-10-05.
  7. "সংরক্ষণাগারভুক্ত অনুলিপি"। ১৯ আগস্ট ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২ মে ২০১৮ 
  8. "সংরক্ষণাগারভুক্ত অনুলিপি"। ১০ আগস্ট ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২ মে ২০১৮ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]